বেঞ্চে বসা নিয়ে সংঘর্ষ, মদনে পুলিশসহ আহত ২৫
jugantor
বেঞ্চে বসা নিয়ে সংঘর্ষ, মদনে পুলিশসহ আহত ২৫

  মদন (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি  

০৭ আগস্ট ২০২০, ২২:৩৯:২৫  |  অনলাইন সংস্করণ

নেত্রকোনার মদনে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দু'পক্ষের সংঘর্ষে পুলিশ ও নারীসহ ২৫ জন আহত হয়েছেন।

শুক্রবার সকালে উপজেলার নায়েকপুর ইউনিয়নের পাছ আলমশ্রী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পুলিশ ৪ জনকে আটক করেছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

সংঘর্ষে গুরুতর আহত আবুল কাশেম, আবু বক্কর, আহাদ, মিলন, জজ মিয়া, ফয়সালের অবস্থা আশংকাজনক থাকায় ময়মনসিংহ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। আহত এসআই বিপ্লব, শাহ আলম, সিরাজুল, মোস্তাকিম, রতন, তারা মিয়া, জীবন মিয়া, লিটন, বাদল, মাইশারা আক্তার ও ফাতেমা আক্তারকে মদন হাসপাতালে ভর্তি করা হয় এবং অন্যরা পল্লী চিকিৎসকের মাধ্যমে চিকিৎসা নিয়েছেন।

উপজেলার নায়েকপুর ইউনিয়নের জনতাবাজারে চান মিয়ার চায়ের দোকানে বেঞ্চে বসা নিয়ে বাজার কমিটির সভাপতি আজিজুলের সঙ্গে চান মিয়ার কথাকাটাকাটি হয়। এরই জের ধরে শুক্রবার সকালে আলমশ্রী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের রাস্তায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রিপন গ্রুপের সঙ্গে মুক্তিযোদ্ধা নাজিমুদ্দিন গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এ সময় পাছ আলমশ্রী গ্রামের মহসিন ইয়ার ডালিম, শাহ আলম, মোবারক তালুকদার, মো. হেলিমকে পুলিশ আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার খালিয়াজুরী সার্কেল জামাল উদ্দিন জানান, বেঞ্চে বসা নিয়ে দু'পক্ষের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় পুলিশ সদস্য এসআই বিপ্লবসহ ২০-২৫ জন আহত হয়েছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ৪ জনকে আটক করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে। এ ব্যাপারে কোনোপক্ষই অভিযোগ করেনি।

বেঞ্চে বসা নিয়ে সংঘর্ষ, মদনে পুলিশসহ আহত ২৫

 মদন (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি 
০৭ আগস্ট ২০২০, ১০:৩৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নেত্রকোনার মদনে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দু'পক্ষের সংঘর্ষে পুলিশ ও নারীসহ ২৫ জন আহত হয়েছেন।

শুক্রবার সকালে উপজেলার নায়েকপুর ইউনিয়নের পাছ আলমশ্রী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পুলিশ ৪ জনকে আটক করেছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

সংঘর্ষে গুরুতর আহত আবুল কাশেম, আবু বক্কর, আহাদ, মিলন, জজ মিয়া, ফয়সালের অবস্থা আশংকাজনক থাকায় ময়মনসিংহ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। আহত এসআই বিপ্লব, শাহ আলম, সিরাজুল, মোস্তাকিম, রতন, তারা মিয়া, জীবন মিয়া, লিটন, বাদল, মাইশারা আক্তার ও ফাতেমা আক্তারকে মদন হাসপাতালে ভর্তি করা হয় এবং অন্যরা পল্লী চিকিৎসকের মাধ্যমে চিকিৎসা নিয়েছেন।

উপজেলার নায়েকপুর ইউনিয়নের জনতাবাজারে চান মিয়ার চায়ের দোকানে বেঞ্চে বসা নিয়ে বাজার কমিটির সভাপতি আজিজুলের সঙ্গে চান মিয়ার কথাকাটাকাটি হয়। এরই জের ধরে শুক্রবার সকালে আলমশ্রী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের রাস্তায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রিপন গ্রুপের সঙ্গে মুক্তিযোদ্ধা নাজিমুদ্দিন গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এ সময় পাছ আলমশ্রী গ্রামের মহসিন ইয়ার ডালিম, শাহ আলম, মোবারক তালুকদার, মো. হেলিমকে পুলিশ আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার খালিয়াজুরী সার্কেল জামাল উদ্দিন জানান, বেঞ্চে বসা নিয়ে দু'পক্ষের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় পুলিশ সদস্য এসআই বিপ্লবসহ ২০-২৫ জন আহত হয়েছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ৪ জনকে আটক করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে। এ ব্যাপারে কোনোপক্ষই অভিযোগ করেনি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন