লক্ষ্মীপুরে ভাই-ভাতিজার হামলায় অবসরপ্রাপ্ত সেনা সার্জেন্টের মৃত্যু
jugantor
লক্ষ্মীপুরে ভাই-ভাতিজার হামলায় অবসরপ্রাপ্ত সেনা সার্জেন্টের মৃত্যু

  রায়পুর (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি   

২৯ জুলাই ২০২০, ১৮:৩৬:৪৯  |  অনলাইন সংস্করণ

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে ছোট ভাই ও ভাতিজার হামলায় অবসরপ্রাপ্ত সেনা সার্জেন্ট দেলোয়ার হোসেনের (৭০) মৃত্যু হয়েছে। জায়গা-জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে উপজেলার উত্তর রায়পুর গ্রামের পাটওয়ারী বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। 

বুধবার পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে প্রেরণ করেছে। ঘটনার পর বাড়িঘর ছেড়ে পালিয়েছে ছোট ভাই এমরান হোসেন (৬০) সহ পরিবারের সদস্যরা।

নিহতের ছেলে সুমন হোসেন পাটওয়ারী জানান, আমপাড়াকে কেন্দ্র করে ১০-১২ দিন আগে চাচা এমরান ও চাচাত ভাই ফোরকান তার বাবাকে লাঠি ও রড দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর জখম করে। এতে তার বাবার দুই হাত ও বুকে মারাত্মক আঘাতপ্রাপ্ত হন। মঙ্গলবার দিবাগত গভীর রাতে চট্টগ্রাম ন্যাশনাল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। 

বুধবার সকালে লাশ বাড়িতে আনলে পুলিশ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠায়। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

রায়পুর থানার ওসি আবদুল জলিল বলেন, দুই ভাইয়ের মারামারিতে বড় ভাই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয়েছে। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। 
 

লক্ষ্মীপুরে ভাই-ভাতিজার হামলায় অবসরপ্রাপ্ত সেনা সার্জেন্টের মৃত্যু

 রায়পুর (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি  
২৯ জুলাই ২০২০, ০৬:৩৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে ছোট ভাই ও ভাতিজার হামলায় অবসরপ্রাপ্ত সেনা সার্জেন্ট দেলোয়ার হোসেনের (৭০) মৃত্যু হয়েছে। জায়গা-জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে উপজেলার উত্তর রায়পুর গ্রামের পাটওয়ারী বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

বুধবার পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে প্রেরণ করেছে। ঘটনার পর বাড়িঘর ছেড়ে পালিয়েছে ছোট ভাই এমরান হোসেন (৬০) সহ পরিবারের সদস্যরা।

নিহতের ছেলে সুমন হোসেন পাটওয়ারী জানান, আমপাড়াকে কেন্দ্র করে ১০-১২ দিন আগে চাচা এমরান ও চাচাত ভাই ফোরকান তার বাবাকে লাঠি ও রড দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর জখম করে। এতে তার বাবার দুই হাত ও বুকে মারাত্মক আঘাতপ্রাপ্ত হন। মঙ্গলবার দিবাগত গভীর রাতে চট্টগ্রাম ন্যাশনাল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

বুধবার সকালে লাশ বাড়িতে আনলে পুলিশ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠায়। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

রায়পুর থানার ওসি আবদুল জলিল বলেন, দুই ভাইয়ের মারামারিতে বড় ভাই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয়েছে। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।