চলন্ত মাইক্রোবাসে কিশোরীকে নিপীড়ন, চালক গ্রেফতার
jugantor
চলন্ত মাইক্রোবাসে কিশোরীকে নিপীড়ন, চালক গ্রেফতার

  ভাঙ্গা (ফরিদপুর) প্রতিনিধি  

১০ আগস্ট ২০২০, ১১:৫২:৫৯  |  অনলাইন সংস্করণ

চলন্ত মাইক্রোবাসে কিশোরীকে নিপীড়ন, চালক গ্রেফতার
ফাইল ছবি

ফরিদপুরের ভাঙ্গায় চলন্ত মাইক্রোবাসে পালাক্রমে এক কিশোরীকে (১৬) নিপীড়নের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় তায়েব মাতুব্বর (২১) নামে এক মাইক্রোচালককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

রোববার সন্ধ্যায় বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

এর আগে রোববার দুপুরে ওই কিশোরীর বাবা শাহাদাৎ শিকদার বাদী হয়ে ভাঙ্গা থানায় একটি ধর্ষণ মামলা করেছেন।

গ্রেফতার তায়েব মাতুব্বর একই গ্রামের বাসিন্দা রবি মাতুব্বরের ছেলে।  অভিযুক্ত মোহন বিশ্বাসকে (২২) গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। তিনি পৌরসভার হোগলাকান্দী গ্রামের শাহা বিশ্বাসের ছেলে। তারা দুজনই মাইক্রোচালক।

ভিকটিম ওই কিশোরী বলে, শনিবার বিকালে আমি ও আমার বান্ধবীরা ঘুরতে বের হই। সন্ধ্যায় হোগলাকান্দী গ্রামের বাড়ি ফেরার পথে একই গ্রামের মোহন ও তার বন্ধু তায়েব রাস্তার ওপর থেকে আমাকে জোর করে একটি মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে যায়।

এর পর খুলনা-মাওয়া মহাসড়কের মুনসুরাবাদের দিকে রওনা হয়। পরে আমাকে চলন্ত গাড়িতে পালাক্রমে একাধিকবার দুই বন্ধু মিলে ধর্ষণ করে।

ভাঙ্গা থানার ওসি মো. শফিকুর রহমান জানান, ধর্ষণের শিকার ওই কিশোরী রোববার দুপুরে ভাঙ্গা থানায় একটি অভিযোগ দেয়। তার গ্রামের মোহন ও তায়েব মিলে জোর করে মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে মেয়েটিকে ধর্ষণ করে।

এর পর গভীর রাতে খাড়াকান্দী মোবাইল টাওয়ারের নিচে ওই কিশোরীকে ফেলে দুই বন্ধু পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা রুজু করা হয়েছে। ওই কিশোরীর চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

চলন্ত মাইক্রোবাসে কিশোরীকে নিপীড়ন, চালক গ্রেফতার

 ভাঙ্গা (ফরিদপুর) প্রতিনিধি 
১০ আগস্ট ২০২০, ১১:৫২ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
চলন্ত মাইক্রোবাসে কিশোরীকে নিপীড়ন, চালক গ্রেফতার
ফাইল ছবি

ফরিদপুরের ভাঙ্গায় চলন্ত মাইক্রোবাসে পালাক্রমে এক কিশোরীকে (১৬) নিপীড়নের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় তায়েব মাতুব্বর (২১) নামে এক মাইক্রোচালককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

রোববার সন্ধ্যায় বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

এর আগে রোববার দুপুরে ওই কিশোরীর বাবা শাহাদাৎ শিকদার বাদী হয়ে ভাঙ্গা থানায় একটি ধর্ষণ মামলা করেছেন।

গ্রেফতার তায়েব মাতুব্বর একই গ্রামের বাসিন্দা রবি মাতুব্বরের ছেলে। অভিযুক্ত মোহন বিশ্বাসকে (২২) গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। তিনি পৌরসভার হোগলাকান্দী গ্রামের শাহা বিশ্বাসের ছেলে। তারা দুজনই মাইক্রোচালক।

ভিকটিম ওই কিশোরী বলে, শনিবার বিকালে আমি ও আমার বান্ধবীরা ঘুরতে বের হই। সন্ধ্যায় হোগলাকান্দী গ্রামের বাড়ি ফেরার পথে একই গ্রামের মোহন ও তার বন্ধু তায়েব রাস্তার ওপর থেকে আমাকে জোর করে একটি মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে যায়।

এর পর খুলনা-মাওয়া মহাসড়কের মুনসুরাবাদের দিকে রওনা হয়। পরে আমাকে চলন্ত গাড়িতে পালাক্রমে একাধিকবার দুই বন্ধু মিলে ধর্ষণ করে।

ভাঙ্গা থানার ওসি মো. শফিকুর রহমান জানান, ধর্ষণের শিকার ওই কিশোরী রোববার দুপুরে ভাঙ্গা থানায় একটি অভিযোগ দেয়। তার গ্রামের মোহন ও তায়েব মিলে জোর করে মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে মেয়েটিকে ধর্ষণ করে।

এর পর গভীর রাতে খাড়াকান্দী মোবাইল টাওয়ারের নিচে ওই কিশোরীকে ফেলে দুই বন্ধু পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা রুজু করা হয়েছে। ওই কিশোরীর চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন