নিজ ঘরে বাস হেলপারের ঝুলন্ত লাশ
jugantor
নিজ ঘরে বাস হেলপারের ঝুলন্ত লাশ

  ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি    

২৬ আগস্ট ২০২০, ১৭:১৭:৫৮  |  অনলাইন সংস্করণ

ময়মনসিংহের ভালুকায় জনি মিয়া (১৯) নামে এক বাস হেলপারের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার রাতে ভালুকা পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের জনৈক বুলবুলের বাসা থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত জনি মিয়া গাজীপুরের কাপাসিয়া এলাকার রফিকুল ইসলামের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, জনি মিয়া মাত্র কয়েক দিন আগে বিয়ে করে স্ত্রীকে নিয়ে ওই ভাড়া বাসায় উঠেন। তবে স্ত্রীর সঙ্গে তার বনিবনা হচ্ছিল না। এদিকে ঘটনার রাত ৮টার দিকে কাজ সেরে বাসায় ফেরেন জনি। ওই সময় তার স্ত্রী বাসায় ছিলেন না।

পরে বাসার অন্য কক্ষের লোকজন এসে তাকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান।
খবর পেয়ে ভালুকা মডেল থানা পুলিশ রাতেই লাশটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। তবে নিহতের বাবার দাবি, তার ছেলেকে হত্যা করে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে।

ভালুকা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ মাইন উদ্দিন জানান, ওই ঘটনায় অপমৃত্যু মামলা নিয়ে ময়নাতদন্তের জন্য লাশটি ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

নিজ ঘরে বাস হেলপারের ঝুলন্ত লাশ

 ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   
২৬ আগস্ট ২০২০, ০৫:১৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ময়মনসিংহের ভালুকায় জনি মিয়া (১৯) নামে এক বাস হেলপারের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার  রাতে ভালুকা পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের জনৈক বুলবুলের বাসা থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। 

নিহত জনি মিয়া গাজীপুরের কাপাসিয়া এলাকার রফিকুল ইসলামের ছেলে। 

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, জনি মিয়া মাত্র কয়েক দিন আগে বিয়ে করে স্ত্রীকে নিয়ে ওই ভাড়া বাসায় উঠেন। তবে স্ত্রীর সঙ্গে তার বনিবনা হচ্ছিল না। এদিকে ঘটনার রাত ৮টার দিকে কাজ সেরে বাসায় ফেরেন জনি। ওই সময় তার স্ত্রী বাসায় ছিলেন না। 

পরে বাসার অন্য কক্ষের লোকজন এসে তাকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান।
খবর পেয়ে ভালুকা মডেল থানা পুলিশ রাতেই লাশটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। তবে নিহতের বাবার দাবি, তার ছেলেকে হত্যা করে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। 

ভালুকা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ মাইন উদ্দিন জানান, ওই ঘটনায় অপমৃত্যু মামলা নিয়ে ময়নাতদন্তের জন্য লাশটি ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।
 

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন