কেরানীগঞ্জে অবৈধ ৩টি সিএনজি স্টেশন বন্ধ, দেড় লাখ টাকা জরিমানা
jugantor
কেরানীগঞ্জে অবৈধ ৩টি সিএনজি স্টেশন বন্ধ, দেড় লাখ টাকা জরিমানা

  কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি  

১৩ আগস্ট ২০২০, ২৩:১৭:০৯  |  অনলাইন সংস্করণ

অবৈধভাবে গড়ে উঠা কেরানীগঞ্জের ৩টি সিএনজি গ্যাস স্টেশন বন্ধ করে দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। এছাড়াও ৩টি স্টেশনকে দেড় লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সানজিদা পারভীন তিন্নি পর্যায়ক্রমে ৩টি স্টেশনে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার মাধ্যমে জরিমানা ও বন্ধের আদেশ দেন।

বুধবার যুগান্তর অনলাইনে কাভার্ডভ্যানে ঝুঁকিপূর্ণ গ্যাস বাণিজ্য’ শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশ হয়। সংবাদটি উপজেলা প্রশাসনের নজরে এলে অবৈধভাবে গড়ে উঠা ভ্রাম্যমাণ সিএনজি স্টেশনের বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার অভিযান চালানো হয়।

কেরানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অমিত দেবনাথ জানান, যুগান্তর অনলাইনে নিউজটি আমরা দেখেছি। নিউজে কেরানীগঞ্জে অবৈধ যেসব সিএনজি স্টেশনের কথা তুলে ধরা হয়েছে বৃহস্পতিবারের অভিযানে তার সত্যতা পাওয়া গেছে।

তিনি আরও জানান, বৃহস্পতিবার বন্ধ করে দেয়া স্টেশনগুলো ৬ মাস আগেও জরিমানাসহ বন্ধ করে দেয়া হয়েছিল। কিন্তু তারা আবারও সেগুলো চালু করে অবৈধভাবে গ্যাস বিক্রি করছিল।

সরেজমিন দেখা গেছে, তারানগর ইউনিয়নের ভাওয়াল সড়ক সংলগ্ন পাশাপাশি দুটি ও রুহিতপুর লাকিরচর এলাকায় সড়কের পাশে একটি ভ্রাম্যমাণ স্টেশন গড়ে উঠেছে। এসব স্টেশনে কাভার্ডভ্যানের ভেতর বিশেষভাবে স্থাপিত সিলিন্ডার থেকে সরাসরি পাইপের মাধ্যমে ঝুঁকি নিয়ে যানবাহনের সরবরাহ করছিল। এছাড়াও এসব স্টেশনে বেশি দামে গ্যাস বিক্রি করা হতো। দুর্ঘটনার আশঙ্কায় স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি ছিল অনুমোদনহীন এসব ভ্রাম্যমাণ সিএনজি স্টেশন বন্ধ করার।

সহকারী কমিশনার সানজিদা পারভীন তিন্নি বলেন, অভিযানের সময় তারা কোনো প্রকার অনুমোদন দেখাতে পারেনি। এছাড়া নিরাপত্তা ঝুঁকিসহ অতিরিক্ত দামে গ্যাস বিক্রির প্রমাণ পাওয়া গেছে। এতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের কাছে প্রতীয়মান হয়েছে যে, তারা অবৈধভাবে এসব ভ্রাম্যমাণ সিএনজি স্টেশন গড়ে তুলেছেন। এজন্য ৩টি স্টেশনকে সমান হারে দেড় লাখ টাকা জরিমানা করে তা আদায় করা হয়েছে। এছাড়াও অবৈধ এসব স্টেশন বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি মালিকদের বলা হয়েছে- স্টেশন পরিচালনার জন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমোদন নিয়ে উপজেলা প্রশাসনকে অবহিত করে তারপর এগুলো চালু করতে।

কেরানীগঞ্জে অবৈধ ৩টি সিএনজি স্টেশন বন্ধ, দেড় লাখ টাকা জরিমানা

 কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি 
১৩ আগস্ট ২০২০, ১১:১৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

অবৈধভাবে গড়ে উঠা কেরানীগঞ্জের ৩টি সিএনজি গ্যাস স্টেশন বন্ধ করে দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। এছাড়াও ৩টি স্টেশনকে দেড় লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সানজিদা পারভীন তিন্নি পর্যায়ক্রমে ৩টি স্টেশনে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার মাধ্যমে জরিমানা ও বন্ধের আদেশ দেন।

বুধবার যুগান্তর অনলাইনে কাভার্ডভ্যানে ঝুঁকিপূর্ণ গ্যাস বাণিজ্য’ শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশ হয়। সংবাদটি উপজেলা প্রশাসনের নজরে এলে অবৈধভাবে গড়ে উঠা ভ্রাম্যমাণ সিএনজি স্টেশনের বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার অভিযান চালানো হয়।
 
কেরানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অমিত দেবনাথ জানান, যুগান্তর অনলাইনে নিউজটি আমরা দেখেছি। নিউজে কেরানীগঞ্জে অবৈধ যেসব সিএনজি স্টেশনের কথা তুলে ধরা হয়েছে বৃহস্পতিবারের অভিযানে তার সত্যতা পাওয়া গেছে।

তিনি আরও জানান, বৃহস্পতিবার বন্ধ করে দেয়া স্টেশনগুলো ৬ মাস আগেও জরিমানাসহ বন্ধ করে দেয়া হয়েছিল। কিন্তু তারা আবারও সেগুলো চালু করে অবৈধভাবে গ্যাস বিক্রি করছিল।

সরেজমিন দেখা গেছে, তারানগর ইউনিয়নের ভাওয়াল সড়ক সংলগ্ন পাশাপাশি দুটি ও রুহিতপুর লাকিরচর এলাকায় সড়কের পাশে একটি ভ্রাম্যমাণ স্টেশন গড়ে উঠেছে। এসব স্টেশনে কাভার্ডভ্যানের ভেতর বিশেষভাবে স্থাপিত সিলিন্ডার থেকে সরাসরি পাইপের মাধ্যমে ঝুঁকি নিয়ে যানবাহনের সরবরাহ করছিল। এছাড়াও এসব স্টেশনে বেশি দামে গ্যাস বিক্রি করা হতো। দুর্ঘটনার আশঙ্কায় স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি ছিল অনুমোদনহীন এসব ভ্রাম্যমাণ সিএনজি স্টেশন বন্ধ করার।
  
সহকারী কমিশনার সানজিদা পারভীন তিন্নি বলেন, অভিযানের সময় তারা কোনো প্রকার অনুমোদন দেখাতে পারেনি। এছাড়া নিরাপত্তা ঝুঁকিসহ অতিরিক্ত দামে গ্যাস বিক্রির প্রমাণ পাওয়া গেছে। এতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের কাছে প্রতীয়মান হয়েছে যে, তারা অবৈধভাবে এসব ভ্রাম্যমাণ সিএনজি স্টেশন গড়ে তুলেছেন। এজন্য ৩টি স্টেশনকে সমান হারে দেড় লাখ টাকা জরিমানা করে তা আদায় করা হয়েছে। এছাড়াও অবৈধ এসব স্টেশন বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি মালিকদের বলা হয়েছে- স্টেশন পরিচালনার জন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমোদন নিয়ে উপজেলা প্রশাসনকে অবহিত করে তারপর এগুলো চালু করতে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন