যুগান্তরে সংবাদ প্রকাশ

বড়াইগ্রামে খালের বাঁধ ভেঙে দিয়েছে প্রশাসন

  বড়াইগ্রাম (নাটোর) প্রতিনিধি ০৭ আগস্ট ২০২০, ১৯:৩৭:৪৮ | অনলাইন সংস্করণ

বড়াইগ্রাম

যুগান্তরে সংবাদ প্রকাশের পর বড়াইগ্রামের গোপালপুর ইউনিয়নের আস্তিকপাড়া গ্রামে সরকারিভাবে কাটা একটি খালে অবৈধভাবে দেয়া বাঁধ অপসারণ হয়েছে।

শুক্রবার সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাইমেনা শারমিন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পুলিশ ও এলাকাবাসীর সহায়তায় বাঁধটি অপসারণ করেন। এ সময় গোপালপুর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম খান উপস্থিত ছিলেন। এতে আস্তিকপাড়া বিলের প্রায় ৫শ’ বিঘা জমির জলাবদ্ধতা দূর হল।

জানা যায়, আস্তিকপাড়া গ্রামের মৃত ছফির শেখের ছেলে ফরিদ শেখ ও নিজাম শেখ সরকারিভাবে খনন করা একটি খালে সম্প্রতি বাঁধ দিয়ে পানি আটকে দেয়। এতে বৃষ্টির পানি জমে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়ে প্রায় তিনশ’ বিঘা জমিতে রোপণ করা ধানের চারা ডুবে যাওয়াসহ আরও দুইশ’ বিঘা জমিতে চাষাবাদ করা যাচ্ছিল না। এ ব্যাপারে শুক্রবার যুগান্তরে ‘সরকারি খালে বাঁধ-বড়াইগ্রামে ৫শ’ বিঘা জমিতে জলাবদ্ধতা’ শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশ হয়।

এরপর বাঁধ অপসারণের মাধ্যমে বিলের জলাবদ্ধতা দূর করায় স্বস্তি প্রকাশ করেছেন এলাকার ভুক্তভোগী কৃষকরা। তারা উপজেলা প্রশাসন ও যুগান্তর কর্তৃপক্ষের প্রতি আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।

ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক আস্তিকপাড়া গ্রামের চা বিক্রেতা রফিজউদ্দিন বলেন, আমি প্রায় ১০ হাজার টাকা খরচ করে দেড় বিঘা জমিতে ধান লাগিয়ে ছিলাম। জলাবদ্ধতার কারণে সব ধান ডুবে নষ্ট হয়ে যাচ্ছিল। এখন পানি নিষ্কাশন শুরু হওয়ায় ধানের চারাগুলো বাঁচতে পারে বলে আশা করছি।

রাজাপুর বাজার এলাকার বয়োবৃদ্ধ কৃষক আবুল কালাম আযাদ জানান, আমাদের দুর্দশার কথা একমাত্র যুগান্তর পত্রিকা তুলে ধরেছে। এজন্য যুগান্তরের সাংবাদিকসহ কর্তৃপক্ষকে এবং বাঁধ অপসারণ করায় উপজেলা প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানাই।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত