চাচার হাত কেটে পুকুরে ফেলে দিলেন ভাতিজা!
jugantor
চাচার হাত কেটে পুকুরে ফেলে দিলেন ভাতিজা!

  চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি   

২৮ আগস্ট ২০২০, ১৫:২৪:২৯  |  অনলাইন সংস্করণ

আলী হোসেন মুন্সি

কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলায় আলী হোসেন মুন্সি (৫০) নামে এক আওয়ামী লীগ নেতার হাতের কব্জি কেটে নিয়ে পুকুরে ফেলে দিলেন তার ভাতিজা।

এ সময় তাকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে আহত করা হয়েছে। গুরুতর আহতাবস্থায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শুক্রবার সকাল ৭টার দিকে উপজেলা সদর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড় মইয়াদিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকাল ৭টার সময় আলী হোসেন মুন্সি অটোরিকশাযোগে পেকুয়াবাজারে যাচ্ছিলেন। মইয়াদিয়া স্টেশনের উত্তর পাশেপৌঁছামাত্র তার ভাতিজা আলমগীর হোসেন আটোরিকশা থামিয়ে তার হাতের কব্জি কেটে নিয়ে পাশের পুকুরে ফেলে দেন।

এ সময় তাকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করা হয়। তাকে উদ্ধার করে প্রথমে পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে তাকে চট্টগ্রাম মেড়িকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

আলী হোসেন মুন্সি পেকুয়া সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ৩নং ওয়ার্ড়ের সহসভাপতি।

এলাকাবাসী আরও জানান, কয়েক মাস আগে আলী হোসেন মুন্সির কলেজপড়ুয়া এক মেয়ে অপহৃত হয়। ওই ঘটনায় বড় ভাই আশ্রাফ মিয়ার ছেলে মো. আলমগীরকেও (৩০) আসামি করে মামলা করেন তিনি।

পেশায় টমটমচালক আলমগীর অপহরণকাণ্ডে গ্রেফতার হয়ে জেলও খেটেছেন। কয়েক দিন আগে তিনি জামিনে মুক্তি পান।

এদিকে ঘটনা জানাজানি হলে এলাকাবাসী ওই পুকুরে মেশিন বসিয়ে পানি সেচে হাতের কব্জিটি উদ্ধার করেছেন।

এ ব্যাপারে পেকুয়া থানার ওসি কামরুল আযম যুগান্তরকে জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। এ ব্যাপারে মামলা হলে আইনি ব্যবস্থানেয়া হবে।

চাচার হাত কেটে পুকুরে ফেলে দিলেন ভাতিজা!

 চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি  
২৮ আগস্ট ২০২০, ০৩:২৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
আলী হোসেন মুন্সি
আহত আলী হোসেন মুন্সি। ছবি-যুগান্তর

কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলায় আলী হোসেন মুন্সি (৫০) নামে এক আওয়ামী লীগ নেতার হাতের কব্জি কেটে নিয়ে পুকুরে ফেলে দিলেন তার ভাতিজা। 

এ সময় তাকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে আহত করা হয়েছে। গুরুতর আহতাবস্থায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

শুক্রবার সকাল ৭টার দিকে উপজেলা সদর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড় মইয়াদিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকাল ৭টার সময় আলী হোসেন মুন্সি অটোরিকশাযোগে পেকুয়াবাজারে যাচ্ছিলেন। মইয়াদিয়া স্টেশনের উত্তর পাশে পৌঁছামাত্র তার ভাতিজা আলমগীর হোসেন আটোরিকশা থামিয়ে তার হাতের কব্জি কেটে নিয়ে পাশের পুকুরে ফেলে দেন। 

এ সময় তাকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করা হয়। তাকে উদ্ধার করে প্রথমে পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে তাকে চট্টগ্রাম মেড়িকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। 

আলী হোসেন মুন্সি পেকুয়া সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ৩নং ওয়ার্ড়ের সহসভাপতি।

এলাকাবাসী আরও জানান, কয়েক মাস আগে আলী হোসেন মুন্সির কলেজপড়ুয়া এক মেয়ে অপহৃত হয়। ওই ঘটনায় বড় ভাই আশ্রাফ মিয়ার ছেলে মো. আলমগীরকেও (৩০) আসামি করে মামলা করেন তিনি। 

পেশায় টমটমচালক আলমগীর অপহরণকাণ্ডে গ্রেফতার হয়ে জেলও খেটেছেন। কয়েক দিন আগে তিনি জামিনে মুক্তি পান। 

এদিকে ঘটনা জানাজানি হলে এলাকাবাসী ওই পুকুরে মেশিন বসিয়ে পানি সেচে হাতের কব্জিটি উদ্ধার করেছেন। 

এ ব্যাপারে পেকুয়া থানার ওসি কামরুল আযম যুগান্তরকে জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। এ ব্যাপারে মামলা হলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন