ডাকাতির পর ছাত্রীকে তুলে নিয়ে নিপীড়ন, ৩ আসামি রিমান্ডে

  কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি ০৯ আগস্ট ২০২০, ১৫:০৭:৪৭ | অনলাইন সংস্করণ

ছবি: যুগান্তর

কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলায় ডাকাতির পর বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে নিপীড়নের ঘটনার তিন আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

রোববার আসামিদের ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়েছে।

এর আগে শনিবার তাদের বিভিন্ন এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন– রাজারহাট উপজেলার ছিনাই গ্রামের উমর আলীর ছেলে আব্দুস সালাম (২৫), লালমনিরহাট জেলার মহেন্দ্রনগর এলাকার করিমের ছেলে আব্দুল মালেক (২৭) ও রাজারহাটের পীর মামুদ গ্রামের মৃত আব্দুল গফুরের ছেলে আবুল কালাম (৩২)।

কুড়িগ্রামের পুলিশ সুপার মহিবুল ইসলাম খান জানিয়েছেন, তিন আসামি গ্রেফতার করার পর প্রাথমিক তদন্তে ডাকাতির উদ্দেশ্যে গিয়ে ধর্ষণের ঘটনাটি ঘটেছে। রোববার আসামিদের ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়েছে।

গত ২৭ জুলাই গভীর রাতে রাজারহাট উপজেলার ছিনাই ইউনিয়নের নবম শ্রেণির ছাত্রীকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে ছুরিকাঘাত করে আহত করে এবং বাড়ির পাশে ধর্ষণ করে একদল দুর্বৃত্ত।

এ ছাড়া দুর্বৃত্তদের হামলায় ধর্ষিত ছাত্রীর বাবা ও মা গুরুতর আহত হন। এ সময় দুর্বৃত্তরা বাড়িতে থাকা স্বর্ণালঙ্কার ও এক লাখ ৬০ হাজার টাকা লুট করে নিয়ে যায়। আহত ছাত্রী ও তার বাবা-মা এখনও কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

এ ঘটনায় পর দিন অজ্ঞাত পরিচয়ে তিনজনকে আসামি করে রাজারহাট থানায় মামলা করা হয়। আসামি গ্রেফতারের দাবিতে এলাকায় দুদফা মানববন্ধন ও সড়ক অবরোধ করেন এলাকাবাসী।

এ ব্যাপারে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান জানান, ধর্ষণের ঘটনার পর পুলিশ ব্যাপক অনুসন্ধান করে মূল অভিযুক্ত তিনজনকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। ডাকাতির উদ্দেশ্যে গিয়ে তারা ধর্ষণের ঘটনা ঘটিয়েছে। গ্রেফতারকৃত আসামিদের রিমান্ডে এনে আরও জিজ্ঞাসাবাদ করে হবে। এর পরই প্রকৃত তথ্য জানা যাবে।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত