সিলেটে ট্রাফিক পুলিশের সার্জেন্ট চয়ন নাইডুকে সাময়িক বহিস্কার
jugantor
বোমাসদৃশ্য বস্তু
সিলেটে ট্রাফিক পুলিশের সার্জেন্ট চয়ন নাইডুকে সাময়িক বহিস্কার

  সিলেট ব্যুরো  

০৯ আগস্ট ২০২০, ০০:৩৮:৫৬  |  অনলাইন সংস্করণ

সিলেট নগরীতে বোমাসদৃশ্য বস্তু শনাক্তের ঘটনায় সিলেট মহানগর ট্রাফিক পুলিশের সার্জেন্ট চয়ন নাইডুকে সাময়িক বহিস্কার করা হয়েছে।

সিলেট মেট্র্রোপলিটন পুলিশের একাধিক নির্ভরযোগ্যযোগ্য সুত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। তবে মহানগর পুলিশের উপ কমিশনার (ট্রাফিক) ফয়সল মাহমুদকে ফোন করলে তিনি ঘুমিয়ে পড়েছেন বলে পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়। অপরদিকে সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার জ্যোতির্ময় সরকারকে বার বার কল করলেও তিনি ফোন ধরেননি। 

সিলেট মহানগর পুলিশ সূত্র জানায়, তদন্ত শেষেই এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সূত্র আরো জানায়, যার মোটরসাইকেলে ‘গ্রাইন্ডিং মেশিন’ পাওয়া গেছে তিনি তার দায়িত্বরত এলাকা ছেড়ে অন্য এলাকায় অবস্থান করছিলেন। এছাড়া তার মোটরসাইকেলে এভাবে একটি বোমাসদৃশ বস্তু রেখে দেওয়া হলেও বিষয়টি তিনি বুঝতে পারলেন না, এসব কারণেই তাকে বহিষ্কার করা হয়। দায়িত্বে অবহেলা তদন্তে উঠে আসলে তিনি বিভাগীয় শাস্তিও ভোগ করবেন।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার রাতে নগরীর চৌহাট্টায় সিলেটে ট্রাফিক পুলিশের সার্জেন্ট চয়ন নাইডুর মোটরসাইকেলে বাঁধা বোমা-সদৃশ বস্তু ঘিরে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়। পরে প্রায় ২২ ঘণ্টা পর বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ১৭ পদাতিক ডিভিশনের বোমা নিষ্ক্রিয়করণ ও ধ্বংসকরণ দল নিশ্চিত করে এটি বোমা নয়। 
 

বোমাসদৃশ্য বস্তু

সিলেটে ট্রাফিক পুলিশের সার্জেন্ট চয়ন নাইডুকে সাময়িক বহিস্কার

 সিলেট ব্যুরো 
০৯ আগস্ট ২০২০, ১২:৩৮ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সিলেট নগরীতে বোমাসদৃশ্য বস্তু শনাক্তের ঘটনায় সিলেট মহানগর ট্রাফিক পুলিশের সার্জেন্ট চয়ন নাইডুকে সাময়িক বহিস্কার করা হয়েছে।

সিলেট মেট্র্রোপলিটন পুলিশের একাধিক নির্ভরযোগ্যযোগ্য সুত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। তবে মহানগর পুলিশের উপ কমিশনার (ট্রাফিক) ফয়সল মাহমুদকে ফোন করলে তিনি ঘুমিয়ে পড়েছেন বলে পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়। অপরদিকে সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার জ্যোতির্ময় সরকারকে বার বার কল করলেও তিনি ফোন ধরেননি।

সিলেট মহানগর পুলিশ সূত্র জানায়, তদন্ত শেষেই এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সূত্র আরো জানায়, যার মোটরসাইকেলে ‘গ্রাইন্ডিং মেশিন’ পাওয়া গেছে তিনি তার দায়িত্বরত এলাকা ছেড়ে অন্য এলাকায় অবস্থান করছিলেন। এছাড়া তার মোটরসাইকেলে এভাবে একটি বোমাসদৃশ বস্তু রেখে দেওয়া হলেও বিষয়টি তিনি বুঝতে পারলেন না, এসব কারণেই তাকে বহিষ্কার করা হয়। দায়িত্বে অবহেলা তদন্তে উঠে আসলে তিনি বিভাগীয় শাস্তিও ভোগ করবেন।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার রাতে নগরীর চৌহাট্টায় সিলেটে ট্রাফিক পুলিশের সার্জেন্ট চয়ন নাইডুর মোটরসাইকেলে বাঁধা বোমা-সদৃশ বস্তু ঘিরে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়। পরে প্রায় ২২ ঘণ্টা পর বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ১৭ পদাতিক ডিভিশনের বোমা নিষ্ক্রিয়করণ ও ধ্বংসকরণ দল নিশ্চিত করে এটি বোমা নয়।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন