নদীতে পড়ে নিখোঁজ কিশোরীর লাশ উদ্ধার
jugantor
নদীতে পড়ে নিখোঁজ কিশোরীর লাশ উদ্ধার

  কুলাউড়া (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি  

২০ জুলাই ২০২০, ১৫:১৫:৩৪  |  অনলাইন সংস্করণ

নদীতে পড়ে নিখোঁজ কিশোরীর লাশ উদ্ধার
ফাইল ছবি

মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলায় নিখোঁজের একদিন পর ফাহমিদা (১২) নামক এক কিশোরীর ভাসমান মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

সোমবার লঘাটা নদী থেকে তার মৃরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহত কিশোরী কমলগঞ্জ উপজেলার বড়চেগ গ্রামের ছালিক মিয়ার মেয়ে।

জানা যায়, কামারচাক ইউনিয়নের ইসলামপুর গ্রামের কুতুব মিয়ার বাড়িতে বেড়াতে আসে কিশোরী ফাহমিদা।  

রোববার দুপুর ১২টায় সে লঘাটা নদীতে পড়ে নিখোঁজ হয়। অনেক খোঁজাখুঁজির পর তাকে পাওয়া যায়নি। কামারচাক ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও রাজনগর থানা পুলিশের তৎপরতায় মৌলভীবাজারের ফায়ার সার্ভিসের একটি দল এবং সিলেট থেকে ডুবুরি নামিয়ে ফাহমিদাকে উদ্ধারে ব্যর্থ হন।

এদিকে সোমবার সকাল ১০টার দিকে লঘাটা নদীতে ফাহমিদার মরদেহ ভেসে ওঠে।

স্থানীয় লোকজন মরদেহ উদ্ধার করে কুতুব মিয়ার বাড়িতে নিয়ে আসেন।

কামারচাক ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের মেম্বার শেখ মো. গিয়াস উদ্দিন জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসেছে।

রাজনগর থানার ওসি আবুল হাসিম জানান, নিহতের পরিবার মরদেহ ময়নাতদন্ত ছাড়া নিতে চাচ্ছে। তার জন্য অতিরিক্ত জেরা ম্যাজিস্ট্রেটের (এডিএম) অনুমতি প্রয়োজন।

অনুমতি নিতে পারলে মরদেহ পরিবারকে দেয়া হবে। নতুবা থানায় নিয়ে আসা হবে এবং ময়নাতদন্ত করা হবে।

নদীতে পড়ে নিখোঁজ কিশোরীর লাশ উদ্ধার

 কুলাউড়া (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি 
২০ জুলাই ২০২০, ০৩:১৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
নদীতে পড়ে নিখোঁজ কিশোরীর লাশ উদ্ধার
ফাইল ছবি

মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলায় নিখোঁজের একদিন পর ফাহমিদা (১২) নামক এক কিশোরীর ভাসমান মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

সোমবার লঘাটা নদী থেকে তার মৃরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহত কিশোরী কমলগঞ্জ উপজেলার বড়চেগ গ্রামের ছালিক মিয়ার মেয়ে।

জানা যায়, কামারচাক ইউনিয়নের ইসলামপুর গ্রামের কুতুব মিয়ার বাড়িতে বেড়াতে আসে কিশোরী ফাহমিদা।

রোববার দুপুর ১২টায় সে লঘাটা নদীতে পড়ে নিখোঁজ হয়। অনেক খোঁজাখুঁজির পর তাকে পাওয়া যায়নি। কামারচাক ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও রাজনগর থানা পুলিশের তৎপরতায় মৌলভীবাজারের ফায়ার সার্ভিসের একটি দল এবং সিলেট থেকে ডুবুরি নামিয়ে ফাহমিদাকে উদ্ধারে ব্যর্থ হন।

এদিকে সোমবার সকাল ১০টার দিকে লঘাটা নদীতে ফাহমিদার মরদেহ ভেসে ওঠে।

স্থানীয় লোকজন মরদেহ উদ্ধার করে কুতুব মিয়ার বাড়িতে নিয়ে আসেন।

কামারচাক ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের মেম্বার শেখ মো. গিয়াস উদ্দিন জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসেছে।

রাজনগর থানার ওসি আবুল হাসিম জানান, নিহতের পরিবার মরদেহ ময়নাতদন্ত ছাড়া নিতে চাচ্ছে। তার জন্য অতিরিক্ত জেরা ম্যাজিস্ট্রেটের (এডিএম) অনুমতি প্রয়োজন।

অনুমতি নিতে পারলে মরদেহ পরিবারকে দেয়া হবে। নতুবা থানায় নিয়ে আসা হবে এবং ময়নাতদন্ত করা হবে।