নিন্দুকেরাই দুর্বল হচ্ছে, উন্নয়ন ও অর্থনীতি নয়: নৌপ্রতিমন্ত্রী

  পটুয়াখালী (দ.), পায়রা বন্দর ও কলাপাড়া প্রতিনিধি ২৬ জুলাই ২০২০, ২২:৪৮:৩৫ | অনলাইন সংস্করণ

পটুয়াখালীর পায়রা সমুদ্রবন্দর পরির্দশনকালে নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহামুদ চৌধুরী বলেছেন, নিন্দুকেরা দুর্বল হচ্ছে,দেশের অর্থনীতি ও উন্নয়ন নয়। যারা বর্তমান সরকারের উন্নয়ন নিয়ে সমালোচনা করছে আজ তাদের অবস্থা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে।

তিনি বলেন, পায়রা সমুদ্র বন্দরের উন্নয়ন নিয়ে যে সব নেতিবাচক গুজব ছড়ানো হচ্ছে সেটি ঠিক নয়, আগামী এক বছরের মধ্যে দেশের অন্যতম ও তৃতীয় সমুদ্রবন্দর পায়রা পূর্ণাঙ্গরূপে কার্যক্রম শুরু করবে। সম্প্রতি বন্দরের প্রথম ফাস্ট টার্মিনাল নির্মাণের জন্য চীনা কোম্পানির সঙ্গে চুক্তি হয়েছে শিগগিরই টার্মিনাল নির্মাণের কাজ শুরু হচ্ছে।

রোববার বেলা ১১টার দিকে পায়রাবন্দরের সামগ্রিক উন্নয়ন পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে প্রতিমন্ত্রী এ সব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী এ সময় আরও বলেন, ইতিমধ্যে পায়রাবন্দরে ৭৩টি জাহাজ পণ্য খালাস করেছে। যার মাধ্যমে বন্দর কর্তৃপক্ষ ১৭৮ কোটি টাকা রাজস্ব আয় করেছে। এটি সূচনা মাত্র, এখান থেকে হাজারো কোটি টাকা উপার্জন করা সম্ভব। তাই গণমাধ্যমে সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড তুলে ধরতে আহ্বান জানান প্রতিমন্ত্রী।

এর আগে পায়রাবন্দর এলাকায় বৃক্ষরোপণ কর্মসূচিতে অংশ নেন তিনি। এ সময় পটুয়াখালী-চার আসনের সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মুহিব, সংরক্ষিত মহিলা সংসদ সদস্য কাজী কানিজ সুলতানা হেলেন, পায়রাবন্দরের চেয়ারম্যান কমডোর হুমায়ুন কল্লোল, উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু হাসনাত মো. শহিদুল হক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (কলাপাড়া সার্কেল) আহম্মেদ আলী প্রমুখ।

এ দিকে নৌপ্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহামুদ চৌধুরীর সংবাদ সংগ্রহ করতে গেলে পায়রাবন্দরের অভ্যন্তরে গণমাধ্যমের প্রবেশ নিয়ে বিতর্ক দেখা দেয়। প্রায় দেড় ঘণ্টা রোদে দাঁড়িয়ে রাখা হয় পায়রাবন্দরে যাওয়া গণমাধ্যমকর্মীদের। এ ঘটনায় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন গণমাধ্যমকর্মীরা।

গণমাধ্যমের প্রতি পায়রাবন্দর কর্তৃপক্ষের এমন আচরণ নিয়ে সংশয় প্রকাশ করে স্থানীয় গণমাধ্যম নেতারা। তারা বলেন, বন্দর কর্তৃপক্ষের এই আচরণ পরিবর্তন ও সহনশীল না হলে-পায়রা বন্দরসহ দক্ষিণাঞ্চলের উন্নয়ন গণমাধ্যমে তুলে ধরা কষ্টসাধ্য।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত