‘আমি প্রতিমন্ত্রী হয়েও পুলিশ নিয়ে চলি না’
jugantor
‘আমি প্রতিমন্ত্রী হয়েও পুলিশ নিয়ে চলি না’

  সিংড়া (নাটোর) প্রতিনিধি  

৩০ আগস্ট ২০২০, ২৩:২৭:৩৬  |  অনলাইন সংস্করণ

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, আমি কখনো নিজেকে প্রতিমন্ত্রী পলক ভাবি না। আমি আপনাদের প্রিয় পলক হয়ে কবরে যেতে চাই। আমি শুধু ভোট চাই না। আপনাদের ভালোবাসা চাই। আমি প্রতিমন্ত্রী হয়ে পুলিশ নিয়ে চলি না।

তিনি বলেন, আমার কোনো গানম্যান থাকে না। আমার আস্থা ও বিশ্বাস আছে। আপনাদের ভালোবাসা থাকলে আমার কোনো বিপদ হবে না। আমি বঙ্গবন্ধুর একজন আদর্শের কর্মী হয়ে সুখে দুঃখে আমৃত্যুকাল জনগণের সেবা করতে চাই।

রোববার বিএম কলেজ প্রাঙ্গণে সিংড়া পৌরসভার ৮, ৯ ও ১০ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ আয়োজিত জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে দোয়া ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী পলক এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, সুসময়ের বন্ধু তো অনেকেই হয়, দুঃসময়ে হায় হায়। আমরা শুধু মুখে মুখে নয় কর্মেও বঙ্গবন্ধুর আদর্শ সৈনিক। ২০০৮ সালের আগে বাংলাদেশে কি আর কোনো সরকার ছিল না? তাহলে ৭৫ এর পর থেকে দীঘ ৩৮টি বছর যেই সরকারগুলো বাংলাদেশে শাসনের নামে শোষণ করেছিল। সেই ৭৩ সালের পর থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত ৩৭ বছর এই সিংড়াতে যারা সুসময়ের অতিথি পাখি হয়ে আপনাদের ভোটটি প্রতারণা করে নিয়ে গিয়ে আর সিংড়ার মানুষের খোঁজ রাখিনি। তারা ৩৭ বছর এই সিংড়াতে কি উন্নয়ন করেছিল?

প্রতিমন্ত্রী পলক আরও বলেন, আওয়ামী লীগ ছাড়া, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছাড়া, জননেত্রী শেখ হাসিনা ছাড়া এই বাংলাদেশের মানুষের জন্য অন্য কোনো সরকার, অন্য কোনো রাজনৈতিক দল কোনো প্রকার পৌরসভা করেনি। এই সিংড়া পৌরসভা জননেত্রী শেখ হাসিনার উপহার।

৯ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি আবদুল হামিদের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিংড়া পৌরসভার মেয়র জান্নাতুল ফেরদৌস, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাড. ওহিদুর রহমান শেখ, সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ আবু বক্কর সিদ্দিক রকি, আওয়ামী লীগ নেতা বিশ্বনাথ দাস কাশিনাথ, শ্রমিক নেতা এসএম বাদল, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক বকুল, গোলই আফরোজ সরকারি কলেজের ভিপি সজিব ইসলাম জুয়েল, পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক হাসান ইমাম প্রমুখ।

‘আমি প্রতিমন্ত্রী হয়েও পুলিশ নিয়ে চলি না’

 সিংড়া (নাটোর) প্রতিনিধি 
৩০ আগস্ট ২০২০, ১১:২৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, আমি কখনো নিজেকে প্রতিমন্ত্রী পলক ভাবি না। আমি আপনাদের প্রিয় পলক হয়ে কবরে যেতে চাই। আমি শুধু ভোট চাই না। আপনাদের ভালোবাসা চাই। আমি প্রতিমন্ত্রী হয়ে পুলিশ নিয়ে চলি না।

তিনি বলেন, আমার কোনো গানম্যান থাকে না। আমার আস্থা ও বিশ্বাস আছে। আপনাদের ভালোবাসা থাকলে আমার কোনো বিপদ হবে না। আমি বঙ্গবন্ধুর একজন আদর্শের কর্মী হয়ে সুখে দুঃখে আমৃত্যুকাল জনগণের সেবা করতে চাই।

রোববার বিএম কলেজ প্রাঙ্গণে সিংড়া পৌরসভার ৮, ৯ ও ১০ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ আয়োজিত জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে দোয়া ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী পলক এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, সুসময়ের বন্ধু তো অনেকেই হয়, দুঃসময়ে হায় হায়। আমরা শুধু মুখে মুখে নয় কর্মেও বঙ্গবন্ধুর আদর্শ সৈনিক। ২০০৮ সালের আগে বাংলাদেশে কি আর কোনো সরকার ছিল না? তাহলে ৭৫ এর পর থেকে দীঘ ৩৮টি বছর যেই সরকারগুলো বাংলাদেশে শাসনের নামে শোষণ করেছিল। সেই ৭৩ সালের পর থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত ৩৭ বছর এই সিংড়াতে যারা সুসময়ের অতিথি পাখি হয়ে আপনাদের ভোটটি প্রতারণা করে নিয়ে গিয়ে আর সিংড়ার মানুষের খোঁজ রাখিনি। তারা ৩৭ বছর এই সিংড়াতে কি উন্নয়ন করেছিল?

প্রতিমন্ত্রী পলক আরও বলেন, আওয়ামী লীগ ছাড়া, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছাড়া, জননেত্রী শেখ হাসিনা ছাড়া এই বাংলাদেশের মানুষের জন্য অন্য কোনো সরকার, অন্য কোনো রাজনৈতিক দল কোনো প্রকার পৌরসভা করেনি। এই সিংড়া পৌরসভা জননেত্রী শেখ হাসিনার উপহার।

৯ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি আবদুল হামিদের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিংড়া পৌরসভার মেয়র জান্নাতুল ফেরদৌস, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাড. ওহিদুর রহমান শেখ, সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ আবু বক্কর সিদ্দিক রকি, আওয়ামী লীগ নেতা বিশ্বনাথ দাস কাশিনাথ, শ্রমিক নেতা এসএম বাদল, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক বকুল, গোলই আফরোজ সরকারি কলেজের ভিপি সজিব ইসলাম জুয়েল, পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক হাসান ইমাম প্রমুখ।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন