কুষ্টিয়ায় ৬ মামলার আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত
jugantor
কুষ্টিয়ায় ৬ মামলার আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

  ভেড়ামারা (কুষ্টিয়া) প্রতিনিধি  

২৫ জুলাই ২০২০, ০৯:৩০:৪২  |  অনলাইন সংস্করণ

বন্দুকযুদ্ধ

কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ কুদরত আলী মণ্ডল (৫০) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।

শুক্রবার দিবাগত রাত ১টার দিকে উপজেলার ডাংমড়কা সেন্টারমোড় এলাকায় একটি ইটভাটার কাছে ‘বন্দুকযুদ্ধের’ এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশের দাবি, নিহত কুদরত আলী মাদক ব্যবসায়ী। তার বিরুদ্ধে মাদক ও অস্ত্র আইনে অন্তত ছয়টি মামলা রয়েছে। তিনি উপজেলার রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের সীমান্তসংলগ্ন মুন্সিগঞ্জ গ্রামের মৃত নিয়ামত আলী মণ্ডলের ছেলে।

দৌলতপুর থানার ওসি এসএম আরিফুর রহমান জানান, মাদক কেনা-বেচার গোপন সংবাদ পেয়ে দৌলতপুর থানা পুলিশ ডাংমড়কা সেন্টারমোড় এলাকার আবুল কালাম আজাদের ইটভাটায় অভিযান চালায়।

পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। জবাবে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়।

একপর্যায়ে অন্য মাদক ব্যবসায়ীরা পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় একজনকে উদ্ধার করে দৌলতপুর উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।


পরে নিহত ব্যক্তির নাম পরিচয় জানা যায়। ‘বন্দুকযুদ্ধে’ পুলিশের এক এএসআইসহ তিন পুলিশ আহত হয়েছে।

ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, তিন রাউন্ড গুলি, একটি ম্যাগজিন, একটি দেশীয় অস্ত্র (হাসুয়া) ও ৪৩ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানান ওসি।

কুষ্টিয়ায় ৬ মামলার আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

 ভেড়ামারা (কুষ্টিয়া) প্রতিনিধি 
২৫ জুলাই ২০২০, ০৯:৩০ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বন্দুকযুদ্ধ
ফাইল ছবি

কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ কুদরত আলী মণ্ডল (৫০) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।

শুক্রবার দিবাগত রাত ১টার দিকে উপজেলার ডাংমড়কা সেন্টারমোড় এলাকায় একটি ইটভাটার কাছে ‘বন্দুকযুদ্ধের’ এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশের দাবি, নিহত কুদরত আলী মাদক ব্যবসায়ী। তার বিরুদ্ধে মাদক ও অস্ত্র আইনে অন্তত ছয়টি মামলা রয়েছে। তিনি উপজেলার রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের সীমান্তসংলগ্ন মুন্সিগঞ্জ গ্রামের মৃত নিয়ামত আলী মণ্ডলের ছেলে।

দৌলতপুর থানার ওসি এসএম আরিফুর রহমান জানান, মাদক কেনা-বেচার গোপন সংবাদ পেয়ে দৌলতপুর থানা পুলিশ ডাংমড়কা সেন্টারমোড় এলাকার আবুল কালাম আজাদের ইটভাটায় অভিযান চালায়।

পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। জবাবে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়।

একপর্যায়ে অন্য মাদক ব্যবসায়ীরা পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় একজনকে উদ্ধার করে দৌলতপুর উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।


পরে নিহত ব্যক্তির নাম পরিচয় জানা যায়। ‘বন্দুকযুদ্ধে’ পুলিশের এক এএসআইসহ তিন পুলিশ আহত হয়েছে।  

ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, তিন রাউন্ড গুলি, একটি ম্যাগজিন, একটি দেশীয় অস্ত্র (হাসুয়া) ও ৪৩ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানান ওসি।

 

ঘটনাপ্রবাহ : মাদকবিরোধী অভিযানে নিহত

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন