শ্রীমঙ্গলে নিখোঁজের পর চা বাগান থেকে কলেজ ছাত্রের লাশ উদ্ধার
jugantor
শ্রীমঙ্গলে নিখোঁজের পর চা বাগান থেকে কলেজ ছাত্রের লাশ উদ্ধার

  শ্রীমঙ্গল (মৌলভীবাবাজর) প্রতিনিধি  

৩০ আগস্ট ২০২০, ১৪:৪৯:০২  |  অনলাইন সংস্করণ

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে নিখোঁজের একদিন পর চা বাগান থেকে স্বাক্ষর দেব (১৭) নামে এক কলেজ ছাত্রের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

রোববার সকাল সাড়ে ৬টায় পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে উপজেলার লাখাই ছড়া চা বাগান থেকে। নিহত স্বাক্ষর দেব উপজেলার ভাড়াউড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কল্যাণ দেবের ছেলে। সে শ্রীমঙ্গল সরকারি কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র ছিল।

পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শনিবার বিকালে স্বাক্ষর দেব তার মাকে নিয়ে ডাক্তারের কাছে যাওয়ার কথা ছিল। এদিন বিকালে তার মোবাইল ফোনে একটা কল আসলে সে তার মাকে বলে ‘একটু বাহির থেকে আসছি, তোমাকে পরে নিয়ে যাবো মা’।

এ কথা বলে সে বাসা থেকে বাইরে যায়। কিছুক্ষণ পর তার মা তার নাম্বারে কল করলে অন্য একজন ফোন রিসিভ করে।

এ সময় তার মা স্বাক্ষর কোথায় জানতে চাইলে অপর প্রান্ত থেকে অপচিত একজন বলে স্বাক্ষর কে? স্বাক্ষর নামে এখানে কেউ নেই।

এর পর থেকে তাকে আর ফোনে পাওয়া যায়নি। শনিবার বিকাল থেকে তাকে খোঁজাখোঁজি শুরু হয়। কিন্তু স্বাক্ষরকে আর পাওয়া যায়নি। রোববার সকালে লাখাই ছড়া চা বাগানে তার লাশ পাওয়া যায়।

শ্রীমঙ্গল থানার ওসি আব্দুছ ছালেক যুগান্তরক জানান, স্বাক্ষর দেকের শরীরে কোন আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি, তবে মৃতদেহের পাশে ফান্টার দুটি বোতল পাওয়া গেছে।

চেতনানাশক পানীয় খাইয়ে অচেতন করে পরে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, খুনিদের ধরতে পুলিশি তৎপরতা জোড়দার করা হয়েছে, আশা করি খুব দ্রুত জড়িতদের গ্রেফতার করা যাবে।

শ্রীমঙ্গলে নিখোঁজের পর চা বাগান থেকে কলেজ ছাত্রের লাশ উদ্ধার

 শ্রীমঙ্গল (মৌলভীবাবাজর) প্রতিনিধি 
৩০ আগস্ট ২০২০, ০২:৪৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে নিখোঁজের একদিন পর চা বাগান থেকে স্বাক্ষর দেব (১৭)  নামে এক কলেজ ছাত্রের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

রোববার সকাল সাড়ে ৬টায় পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে উপজেলার লাখাই ছড়া চা বাগান থেকে। নিহত স্বাক্ষর দেব উপজেলার ভাড়াউড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কল্যাণ দেবের ছেলে। সে শ্রীমঙ্গল সরকারি কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র ছিল।

পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শনিবার বিকালে স্বাক্ষর দেব তার মাকে নিয়ে ডাক্তারের কাছে যাওয়ার কথা ছিল। এদিন বিকালে তার মোবাইল ফোনে একটা কল আসলে সে তার মাকে বলে ‘একটু বাহির থেকে আসছি, তোমাকে পরে নিয়ে যাবো মা’।

এ কথা বলে সে বাসা থেকে বাইরে যায়। কিছুক্ষণ পর তার মা তার নাম্বারে কল করলে অন্য একজন ফোন রিসিভ করে।

এ সময় তার মা স্বাক্ষর কোথায় জানতে চাইলে অপর প্রান্ত থেকে অপচিত একজন বলে স্বাক্ষর কে? স্বাক্ষর নামে এখানে কেউ নেই।

এর পর থেকে তাকে আর ফোনে পাওয়া যায়নি। শনিবার বিকাল থেকে তাকে খোঁজাখোঁজি শুরু হয়। কিন্তু স্বাক্ষরকে আর পাওয়া যায়নি। রোববার সকালে লাখাই ছড়া চা বাগানে তার লাশ পাওয়া যায়।

শ্রীমঙ্গল থানার ওসি আব্দুছ ছালেক যুগান্তরক জানান, স্বাক্ষর দেকের শরীরে কোন আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি, তবে মৃতদেহের পাশে ফান্টার দুটি বোতল পাওয়া গেছে।

চেতনানাশক পানীয় খাইয়ে অচেতন করে পরে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, খুনিদের ধরতে পুলিশি তৎপরতা জোড়দার করা হয়েছে, আশা করি খুব দ্রুত জড়িতদের গ্রেফতার করা যাবে।

 

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন