একসঙ্গে ৫ সন্তানের জন্ম দিলেন গৃহবধূ
jugantor
একসঙ্গে ৫ সন্তানের জন্ম দিলেন গৃহবধূ

  লাকসাম (কুমিল্লা) প্রতিনিধি  

১২ আগস্ট ২০২০, ১৫:৫৬:৫৭  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লার লাকসামে গর্ভধারণের সাত মাসের মাথায় শারমিন আক্তার (২৫) নামে এক গৃহবধূ একসঙ্গে পাঁচ সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। এর মধ্যে তিনজন ছেলে ও দুজন মেয়ে। নির্দিষ্ট সময়ের আগে প্রসব হওয়ায় বাচ্চাগুলোর ওজন কম হয়েছে। মা সুস্থ থাকলেও বাচ্চাগুলো ঝুঁকিতে রয়েছে।

বুধবার সকাল পৌনে ১০টার দিকে লাকসাম বেসরকারি একটি (জেনারেল হসপিটাল) হাসপাতালে ওই পাঁচ সন্তানের জন্ম দেন প্রসূতি শারমিন। 

তিনি সদর উপজেলার উত্তরদা ইউনিয়নের পোলইয়া গ্রামের খন্দকারবাড়ির হাফেজ মিজানুর রহমানের স্ত্রী। 

হাসপাতাল সূত্র জানায়, মাত্র সাত মাসের মাথায় শারমিন বাচ্চা প্রসব করেছেন। একসঙ্গে পাঁচ বাচ্চার প্রসবে অনেক ঝুঁকি ছিল। তবে মা সুস্থ থাকলেও ওজন কম হওয়ায় ঝুঁকিতে রয়েছে বাচ্চাগুলো।

জেনারেল হাসপাতালের ম্যানেজার এমদাদুল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, সকাল ৯টা ৩ মিনিটের দিকে জরুরি অবস্থায় শারমিনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ২৫ মিনিট পরই তিনি পাঁচ সন্তানের জন্ম দেন। 

হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক লতিফা আহমেদ লতা বলেন, বাচ্চাদের সুস্থ করে তোলার জন্য চিকিৎসা চলছে। তবে ঝুঁকি থেকেই যাচ্ছে। তাদের ওজন কম হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদের দ্রুত কুমিল্লা মেডিকেল কলেজের শিশু বিভাগে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।
 

একসঙ্গে ৫ সন্তানের জন্ম দিলেন গৃহবধূ

 লাকসাম (কুমিল্লা) প্রতিনিধি 
১২ আগস্ট ২০২০, ০৩:৫৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লার লাকসামে গর্ভধারণের সাত মাসের মাথায় শারমিন আক্তার (২৫) নামে এক গৃহবধূ একসঙ্গে পাঁচ সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। এর মধ্যে তিনজন ছেলে ও দুজন মেয়ে। নির্দিষ্ট সময়ের আগে প্রসব হওয়ায় বাচ্চাগুলোর ওজন কম হয়েছে। মা সুস্থ থাকলেও বাচ্চাগুলো ঝুঁকিতে রয়েছে।

বুধবার সকাল পৌনে ১০টার দিকে লাকসাম বেসরকারি একটি (জেনারেল হসপিটাল) হাসপাতালে ওই পাঁচ সন্তানের জন্ম দেন প্রসূতি শারমিন।

তিনি সদর উপজেলার উত্তরদা ইউনিয়নের পোলইয়া গ্রামের খন্দকারবাড়ির হাফেজ মিজানুর রহমানের স্ত্রী।

হাসপাতাল সূত্র জানায়, মাত্র সাত মাসের মাথায় শারমিন বাচ্চা প্রসব করেছেন। একসঙ্গে পাঁচ বাচ্চার প্রসবে অনেক ঝুঁকি ছিল। তবে মা সুস্থ থাকলেও ওজন কম হওয়ায় ঝুঁকিতে রয়েছে বাচ্চাগুলো।

জেনারেল হাসপাতালের ম্যানেজার এমদাদুল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, সকাল ৯টা ৩ মিনিটের দিকে জরুরি অবস্থায় শারমিনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ২৫ মিনিট পরই তিনি পাঁচ সন্তানের জন্ম দেন।

হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক লতিফা আহমেদ লতা বলেন, বাচ্চাদের সুস্থ করে তোলার জন্য চিকিৎসা চলছে। তবে ঝুঁকি থেকেই যাচ্ছে। তাদের ওজন কম হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদের দ্রুত কুমিল্লা মেডিকেল কলেজের শিশু বিভাগে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

 
আরও খবর
 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন