যমুনায় নিখোঁজের তিন দিন পর যুবকের অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার
jugantor
যমুনায় নিখোঁজের তিন দিন পর যুবকের অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার

  গোপালপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি  

০৮ আগস্ট ২০২০, ১৯:৩৯:৫২  |  অনলাইন সংস্করণ

টাঙ্গাইল
টাঙ্গাইল

টাঙ্গাইলের গোপালপুরে যমুনা নদীতে পিকনিকের নৌকা ডুবে ৫ ব্যক্তি নিখোঁজ হওয়ার তিনদিন পর মারুফ হাসান (২৬) নামে এক যুবকের অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

শনিবার সকাল ১০টার দিকে সিরাগঞ্জের শাহজাদপুর থানা এলাকার যমুনাঘাট থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

সে টাঙ্গাইলের গোপালপুর উপজেলার নগদাশিমলা ইউনিয়নের বাইশকাইল পূর্বপাড়া গ্রামের সাত্তার মন্ডলের ছেলে।

শাহজাদপুর থানার ওসি আতাউর রহমান খবরটি নিশ্চিত করেছেন। গত বুধবার বিকাল ৫টার দিকে সিরাজগঞ্জের চায়না ঘাটের অদূরে পিকনিকের নৌকা ডুবে মারুফসহ ৫ জন নিখোঁজ হন।

নিখোঁজ বাকি ৪ জনের সন্ধান এখনও পাওয়া যায়নি। তারা হলেন- গোপালপুর উপজেলার নগদাশিমলা ইউনিয়নের বাইশকাইল পূর্বপাড়া গ্রামের আ. রশিদের ছেলে হাসিনুর রহমান (৩০), আবুল হোসেনের ছেলে মিজান (২৮), সোহরাব হোসেনের ছেলে শরিফ (১৭) ও কিতাব আলীর ছেলে শাহাদত (১৭)।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ঈদ উপলক্ষে ওই গ্রামের ২৭ জন নিজেদের মধ্যে চাঁদা তুলে বুধবার সকালে একটি ইঞ্জিনচালিত নৌকায় পিকনিকের উদ্দেশ্যে বঙ্গবন্ধু সেতুর পূর্বপাড়ে যায়।

সেখানে দুপুরের খাবার শেষে, গোপালপুরে ফেরার পথে বিকাল পাঁচটার দিকে সিরাজগঞ্জের চায়না ঘাটের অদূরে প্রবল স্রোতে, আরোহীসহ নৌকাটি ডুবে যায়। 

এতে পাঁচজন নিখোঁজ হয়। বাকিরা সাঁতার কেটে নিরাপদ স্থানে চলে যায়। উদ্ধারকর্মীরা নিখোঁজ ব্যক্তিদের সন্ধান অব্যাহত রাখে। নিখোঁজের তিনদিন পর শনিবার সকাল ১০টার দিকে, সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর যমুনার ঘাট এলাকায় স্থানীয়রা অর্ধগলিত একটি মরদেহ ভাসমান অবস্থায় দেখতে পায়। 

পরে তারা থানা পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ নদী থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। এসময় তারা লাশের প্যান্টের পকেটে বন্ধ থাকা একটি মোবাইল ফোন খুঁজে পায়। পরে সেই মোবাইলের সিম কার্ড খুলে অন্য একটি মোবাইলে লাগিয়ে স্বজনদের খবর দেয়া হয়।

স্বজনরা খবর পেয়ে শাহজাদপুর থানায় আসে। এ ঘটনায় এলাকায় বইছে শোকের মাতম।
 

যমুনায় নিখোঁজের তিন দিন পর যুবকের অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার

 গোপালপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি 
০৮ আগস্ট ২০২০, ০৭:৩৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
টাঙ্গাইল
টাঙ্গাইল

টাঙ্গাইলের গোপালপুরে যমুনা নদীতে পিকনিকের নৌকা ডুবে ৫ ব্যক্তি নিখোঁজ হওয়ার তিনদিন পর মারুফ হাসান (২৬) নামে এক যুবকের অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

শনিবার সকাল ১০টার দিকে সিরাগঞ্জের শাহজাদপুর থানা এলাকার যমুনাঘাট থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

সে টাঙ্গাইলের গোপালপুর উপজেলার নগদাশিমলা ইউনিয়নের বাইশকাইল পূর্বপাড়া গ্রামের সাত্তার মন্ডলের ছেলে।

শাহজাদপুর থানার ওসি আতাউর রহমান খবরটি নিশ্চিত করেছেন। গত বুধবার বিকাল ৫টার দিকে সিরাজগঞ্জের চায়না ঘাটের অদূরে পিকনিকের নৌকা ডুবে মারুফসহ ৫ জন নিখোঁজ হন।

নিখোঁজ বাকি ৪ জনের সন্ধান এখনও পাওয়া যায়নি। তারা হলেন- গোপালপুর উপজেলার নগদাশিমলা ইউনিয়নের বাইশকাইল পূর্বপাড়া গ্রামের আ. রশিদের ছেলে হাসিনুর রহমান (৩০), আবুল হোসেনের ছেলে মিজান (২৮), সোহরাব হোসেনের ছেলে শরিফ (১৭) ও কিতাব আলীর ছেলে শাহাদত (১৭)।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ঈদ উপলক্ষে ওই গ্রামের ২৭ জন নিজেদের মধ্যে চাঁদা তুলে বুধবার সকালে একটি ইঞ্জিনচালিত নৌকায় পিকনিকের উদ্দেশ্যে বঙ্গবন্ধু সেতুর পূর্বপাড়ে যায়।

সেখানে দুপুরের খাবার শেষে, গোপালপুরে ফেরার পথে বিকাল পাঁচটার দিকে সিরাজগঞ্জের চায়না ঘাটের অদূরে প্রবল স্রোতে, আরোহীসহ নৌকাটি ডুবে যায়।

এতে পাঁচজন নিখোঁজ হয়। বাকিরা সাঁতার কেটে নিরাপদ স্থানে চলে যায়। উদ্ধারকর্মীরা নিখোঁজ ব্যক্তিদের সন্ধান অব্যাহত রাখে। নিখোঁজের তিনদিন পর শনিবার সকাল ১০টার দিকে, সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর যমুনার ঘাট এলাকায় স্থানীয়রা অর্ধগলিত একটি মরদেহ ভাসমান অবস্থায় দেখতে পায়।

পরে তারা থানা পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ নদী থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। এসময় তারা লাশের প্যান্টের পকেটে বন্ধ থাকা একটি মোবাইল ফোন খুঁজে পায়। পরে সেই মোবাইলের সিম কার্ড খুলে অন্য একটি মোবাইলে লাগিয়ে স্বজনদের খবর দেয়া হয়।

স্বজনরা খবর পেয়ে শাহজাদপুর থানায় আসে। এ ঘটনায় এলাকায় বইছে শোকের মাতম।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন