ধামরাইয়ে নিখোঁজের একদিন পর স্কুলছাত্রীর লাশ উদ্ধার, নৌকাডুবিতে দুই কিশোরীর মৃত্যু
jugantor
ধামরাইয়ে নিখোঁজের একদিন পর স্কুলছাত্রীর লাশ উদ্ধার, নৌকাডুবিতে দুই কিশোরীর মৃত্যু

  ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি  

১৩ আগস্ট ২০২০, ২০:৪৫:০৪  |  অনলাইন সংস্করণ

ধামরাই

ঢাকার ধামরাইয়ে নিখোঁজের একদিন পর বংশী নদীর মোহনা থেকে মনিরা আক্তার (১৪) নামে এক স্কুলছাত্রীর ভাসমান মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। অপরদিকে মারুমডালি বিলে নৌকাডুবিতে আরিফা আক্তার ও শরিফা আক্তার নামে দুই কিশোরী মারা গেছে।

খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার দুপুরে ধামরাই থানা পুলিশ ওই স্কুলছাত্রীর এবং এলাকাবাসী ওই নৌকাডুবিতে মারা যাওয়া দুই কিশোরীর মরদেহ উদ্ধার করেছেন।

উপজেলার সোমাগ ইউনিয়নের দেপাশাই এলাকা থেকে নিহত ওই স্কুলছাত্রীর মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে ধামরাই থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

ভুক্তভোগী পরিবার ও এলাকাবাসী জানান, নিহত মনিরা আক্তার রাজধানীর হাজারীবাগে পিতা-মাতার সঙ্গে বসবাস করত। দুই দিন আগে দেপাশাই এলাকায় তার দাদার বাড়িতে আসে সে। বুধবার বিকালে তাকে বাড়িতে পাওয়া না গেলে পরিবারের লোকজন সম্ভাব্য সব স্থানে খোঁজাখুঁজি করেন। তার কোনো সন্ধান না পেয়ে চিন্তামগ্ন হয়ে পড়েন পরিবারের সদস্যরা।

বৃহস্পতিবার (১৩ আগস্ট) দুপুরে উপজেলার সোমভাগ ইউনিয়নের দেপাশাই এলাকায় বংশী নদীর মোহনায় তার মরদেহ ভাসতে দেখে এলাকাবাসী থানা পুলিশে খবর দেন। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে বংশী নদীর মোহনা থেকে ওই স্কুলছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। মরদেহের সুরতহাল প্রতিবেদন শেষে ময়নাতদন্তের জন্য রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেধামরাই থানার অফিসার ইনচার্জ দীপক চন্দ্র সাহা জানান, খবর পেয়ে পুলিশ বংশী নদী থেকে ভাসমান ওই স্কুলছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করেছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনের পর ওই স্কুলছাত্রীর মৃত্যু সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যাবে। এ ব্যাপারে থানায় প্রাথমিকভাবে একটি ইউডি মামলা দায়ের হয়েছে।

ধামরাইয়ে নিখোঁজের একদিন পর স্কুলছাত্রীর লাশ উদ্ধার, নৌকাডুবিতে দুই কিশোরীর মৃত্যু

 ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি 
১৩ আগস্ট ২০২০, ০৮:৪৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ধামরাই
ঢাকা

ঢাকার ধামরাইয়ে নিখোঁজের একদিন পর বংশী নদীর মোহনা থেকে মনিরা আক্তার (১৪) নামে এক স্কুলছাত্রীর ভাসমান মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। অপরদিকে মারুমডালি বিলে নৌকাডুবিতে আরিফা আক্তার ও শরিফা আক্তার নামে দুই কিশোরী মারা গেছে।

খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার দুপুরে ধামরাই থানা পুলিশ ওই স্কুলছাত্রীর এবং এলাকাবাসী ওই নৌকাডুবিতে মারা যাওয়া দুই কিশোরীর মরদেহ উদ্ধার করেছেন। 

উপজেলার সোমাগ ইউনিয়নের দেপাশাই এলাকা থেকে নিহত ওই স্কুলছাত্রীর মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে ধামরাই থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

ভুক্তভোগী পরিবার ও এলাকাবাসী জানান, নিহত মনিরা আক্তার রাজধানীর হাজারীবাগে পিতা-মাতার সঙ্গে বসবাস করত। দুই দিন আগে দেপাশাই এলাকায় তার দাদার বাড়িতে আসে সে। বুধবার বিকালে তাকে বাড়িতে পাওয়া না গেলে পরিবারের লোকজন সম্ভাব্য সব স্থানে খোঁজাখুঁজি করেন। তার কোনো সন্ধান না পেয়ে চিন্তামগ্ন হয়ে পড়েন পরিবারের সদস্যরা।

বৃহস্পতিবার (১৩ আগস্ট) দুপুরে উপজেলার সোমভাগ ইউনিয়নের দেপাশাই এলাকায় বংশী নদীর মোহনায় তার মরদেহ ভাসতে দেখে এলাকাবাসী থানা পুলিশে খবর দেন। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে বংশী নদীর মোহনা থেকে ওই স্কুলছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। মরদেহের সুরতহাল প্রতিবেদন শেষে ময়নাতদন্তের জন্য রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ধামরাই থানার অফিসার ইনচার্জ দীপক চন্দ্র সাহা জানান, খবর পেয়ে পুলিশ বংশী নদী থেকে ভাসমান ওই স্কুলছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করেছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনের পর ওই স্কুলছাত্রীর মৃত্যু সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যাবে। এ ব্যাপারে থানায় প্রাথমিকভাবে একটি ইউডি মামলা দায়ের হয়েছে।
 

 

ঘটনাপ্রবাহ : পানিতে ডুবে মৃত্যু

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন