২৩ চীনা নাগরিকসহ নীলফামারীতে আরও ৪৫ জনের করোনা শনাক্ত
jugantor
২৩ চীনা নাগরিকসহ নীলফামারীতে আরও ৪৫ জনের করোনা শনাক্ত

  ডিমলা  প্রতিনিধি   

১৮ জুলাই ২০২০, ১৫:৪৩:২৮  |  অনলাইন সংস্করণ

নীলফামারী উত্তরা ইপিজেডের ২৩ জন চীনা নাগরিকসহ জেলায় নতুন করে ৪৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।


শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টায় সিভিল সার্জন রনজিৎ কুমার বর্মন জানান, স্বাস্থ্য অধিদফতর ও দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবের রির্পোটে এ তথ্য পাওয়া গেছে। 


নতুন ৪৫ জন করোনা রোগীর মধ্যে নীলফামারী উত্তরা ইপিজেডের ২৬ জনের মধ্যে ২৩ জন চীনা নাগরিক।এর মধ্যে এভারগ্রিন প্রোডাক্টস ফ্যাক্টরির (বিডি) ১৮ জন চীনা নাগরিক, কর্ড (বিডি) লিমিটেডের ৫ জন চীনা নাগরিকসহ ৮জন, নীলফামারী পৌরসভার ৯ জনের মধ্যে কলেজপাড়ায় একই পরিবারের দুইজন, নিউ বাবুপাড়ায় একই পরিবারের তিনজন, নতুনবাজার কলোনীপাড়ায় একজন, বাড়াইপাড়া একজন ও ঠিকানাবিহীন ২ নারী। 


ডোমার উপজেলার ২জনের মধ্যে বটতলা এলাকার একজন, ছোট রাউতা চাকদাপাড়ায় একজন। 

ডিমলা উপজেলার ৬ জনের মধ্যে সদর ইউনিয়ন একজন, নারী স্বাস্থ্যকর্মী একজন, সর্দারহাটে একজন, খগাখড়িবাড়ি ইউনিয়নের বন্দরখড়িবাড়ীতে একজন, খালিশা চাপানী ইউনিয়নের ছোট খাতায় একজন, টেপাখড়িবাড়ি ইউনিয়নের দক্ষিন খড়িবাড়িতে একজন। সৈয়দপুর উপজেলায় ২জনের মধ্যে শহরের নিয়ামতপুর সরকারপাড়ায় একজন ও মিস্ত্রিপাড়ায় একজন।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্য মতে, এ পর্যন্ত নীলফামারী জেলায় সর্বমোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৫৮১ জন। 


নীলফামারী সদরে ২৬৮জন, জলঢাকা উপজেলায় ৮৯জন, সৈয়দপুর উপজেলায় ৭৫জন, ডিমলা উপজেলায় ৬০জন, ডোমার উপজেলায় ৫১জন ও কিশোরগঞ্জ উপজেলায় ৩৮জন। এর মধ্যে সুস্থ্য হয়ে ফিরে গেছে ৩৯৪। চিকিৎসাধীন রয়েছে ১৫১জন। 

এরমধ্যে ঢাকা ও রংপুরে চিকিৎসাধীন রয়েছে ১৪ জন। মৃত্যু হয়েছে ২ নারীসহ ৯ জন। 


এছাড়া নীলফামারী উত্তরা ইপিজেডে ৫৫ জন চীনা নাগরিকসহ এ পর্যন্ত উত্তরা ইপিজেডে করোনা আক্রান্ত হয়েছে ৯৭জন। 


 

২৩ চীনা নাগরিকসহ নীলফামারীতে আরও ৪৫ জনের করোনা শনাক্ত

 ডিমলা  প্রতিনিধি  
১৮ জুলাই ২০২০, ০৩:৪৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নীলফামারী উত্তরা ইপিজেডের ২৩ জন চীনা নাগরিকসহ জেলায় নতুন করে ৪৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।


শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টায় সিভিল সার্জন রনজিৎ কুমার বর্মন জানান, স্বাস্থ্য অধিদফতর ও দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবের রির্পোটে এ তথ্য পাওয়া গেছে।


নতুন ৪৫ জন করোনা রোগীর মধ্যে নীলফামারী উত্তরা ইপিজেডের ২৬ জনের মধ্যে ২৩ জন চীনা নাগরিক।এর মধ্যে এভারগ্রিন প্রোডাক্টস ফ্যাক্টরির (বিডি) ১৮ জন চীনা নাগরিক, কর্ড (বিডি) লিমিটেডের ৫ জন চীনা নাগরিকসহ ৮জন, নীলফামারী পৌরসভার ৯ জনের মধ্যে কলেজপাড়ায় একই পরিবারের দুইজন, নিউ বাবুপাড়ায় একই পরিবারের তিনজন, নতুনবাজার কলোনীপাড়ায় একজন, বাড়াইপাড়া একজন ও ঠিকানাবিহীন ২ নারী।


ডোমার উপজেলার ২জনের মধ্যে বটতলা এলাকার একজন, ছোট রাউতা চাকদাপাড়ায় একজন।

ডিমলা উপজেলার ৬ জনের মধ্যে সদর ইউনিয়ন একজন, নারী স্বাস্থ্যকর্মী একজন, সর্দারহাটে একজন, খগাখড়িবাড়ি ইউনিয়নের বন্দরখড়িবাড়ীতে একজন, খালিশা চাপানী ইউনিয়নের ছোট খাতায় একজন, টেপাখড়িবাড়ি ইউনিয়নের দক্ষিন খড়িবাড়িতে একজন। সৈয়দপুর উপজেলায় ২জনের মধ্যে শহরের নিয়ামতপুর সরকারপাড়ায় একজন ও মিস্ত্রিপাড়ায় একজন।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্য মতে, এ পর্যন্ত নীলফামারী জেলায় সর্বমোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৫৮১ জন।


নীলফামারী সদরে ২৬৮জন, জলঢাকা উপজেলায় ৮৯জন, সৈয়দপুর উপজেলায় ৭৫জন, ডিমলা উপজেলায় ৬০জন, ডোমার উপজেলায় ৫১জন ও কিশোরগঞ্জ উপজেলায় ৩৮জন। এর মধ্যে সুস্থ্য হয়ে ফিরে গেছে ৩৯৪। চিকিৎসাধীন রয়েছে ১৫১জন।

এরমধ্যে ঢাকা ও রংপুরে চিকিৎসাধীন রয়েছে ১৪ জন। মৃত্যু হয়েছে ২ নারীসহ ৯ জন।


এছাড়া নীলফামারী উত্তরা ইপিজেডে ৫৫ জন চীনা নাগরিকসহ এ পর্যন্ত উত্তরা ইপিজেডে করোনা আক্রান্ত হয়েছে ৯৭জন।