সিরাজদিখান মধ্যপাড়ায় বন্যায় তলিয়ে গেছে বাড়িঘর-রাস্তা

  সিরাজদিখান (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি ০৫ আগস্ট ২০২০, ১৮:৫১:৫২ | অনলাইন সংস্করণ

সিরাজদিখান মধ্যপাড়া ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডের বিভিন্ন এলাকায় বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে বাড়িঘর ও রাস্তাঘাট।যুগান্তর

সিরাজদিখান মধ্যপাড়া ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডের বিভিন্ন এলাকায় বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে বাড়িঘর ও রাস্তাঘাট। এতে চলাচলে চরম দুর্ভোগ দেখা দিয়েছে। একদিকে বন্যা অপরদিকে গত কয়েক দিনের টানা বৃষ্টিতে এমন অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।
নদীতে বন্যার পানি বেড়ে গেছে, বৃষ্টির পানি নদীতে সরতে না পেরে ইছামতি নদীর আশপাশের বাড়িঘর প্রায় ডুবে গেছে। ফলে পানিবন্দি মানুষের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। সরেজমিন ঘুরে জানা যায়, বন্যার পানি ইছামতি ও ধলেশ্বরী শাখা নদীতে প্রবাহিত হওয়ার ফলে নদীর আশপাশের বাড়িঘর মধ্যপাড়া মালপদিয়া আল্লাহর দান আদর্শ মহিলা মাদ্রাসার রাস্তা তলিয়ে গেছে। আবার কিছু কিছু এলাকায় রাস্তা নেই, বাড়ি আছে। সেসব এলাকায় মানুষ ঝুঁকি নিয়ে সাঁকো দিয়ে চলাচল করছে।
বন্যাকবলিত এলাকায় মধ্যে মধ্যপাড়া ৭নং ওয়ার্ড মালপদিয়া, মধ্যপাড়া, পুরাতন মোস্তফাগঞ্জসহ বিভিন্ন এলাকা ঘিরে ইছামতি নদীর খাল রয়েছে- এসব এলাকা পানিতে তলিয়ে গেছে। এছাড়া বৃষ্টির পানিতে মালপদিয়া উচ্চ বিদ্যালয় রোড, মধ্যপাড়া মালপদিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় রাস্তাসহ বিভিন্ন এলাকা জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়ে মানুষের চলচলা অনুপযোগী হয়ে পড়েছে।
সিরাজদিখান মধ্যপাড়া মালপদিয়া ৭নং ওয়ার্ড সদস্য মো. আবু বক্কর খান ও এলাকার স্থানীয় বাসিন্দা ব্যবসায়ী হারুন অর রশিদ বলেন, অন্য এলাকার তুলনায় মধ্যপাড়া ইউনিয়নের রাস্তাগুলো সরু ও নিচু হওয়াতে একদিকে বন্যার পানি আরেকদিকে বৃষ্টির পানিতে রাস্তাঘাটের বেহাল দশা। এতে মানুষের দুর্ভোগের শেষ নেই।
মালপদিয়া এলাকার পানিবন্দি আব্দুর রহিম বলেন, বন্যার পানিতে আমাদের বাড়ি তলিয়ে গেছে, তাছাড়া রাস্তাও নেই। বর্তমানে সাঁকো দিয়ে পার হচ্ছি। সাঁকো তলিয়ে গেলে চলাচল বন্ধ হয়ে যাবে। স্থানীয় মধ্যপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী আব্দুল করিম শেখ বলেন, বন্যার পানি এটা প্রাকৃতিক দুর্যোগ, ইছামতি ও ধলেশ্বরী শাখা নদীর পানি কমলে মধ্যপাড়া ধলেশ্বরী শাখা নদীর আশপাশের মানুষের সমস্যা থাকবে না। যেসব বাড়িঘরের রাস্তাঘাট নেই, সরু রাস্তা, সেসব রাস্তা করার চেষ্টা চলছে।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত