বোরহানউদ্দিনে মোটরসাইকেল চোর চক্রের হোতা গ্রেফতার
jugantor
বোরহানউদ্দিনে মোটরসাইকেল চোর চক্রের হোতা গ্রেফতার

  বোরহানউদ্দিন (ভোলা) প্রতিনিধি  

০৭ আগস্ট ২০২০, ১৭:৫৫:২৭  |  অনলাইন সংস্করণ

মোটরবাইক

ভোলার বোরহানউদ্দিনে ইব্রাহিম রনি নামে এক মোটরসাইকেল চোরের সংঘবদ্ধ চক্রের নেতাকে চোরাই মোটরসাইকেলসহ হাতেনাতে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ।

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার গঙ্গাপুর ইউনিয়নের জয়া গ্রামের মৌলভীরহাট এলাকায় তার শ্বশুরবাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়। ইব্রাহিম রনি বোরহানউদ্দিন পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের নাগর মাতব্বরের ছেলে।

পুলিশের উপ-পরিদর্শক ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মো. আজিজুর রহমান জানান, পৌর শহরের ওষুধ ব্যবসায়ী মোহসিন রাসেলের বাসার গ্রিল কেটে মোটরসাইকেল, এলইডি টিভি ও নগদ টাকা চুরি হওয়ায় বৃহস্পতিবার আসামির নাম উল্লেখ না করে একটি মামলা করেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই মামলায় অভিযান চালিয়ে রনিকে মোটরসাইকেলসহ তার শ্বশুরবাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়।

বাজারের আরেক ওষুধ ব্যবসায়ী আজম বাকলাই জানান, করোনা পরিস্থিতির আগের রাতে তার ঘর থেকে একই পদ্ধতিতে মোটরসাইকেল, মোবাইল ও নগদ টাকা চুরি হয়। ওই সময় নাম উল্লেখ না করে তিনিও একটি চুরির মামলা দায়ের করেন। পরে পুলিশ রনির বাসা থেকে মোবাইল উদ্ধার করলেও মোটরসাইকেলসহ সে উধাও হয়ে যায়।

বোরহানউদ্দিন থানার ওসি মোহাম্মদ মাজহারুল আমিন জানান, রনিকে আদালতে সোপর্দ করে পুরো চক্রকে ধরতে রিমান্ড চাওয়া হয়েছে।

বোরহানউদ্দিনে মোটরসাইকেল চোর চক্রের হোতা গ্রেফতার

 বোরহানউদ্দিন (ভোলা) প্রতিনিধি 
০৭ আগস্ট ২০২০, ০৫:৫৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
মোটরবাইক
গঙ্গাপুর ইউনিয়নের জয়া গ্রামের মৌলভীরহাট এলাকায় তার শ্বশুরবাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়। যুগান্তর

ভোলার বোরহানউদ্দিনে ইব্রাহিম রনি নামে এক মোটরসাইকেল চোরের সংঘবদ্ধ চক্রের নেতাকে চোরাই মোটরসাইকেলসহ হাতেনাতে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ।

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার গঙ্গাপুর ইউনিয়নের জয়া গ্রামের মৌলভীরহাট এলাকায় তার শ্বশুরবাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়। ইব্রাহিম রনি বোরহানউদ্দিন পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের নাগর মাতব্বরের ছেলে।

পুলিশের উপ-পরিদর্শক ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মো. আজিজুর রহমান জানান, পৌর শহরের ওষুধ ব্যবসায়ী মোহসিন রাসেলের বাসার গ্রিল কেটে মোটরসাইকেল, এলইডি টিভি ও নগদ টাকা চুরি হওয়ায় বৃহস্পতিবার আসামির নাম উল্লেখ না করে একটি মামলা করেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই মামলায় অভিযান চালিয়ে রনিকে মোটরসাইকেলসহ তার শ্বশুরবাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়।

বাজারের আরেক ওষুধ ব্যবসায়ী আজম বাকলাই জানান, করোনা পরিস্থিতির আগের রাতে তার ঘর থেকে একই পদ্ধতিতে মোটরসাইকেল, মোবাইল ও নগদ টাকা চুরি হয়। ওই সময় নাম উল্লেখ না করে তিনিও একটি চুরির মামলা দায়ের করেন। পরে পুলিশ রনির বাসা থেকে মোবাইল উদ্ধার করলেও মোটরসাইকেলসহ সে উধাও হয়ে যায়।

বোরহানউদ্দিন থানার ওসি মোহাম্মদ মাজহারুল আমিন জানান, রনিকে আদালতে সোপর্দ করে পুরো চক্রকে ধরতে রিমান্ড চাওয়া হয়েছে।
 

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন