বানভাসিদের ঘরে ঘরে ত্রাণ পৌঁছে দিলেন রাজবাড়ীর এসপি
jugantor
বানভাসিদের ঘরে ঘরে ত্রাণ পৌঁছে দিলেন রাজবাড়ীর এসপি

  গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি  

২৯ জুলাই ২০২০, ২৩:২৯:৪৫  |  অনলাইন সংস্করণ

বানের পানিতে ভাসছে রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার বেশিরভাগ এলাকা। পানিবন্দি হয়ে খেয়ে না খেয়ে সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাচ্ছে হাজার হাজার পরিবার।

আইজিপি বেনজীর আহমেদের পক্ষ থেকে অসহায় বানভাসিদের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম উদ্বোধন করেছেন রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান।

বুধবার বিকেল ৪টার দিকে তিনি গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া ক্যানালঘাট থেকে ট্রলারযোগে দৌলতদিয়া ইউনিয়নের ইদ্রিসপাড়া ও নতুনপাড়া এলাকায় পানিবন্দি হয়ে থাকা শতাধিক অসহায় পরিবারের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করেন।

খাদ্যসামগ্রীর মধ্যে ছিল পরিবারপ্রতি ১টি লুঙ্গি, ১টি শাড়ি, ৫ কেজি চাল, ১ লিটার তেল, ১ কেজি ডাল, ১ কেজি লবণ, ৫০টি পানি বিশুদ্ধিকরণ ট্যাবলেট ও ২টি সাবান।

ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমে উপস্থিত ছিলেন রাজবাড়ীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) ফজলুল হক, জেলা পুলিশের ডিআই-১ সাইদুর রহমান, গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি আশিকুর রহমান প্রমুখ।

এ প্রসঙ্গে রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, দেশের যে কোনো দুর্যোগ-দুর্গতিতে বাংলাদেশ পুলিশ তাদের মানবিক কার্যক্রমের অংশ হিসেবে বরাবর দেশের মানুষের জন্য কাজ করে আসছে। করোনা যুদ্ধে মানুষের জন্য কাজ করতে গিয়ে আমাদের অনেক পুলিশ সদস্য ইতোমধ্যে প্রাণ দিয়েছেন। দেশে নতুন করে শুরু হয়েছে ভয়াবহ প্রাকৃতিক দুর্যোগ বন্যা। এবারেও আমরা এ দুর্যোগে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর লক্ষ্যে মাননীয় আইজিপি মহোদয়ের নির্দেশক্রমে রাজবাড়ীতে তার পাঠানো ত্রাণসামগ্রী অসহায় মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছে দেয়া কার্যক্রম শুরু করলাম। এ কার্যক্রম জেলার বন্যাদুর্গত প্রতিটি এলাকায় চলমান থাকবে।

বানভাসিদের ঘরে ঘরে ত্রাণ পৌঁছে দিলেন রাজবাড়ীর এসপি

 গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি 
২৯ জুলাই ২০২০, ১১:২৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বানের পানিতে ভাসছে রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার বেশিরভাগ এলাকা। পানিবন্দি হয়ে খেয়ে না খেয়ে সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাচ্ছে হাজার হাজার পরিবার।

আইজিপি বেনজীর আহমেদের পক্ষ থেকে অসহায় বানভাসিদের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম উদ্বোধন করেছেন রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান।

বুধবার বিকেল ৪টার দিকে তিনি গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া ক্যানালঘাট থেকে ট্রলারযোগে দৌলতদিয়া ইউনিয়নের ইদ্রিসপাড়া ও নতুনপাড়া এলাকায় পানিবন্দি হয়ে থাকা শতাধিক অসহায় পরিবারের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করেন।

খাদ্যসামগ্রীর মধ্যে ছিল পরিবারপ্রতি ১টি লুঙ্গি, ১টি শাড়ি, ৫ কেজি চাল, ১ লিটার তেল, ১ কেজি ডাল, ১ কেজি লবণ, ৫০টি পানি বিশুদ্ধিকরণ ট্যাবলেট ও ২টি সাবান।

ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমে উপস্থিত ছিলেন রাজবাড়ীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) ফজলুল হক, জেলা পুলিশের ডিআই-১ সাইদুর রহমান, গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি আশিকুর রহমান প্রমুখ।

এ প্রসঙ্গে রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, দেশের যে কোনো দুর্যোগ-দুর্গতিতে বাংলাদেশ পুলিশ তাদের মানবিক কার্যক্রমের অংশ হিসেবে বরাবর দেশের মানুষের জন্য কাজ করে আসছে। করোনা যুদ্ধে মানুষের জন্য কাজ করতে গিয়ে আমাদের অনেক পুলিশ সদস্য ইতোমধ্যে প্রাণ দিয়েছেন। দেশে নতুন করে শুরু হয়েছে ভয়াবহ প্রাকৃতিক দুর্যোগ বন্যা। এবারেও আমরা এ দুর্যোগে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর লক্ষ্যে মাননীয় আইজিপি মহোদয়ের নির্দেশক্রমে রাজবাড়ীতে তার পাঠানো ত্রাণসামগ্রী অসহায় মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছে দেয়া কার্যক্রম শুরু করলাম। এ কার্যক্রম জেলার বন্যাদুর্গত প্রতিটি এলাকায় চলমান থাকবে।

 

ঘটনাপ্রবাহ : বন্যা ২০২০

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন