বিশ্ব মুসলিম বাবরি মসজিদকে পুনরুদ্ধার করবে: হেফাজতে ইসলাম
jugantor
বিশ্ব মুসলিম বাবরি মসজিদকে পুনরুদ্ধার করবে: হেফাজতে ইসলাম

  হাটহাজারী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি  

০৬ আগস্ট ২০২০, ১৯:২৬:৫৫  |  অনলাইন সংস্করণ

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমীর আল্লামা শাহ আহমদ শফী ও মহাসচিব আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী
হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমীর আল্লামা শাহ আহমদ শফী ও মহাসচিব আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী

বহুল আলোচিত বাবরি মসজিদের জায়গায় রামমন্দির নির্মাণ কাজের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমীর আল্লামা শাহ আহমদ শফী ও সংগঠনটির মহাসচিব আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী।

বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে গণমাধ্যমে প্রেরিত পৃথক বিবৃতিতে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের নেতারা এ নিন্দা ও তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে হেফাজত নেতারা বলেন, ভারতে মুসলমানদের ওপর জুলুম-নির্যাতনের মাত্রা ছাড়িয়ে গেছে। কট্টর হিন্দুত্ববাদী মোদি সরকার এবার পবিত্র বাবরি মসজিদকে ভেঙে রামমন্দির নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তর করেছে। ভারত সরকারের এমন সিদ্ধান্তে মুসলিম বিশ্ব হৃদয়ে আঘাত পেয়েছে এবং কলিজায় রক্তক্ষরণ হয়েছে। মসজিদের জায়গায় মন্দির নির্মাণ মুসলমানরা কখনও মেনে নেবে না। আজ নয় কাল বিশ্ব মুসলিম বাবরি মসজিদকে পুনরুদ্ধার করবে।

স্বাধীন ধর্মচর্চার কথা ভারতীয় সংবিধানে উল্লেখ থাকলেও উগ্রবাদী মোদি সরকার তা মানেনি বলে দাবি করে হেফাজত নেতারা বলেন, বাবরি মসজিদের স্থানে রামমন্দিরের ভিত্তিপ্রস্তর করে ভারতীয় মুসলমানদের প্রতি অবিচার এবং অনধিকার চর্চা করেছে মোদি সরকার। এক্ষেত্রে মোদি স্বয়ং ভারতীয় সংবিধানের বিরোধিতা করেছে। মসজিদ মুসলমানদের শ্রদ্ধা এবং আবেগের সর্বোচ্চ মর্যাদাপূর্ণ স্থান। বিশ্ব মুসলিম তুরস্কের আয়া সুফিয়া গ্রান্ড মসজিদের মতো যে কোনো সময় মুসলিম বিশ্বের পাঁচশ' বছরের ঐতিহ্য বাবরি মসজিদকে পুনরায় মসজিদে রূপান্তর করবে।

ভারতীয় উগ্রবাদী মোদি সরকারকে এ ঘটনার চরম জবাবদিহি করতে হবে এমনটা জানিয়ে তারা বলেন, পৃথিবীর যে কোনো প্রান্তে মসজিদ প্রতিষ্ঠিত হোক না কেন তা বিশ্বের সব মুসলমানদের। বাবরি মসজিদ ইস্যু স্রেফ ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয় নয়, বরং এর সঙ্গে বিশ্ব মুসলিমের ধর্মীয় অনুভূতির সম্পৃক্ততা বিদ্যমান। তাই ঐতিহাসিক বাবরি মসজিদকে পুনরুদ্ধারে ওআইসি, আরব লীগসহ বিশ্ব মুসলিম নেতাদের ঐক্যবদ্ধ হওয়া সময়ের অপরিহার্য দাবি।

এছাড়া বাবরি মসজিদের স্থানে রামমন্দির নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তর করে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা লাগানোর বীজ বপন করেছে। বিশ্বের যে কোনো জায়গায় সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার সব দায়ভার মোদি সরকারকে নিতে হবে। বিশ্বের সব মুসলিম সংগঠনের নেতারা ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করা সময়ের দাবি বলে মনে করেন হেফাজত নেতারা।

বিশ্ব মুসলিম বাবরি মসজিদকে পুনরুদ্ধার করবে: হেফাজতে ইসলাম

 হাটহাজারী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি 
০৬ আগস্ট ২০২০, ০৭:২৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমীর আল্লামা শাহ আহমদ শফী ও মহাসচিব আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী
হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমীর আল্লামা শাহ আহমদ শফী ও মহাসচিব আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী

বহুল আলোচিত বাবরি মসজিদের জায়গায় রামমন্দির নির্মাণ কাজের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমীর আল্লামা শাহ আহমদ শফী ও সংগঠনটির মহাসচিব আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী।

বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে গণমাধ্যমে প্রেরিত পৃথক বিবৃতিতে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের নেতারা এ নিন্দা ও তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে হেফাজত নেতারা বলেন, ভারতে মুসলমানদের ওপর জুলুম-নির্যাতনের মাত্রা ছাড়িয়ে গেছে। কট্টর হিন্দুত্ববাদী মোদি সরকার এবার পবিত্র বাবরি মসজিদকে ভেঙে রামমন্দির নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তর করেছে। ভারত সরকারের এমন সিদ্ধান্তে মুসলিম বিশ্ব হৃদয়ে আঘাত পেয়েছে এবং কলিজায় রক্তক্ষরণ হয়েছে। মসজিদের জায়গায় মন্দির নির্মাণ মুসলমানরা কখনও মেনে নেবে না। আজ নয় কাল বিশ্ব মুসলিম বাবরি মসজিদকে পুনরুদ্ধার করবে।

স্বাধীন ধর্মচর্চার কথা ভারতীয় সংবিধানে উল্লেখ থাকলেও উগ্রবাদী মোদি সরকার তা মানেনি বলে দাবি করে হেফাজত নেতারা বলেন, বাবরি মসজিদের স্থানে রামমন্দিরের ভিত্তিপ্রস্তর করে ভারতীয় মুসলমানদের প্রতি অবিচার এবং অনধিকার চর্চা করেছে মোদি সরকার। এক্ষেত্রে মোদি স্বয়ং ভারতীয় সংবিধানের বিরোধিতা করেছে। মসজিদ মুসলমানদের শ্রদ্ধা এবং আবেগের সর্বোচ্চ মর্যাদাপূর্ণ স্থান। বিশ্ব মুসলিম তুরস্কের আয়া সুফিয়া গ্রান্ড মসজিদের মতো যে কোনো সময় মুসলিম বিশ্বের পাঁচশ' বছরের ঐতিহ্য বাবরি মসজিদকে পুনরায় মসজিদে রূপান্তর করবে।

ভারতীয় উগ্রবাদী মোদি সরকারকে এ ঘটনার চরম জবাবদিহি করতে হবে এমনটা জানিয়ে তারা বলেন, পৃথিবীর যে কোনো প্রান্তে মসজিদ প্রতিষ্ঠিত হোক না কেন তা বিশ্বের সব মুসলমানদের। বাবরি মসজিদ ইস্যু স্রেফ ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয় নয়, বরং এর সঙ্গে বিশ্ব মুসলিমের ধর্মীয় অনুভূতির সম্পৃক্ততা বিদ্যমান। তাই ঐতিহাসিক বাবরি মসজিদকে পুনরুদ্ধারে ওআইসি, আরব লীগসহ বিশ্ব মুসলিম নেতাদের ঐক্যবদ্ধ হওয়া সময়ের অপরিহার্য দাবি।

এছাড়া বাবরি মসজিদের স্থানে রামমন্দির নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তর করে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা লাগানোর বীজ বপন করেছে। বিশ্বের যে কোনো জায়গায় সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার সব দায়ভার মোদি সরকারকে নিতে হবে। বিশ্বের সব মুসলিম সংগঠনের নেতারা ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করা সময়ের দাবি বলে মনে করেন হেফাজত নেতারা।

 

ঘটনাপ্রবাহ : বাবরি মসজিদ মামলার রায়