জনগণকে হয়রানি করলে কঠোর ব্যবস্থা: রাজশাহীর এসপি
jugantor
জনগণকে হয়রানি করলে কঠোর ব্যবস্থা: রাজশাহীর এসপি

  রাজশাহী ব্যুরো  

১৩ আগস্ট ২০২০, ২২:২১:২০  |  অনলাইন সংস্করণ

আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত সব কাজে সাধারণ জনগণসহ কোনো পক্ষই যাতে হয়রানির শিকার না হন-এ বিষয়ে সতর্ক থাকার জন্য সংশ্লিষ্ট সব থানার ওসিদের নির্দেশ দিয়েছেন রাজশাহীর পুলিশ সুপার (এসপি) মো. শহীদুল্লাহ। 

বৃহস্পতিবার আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত বিশেষ সভায় এসপি এমন নির্দেশ দেন। 

এসপি বলেন, হয়রানির মাধ্যমে কারও কাছ থেকে যেন টাকা-পয়সা আদায় করা না হয় সে ব্যাপারে ওসিদের কঠোরভাবে নজরদারি করতে হবে। অধীনস্তরা কেউ যাতে এমন কিছু করতে না পারে সে ব্যাপারেও ওসিদের সতর্ক থাকতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। কারও বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

রাজশাহী জেলা পুলিশের সম্মেলন কক্ষে বিশেষ আইনশৃঙ্খলা সভায় জেলার সব অতিরিক্ত সুপার, সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) জেলা গোয়েন্দা ও বিশেষ শাখাসহ ১০ থানার ওসিরা উপস্থিত ছিলেন। সভায় চলমান করোনাভাইরাসে পুলিশি তৎপরতা নিয়ে আলোচনা হয়। 

আগামী ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে রাজশাহীর আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি সম্পর্কে অধীনস্তদের বিশেষ দায়িত্ব পালনের বিষয়ে দিকনির্দেশনা দেন পুলিশ সুপার। এছাড়া রাজশাহীর বিভিন্ন এলাকায় মাদক ব্যবসা বন্ধে পুলিশকে কঠোর অবস্থানে থাকারও নির্দেশ দেন তিনি। 

জনগণের প্রতি দেয় সেবা যাতে আইনানুগ ও সঠিকভাবে প্রতিপালিত হয় সে ব্যাপারেও সবাইকে সজাগ থাকার নির্দেশ দেন তিনি। সভায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইফতেখায়ের আলমসহ অন্য কর্মকর্তারা মতামত ও পরামর্শ তুলে ধরেন। 
 

জনগণকে হয়রানি করলে কঠোর ব্যবস্থা: রাজশাহীর এসপি

 রাজশাহী ব্যুরো 
১৩ আগস্ট ২০২০, ১০:২১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত সব কাজে সাধারণ জনগণসহ কোনো পক্ষই যাতে হয়রানির শিকার না হন-এ বিষয়ে সতর্ক থাকার জন্য সংশ্লিষ্ট সব থানার ওসিদের নির্দেশ দিয়েছেন রাজশাহীর পুলিশ সুপার (এসপি) মো. শহীদুল্লাহ।

বৃহস্পতিবার আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত বিশেষ সভায় এসপি এমন নির্দেশ দেন।

এসপি বলেন, হয়রানির মাধ্যমে কারও কাছ থেকে যেন টাকা-পয়সা আদায় করা না হয় সে ব্যাপারে ওসিদের কঠোরভাবে নজরদারি করতে হবে। অধীনস্তরা কেউ যাতে এমন কিছু করতে না পারে সে ব্যাপারেও ওসিদের সতর্ক থাকতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। কারও বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

রাজশাহী জেলা পুলিশের সম্মেলন কক্ষে বিশেষ আইনশৃঙ্খলা সভায় জেলার সব অতিরিক্ত সুপার, সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) জেলা গোয়েন্দা ও বিশেষ শাখাসহ ১০ থানার ওসিরা উপস্থিত ছিলেন। সভায় চলমান করোনাভাইরাসে পুলিশি তৎপরতা নিয়ে আলোচনা হয়।

আগামী ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে রাজশাহীর আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি সম্পর্কে অধীনস্তদের বিশেষ দায়িত্ব পালনের বিষয়ে দিকনির্দেশনা দেন পুলিশ সুপার। এছাড়া রাজশাহীর বিভিন্ন এলাকায় মাদক ব্যবসা বন্ধে পুলিশকে কঠোর অবস্থানে থাকারও নির্দেশ দেন তিনি।

জনগণের প্রতি দেয় সেবা যাতে আইনানুগ ও সঠিকভাবে প্রতিপালিত হয় সে ব্যাপারেও সবাইকে সজাগ থাকার নির্দেশ দেন তিনি। সভায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইফতেখায়ের আলমসহ অন্য কর্মকর্তারা মতামত ও পরামর্শ তুলে ধরেন।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন