নেত্রকোনার মাদ্রাসা ছাত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু 
jugantor
নেত্রকোনার মাদ্রাসা ছাত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু 

  নেত্রকোনা প্রতিনিধি  

০১ আগস্ট ২০২০, ০০:১৬:০০  |  অনলাইন সংস্করণ

নেত্রকোনা পৌর এলাকার দারিয়া নয়াপাড়া থেকে গলায় উড়না পেঁচানো অবস্থায় এক মাদ্রাসা ছাত্রীর লাশ উদ্ধার করেছে নেত্রকোনা মডেল থানা পুলিশ। শুক্রবার বিকাল সাড়ে পাঁচটার দিকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পৌরসভার দারিয়া দক্ষিণপাড়া গ্রামের মিলন মিয়ার মেয়ে রাবেয়া আক্তার(১৬) শহরের মালনী মাদ্রাসায় দারুয়া শ্রেণি ছাত্রী ছিল।

ছোটবেলা থেকেই রাবেয়া দারিয়া নয়াপাড়ায় তার খালু মাহবুব আলীর বাড়ি থাকতো। 

শুক্রবার বিকাল সাড়ে তিনটার দিকে বাড়ির সবার অজান্তে খালুর ঘরের ফ্যানের সঙ্গে উড়না দিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে রাবেয়া। 

পাশের বাড়ির ছোট একটি শিশু বাড়ির পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় জানালা দিয়ে তার ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পেয়ে চিৎকার দেয়।এ সময় বাড়ির লোকজন ওড়না কেটে লাশটি নিচে নামান। 

খবর পেয়ে নেত্রকোনা মডেল থানা পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়।ঈওদর একদিন আগে কিশোরীর মৃত্যুকে রহস্যজনক বলে মনে করছে এলাকাবাসী।

এ ব্যাপারে মডেল থানার ওসি তাজুল ইসলাম খান জানান, আমরা লাশ উদ্ধার করেছি। ময়নাতদন্তের জন্য লাশটি নেত্রকোনা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ আসল ঘটনা উদঘাটন ও কেউ জরিত থাকলে তাকে চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা হবে।

নেত্রকোনার মাদ্রাসা ছাত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু 

 নেত্রকোনা প্রতিনিধি 
০১ আগস্ট ২০২০, ১২:১৬ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নেত্রকোনা পৌর এলাকার দারিয়া নয়াপাড়া থেকে গলায় উড়না পেঁচানো অবস্থায় এক মাদ্রাসা ছাত্রীর লাশ উদ্ধার করেছে নেত্রকোনা মডেল থানা পুলিশ। শুক্রবার বিকাল সাড়ে পাঁচটার দিকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পৌরসভার দারিয়া দক্ষিণপাড়া গ্রামের মিলন মিয়ার মেয়ে রাবেয়া আক্তার(১৬) শহরের মালনী মাদ্রাসায় দারুয়া শ্রেণি ছাত্রী ছিল।

ছোটবেলা থেকেই রাবেয়া দারিয়া নয়াপাড়ায় তার খালু মাহবুব আলীর বাড়ি থাকতো।

শুক্রবার বিকাল সাড়ে তিনটার দিকে বাড়ির সবার অজান্তে খালুর ঘরের ফ্যানের সঙ্গে উড়না দিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে রাবেয়া।

পাশের বাড়ির ছোট একটি শিশু বাড়ির পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় জানালা দিয়ে তার ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পেয়ে চিৎকার দেয়।এ সময় বাড়ির লোকজন ওড়না কেটে লাশটি নিচে নামান।

খবর পেয়ে নেত্রকোনা মডেল থানা পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়।ঈওদর একদিন আগে কিশোরীর মৃত্যুকে রহস্যজনক বলে মনে করছে এলাকাবাসী।

এ ব্যাপারে মডেল থানার ওসি তাজুল ইসলাম খান জানান, আমরা লাশ উদ্ধার করেছি। ময়নাতদন্তের জন্য লাশটি নেত্রকোনা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ আসল ঘটনা উদঘাটন ও কেউ জরিত থাকলে তাকে চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা হবে।