বাসাইলে নৌকা ডুবে পাঁচজনের মৃত্যু
jugantor
বাসাইলে নৌকা ডুবে পাঁচজনের মৃত্যু

  জাফর আহমেদ, টাঙ্গাইল প্রতিনিধি  

৩১ জুলাই ২০২০, ১৭:৪২:৫৪  |  অনলাইন সংস্করণ

টাঙ্গাইলের বাসাইলে নৌকা ডুবে পাঁচজন মৃত্যুবরণ করেছেন।
টাঙ্গাইলের বাসাইলে নৌকা ডুবির পর উদ্ধার অভিযান চালানো হয়। ছবি: যুগান্তর

টাঙ্গাইলের বাসাইলে নৌকা ডুবে পাঁচজন মৃত্যুবরণ করেছেন। শুক্রবার বিকালে উপজেলার গিলাবাড়ী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয় ইউপি সদস্য রুবেল মিয়া এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নিহতরা হলেন বাসাইল উপজেলার গিলাবাড়ী গ্রামের সিকিম উদ্দিনের ছেলে নৌকার মাঝি তাইজ উদ্দিন (৫০), মিঞ্জু মিয়ার স্ত্রী জমেলা বেগম (৬০), তার ছেলে হামিদুর রহমান রনো (৩৫), আতা মিয়ার ছেলে জোয়াহেরের স্ত্রী রুমা বেগম (৩২), সখীপুর উপজেলার কৈয়ামধু গ্রামের হায়দার আলীর ছেলে শাহ আলম (২৫)। লাশগুলো উদ্ধার করে গিলাবাড়ি গ্রামে মিঞ্জু মিয়ার বাড়িতে রাখা হয়েছে। 

কাউলজানি ইউনিয়ন পরিষদের সাত নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য মো. রুবেল মিয়া যুগান্তরকে বলেন, সখীপুরের দাঁড়িয়াপুর থেকে বাসাইলের গিলাবাড়ী গ্রামে নৌকাটি যাচ্ছিল। এটি বিকাল সাড়ে তিনটার দিকে গিলাবাড়ী বাজার এলাকায় পৌঁছালে বিলের মধ্যে থাকা বিদ্যুতের তারের সঙ্গে নৌকার মাঝি তাইজ উদ্দিনের স্পর্শ লাগে। এসময় যাত্রীদের হুড়াহুড়িতে নৌকাটি ডুবে যায়। পরে ঘটনাস্থল থেকে পাঁচজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এখনও কয়জন নিখোঁজ রয়েছে সেটি বলা যাচ্ছে না।’ 
 
বাসাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হারুন অর রশীদ যুগান্তরকে জানান, তিনি ঘটনা শুনেছেন। ঘটনাস্থলের উদ্দেশে পুলিশ রওনা হয়েছে।

বাসাইল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শামছুন্নাহার স্বপ্না বলেন, পাঁচজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ডুবে যাওয়া নৌকাটিতে আরো কোনো লাশ আছে কি না ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিরা তা তল্লাশি করছেন। 

বাসাইলে নৌকা ডুবে পাঁচজনের মৃত্যু

 জাফর আহমেদ, টাঙ্গাইল প্রতিনিধি 
৩১ জুলাই ২০২০, ০৫:৪২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
টাঙ্গাইলের বাসাইলে নৌকা ডুবে পাঁচজন মৃত্যুবরণ করেছেন।
টাঙ্গাইলের বাসাইলে নৌকা ডুবির পর উদ্ধার অভিযান চালানো হয়। ছবি: যুগান্তর

টাঙ্গাইলের বাসাইলে নৌকা ডুবে পাঁচজন মৃত্যুবরণ করেছেন। শুক্রবার বিকালে উপজেলার গিলাবাড়ী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয় ইউপি সদস্য রুবেল মিয়া এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নিহতরা হলেন বাসাইল উপজেলার গিলাবাড়ী গ্রামের সিকিম উদ্দিনের ছেলে নৌকার মাঝি তাইজ উদ্দিন (৫০), মিঞ্জু মিয়ার স্ত্রী জমেলা বেগম (৬০), তার ছেলে হামিদুর রহমান রনো (৩৫), আতা মিয়ার ছেলে জোয়াহেরের স্ত্রী রুমা বেগম (৩২), সখীপুর উপজেলার কৈয়ামধু গ্রামের হায়দার আলীর ছেলে শাহ আলম (২৫)। লাশগুলো উদ্ধার করে গিলাবাড়ি গ্রামে মিঞ্জু মিয়ার বাড়িতে রাখা হয়েছে।

কাউলজানি ইউনিয়ন পরিষদের সাত নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য মো. রুবেল মিয়া যুগান্তরকে বলেন, সখীপুরের দাঁড়িয়াপুর থেকে বাসাইলের গিলাবাড়ী গ্রামে নৌকাটি যাচ্ছিল। এটি বিকাল সাড়ে তিনটার দিকে গিলাবাড়ী বাজার এলাকায় পৌঁছালে বিলের মধ্যে থাকা বিদ্যুতের তারের সঙ্গে নৌকার মাঝি তাইজ উদ্দিনের স্পর্শ লাগে। এসময় যাত্রীদের হুড়াহুড়িতে নৌকাটি ডুবে যায়। পরে ঘটনাস্থল থেকে পাঁচজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এখনও কয়জন নিখোঁজ রয়েছে সেটি বলা যাচ্ছে না।’

বাসাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হারুন অর রশীদ যুগান্তরকে জানান, তিনি ঘটনা শুনেছেন। ঘটনাস্থলের উদ্দেশে পুলিশ রওনা হয়েছে।

বাসাইল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শামছুন্নাহার স্বপ্না বলেন, পাঁচজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ডুবে যাওয়া নৌকাটিতে আরো কোনো লাশ আছে কি না ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিরা তা তল্লাশি করছেন।