‘শিশু-কিশোর-নারীদের কর্মসংস্থানের মাধ্যমে বাল্য বিবাহ নিরোধ সম্ভব’
jugantor
‘শিশু-কিশোর-নারীদের কর্মসংস্থানের মাধ্যমে বাল্য বিবাহ নিরোধ সম্ভব’

  রংপুর ব্যুরো  

২১ জুলাই ২০২০, ২২:৪৪:০৮  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনার কারণে বাল্য বিয়ে বৃদ্ধি পাচ্ছে। মানুষের কর্মহীনতায় এবং আর্থিক সংকটে নারী ও শিশু নির্যাতন বাড়ছে। তাই গ্রাম পর্যায়ে যথাযথ আইন মানা এবং দরিদ্র ও কর্মহীন ঝুঁকিপূর্ণ শিশু-কিশোর-নারীদের কারিগরি কর্মসংস্থানের মাধ্যমে বাল্য বিবাহ নিরোধ সম্ভব বলে মনে করেন রংপুরের জেলা প্রশাসক মো. আসিব আহসান।

সে জন্য কারিগরি শিক্ষার মাধ্যমে কর্মসংস্থান বাড়াতে ও বাল্য বিবাহ রোধে সবার সমন্বিত উদ্যোগ প্রয়োজন বলেও মনে করেন তিনি।

মঙ্গলবার দুপুরে জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে জেলা পর্যায়ে বাল্য বিবাহ নিরোধ বিষয়ক এক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক মো. আসিব আহসান এসব এ কথা বলেন।

স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক সৈয়দ ফরহাদ হোসেনের সভাপতিত্বে এ সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আরাফাত রহমান,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবু তোরাব মো. আরিফ হোসেন।

সভায় বক্তারা বলেন, বাল্য বিবাহ রোধে জেলা,উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে কমিটির কার্যক্রম মনিটরিং,বস্তি, নদী চরাঞ্চলে ও গ্রামীণ সুবিধা বঞ্চিত ঝুঁকিপূর্ণ দরিদ্র কিশোরীদের সচেতনতা বাড়ানো,শিক্ষার সুযোগ বৃদ্ধি, বিশেষ কারিগরি শিক্ষার মাধ্যমে দারিদ্র বিমোচন ও আর্থসামাজিক উন্নয়নের মাধ্যমে দারিদ্র হ্রাস এবং নিরাপত্তা বাড়লে বাল্য বিবাহ রোধ হ্রাস পাবে।

বক্তব্য রাখেন জেলা সিভিল সার্জন ডা. হিরম্ব কুমার রায়,পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের উপপরিচালক ডা. সাইদুর রহমান, মহিলা ও শিশু অধিদফতরের উপ-পরিচালক কাওসার পারভীন,কুমিল্লা এইডের নির্বাহী পরিচালক রোকেয়া বেগম শেপালী, ট্রেনিং কোঅর্ডিনেটর নুর হোসেন, ডিস্ট্রিক ইনচার্জ নাজমা বেগম, স্বর্ণ নারী অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মঞ্জুশ্রী সাহা, সাংবাদিক আফতাব হোসেন, আরডিআরএসের ব্যবস্থাপক শমসেয়ারা বিলকিছ ও কুমিল্লা এইডের উপজেলা ফেসিলেটর সুরত জাহান হামাদী প্রমুখ।

‘শিশু-কিশোর-নারীদের কর্মসংস্থানের মাধ্যমে বাল্য বিবাহ নিরোধ সম্ভব’

 রংপুর ব্যুরো 
২১ জুলাই ২০২০, ১০:৪৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনার কারণে বাল্য বিয়ে বৃদ্ধি পাচ্ছে। মানুষের কর্মহীনতায় এবং আর্থিক সংকটে নারী ও শিশু নির্যাতন বাড়ছে। তাই গ্রাম পর্যায়ে যথাযথ আইন মানা এবং দরিদ্র ও কর্মহীন ঝুঁকিপূর্ণ শিশু-কিশোর-নারীদের কারিগরি কর্মসংস্থানের মাধ্যমে বাল্য বিবাহ নিরোধ সম্ভব বলে মনে করেন রংপুরের জেলা প্রশাসক মো. আসিব আহসান।

সে জন্য কারিগরি শিক্ষার মাধ্যমে কর্মসংস্থান বাড়াতে ও বাল্য বিবাহ রোধে সবার সমন্বিত উদ্যোগ প্রয়োজন বলেও মনে করেন তিনি।

মঙ্গলবার দুপুরে জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে জেলা পর্যায়ে বাল্য বিবাহ নিরোধ বিষয়ক এক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক মো. আসিব আহসান এসব এ কথা বলেন।

স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক সৈয়দ ফরহাদ হোসেনের সভাপতিত্বে এ সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আরাফাত রহমান,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবু তোরাব মো. আরিফ হোসেন।

সভায় বক্তারা বলেন, বাল্য বিবাহ রোধে জেলা,উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে কমিটির কার্যক্রম মনিটরিং,বস্তি, নদী চরাঞ্চলে ও গ্রামীণ সুবিধা বঞ্চিত ঝুঁকিপূর্ণ দরিদ্র কিশোরীদের সচেতনতা বাড়ানো,শিক্ষার সুযোগ বৃদ্ধি, বিশেষ কারিগরি শিক্ষার মাধ্যমে দারিদ্র বিমোচন ও আর্থসামাজিক উন্নয়নের মাধ্যমে দারিদ্র হ্রাস এবং নিরাপত্তা বাড়লে বাল্য বিবাহ রোধ হ্রাস পাবে।

বক্তব্য রাখেন জেলা সিভিল সার্জন ডা. হিরম্ব কুমার রায়,পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের উপপরিচালক ডা. সাইদুর রহমান, মহিলা ও শিশু অধিদফতরের উপ-পরিচালক কাওসার পারভীন,কুমিল্লা এইডের নির্বাহী পরিচালক রোকেয়া বেগম শেপালী, ট্রেনিং কোঅর্ডিনেটর নুর হোসেন, ডিস্ট্রিক ইনচার্জ নাজমা বেগম, স্বর্ণ নারী অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মঞ্জুশ্রী সাহা, সাংবাদিক আফতাব হোসেন, আরডিআরএসের ব্যবস্থাপক শমসেয়ারা বিলকিছ ও কুমিল্লা এইডের উপজেলা ফেসিলেটর সুরত জাহান হামাদী প্রমুখ।

 
আরও খবর
 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন