প্রেমের ফাঁদে ফেলে শিশুকে নিয়ে উধাও সেই দুলাভাই গ্রেফতার
jugantor
প্রেমের ফাঁদে ফেলে শিশুকে নিয়ে উধাও সেই দুলাভাই গ্রেফতার

  নেত্রকোনা প্রতিনিধি  

০২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২০:৪৫:২৪  |  অনলাইন সংস্করণ

নেত্রকোনার পূর্বধলায় ১২ বছরের শিশু শ্যালিকাকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে উধাও হয়ে যায় তরিকুল ইসলাম (২৫)। অজানার উদ্দেশে পাড়ি জমিয়েও শেষ রক্ষা হয়নি দুলাভাই তরিকুলের। দীর্ঘ ৮ মাস পর মঙ্গলবার বিকালে পূর্বধলা থানা পুলিশ উপজেলার ঘাগড়াপাড়া গ্রাম থেকে ওই শিশু শ্যালিকাকে উদ্ধার ও লম্পট তরিকুলকে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারকৃত তরিকুল পূর্বধলা উপজেলার বিশকাকুনী ইউনিয়নের চরবহুলী (দাদরাপাড়া) গ্রামের আবু চাঁনের ছেলে। উদ্ধারকৃত শিশুকন্যার বাড়ি ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলার হরিয়াগাই গ্রামে।

পুলিশ জানায়, গ্রেফতারকৃত তরিকুল প্রায় দুই বছর আগে ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলার হরিয়াগাই গ্রামের তানিয়া আক্তারকে বিয়ে করে। বিয়ের বছরখানেক পর তানিয়ার খালাত বোনকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে তরিকুল। অতঃপর পাড়ি জমায় অজানার উদ্দেশে।

এক পর্যায়ে কয়েক মাস আগে তরিকুল ওই শিশুকন্যাকে নিয়ে উপজেলার ধলামূলগাঁও ইউনিয়নের ঘাগড়াপাড়া গ্রামে তার এক আত্মীয়ের বাড়িতে অবস্থান করে বসবাস শুরু করে। এ খবর ওই শিশুকন্যার পরিবার জানতে পেরে পূর্বধলা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশ ওই শিশুকন্যাকে উদ্ধার ও তরিকুলকে গ্রেফতার করে।

পূর্বধলা থানার ওসি মোহাম্মদ তাওহীদুর রহমান জানান, এ ঘটনায় গ্রেফতারকৃত তরিকুলের বিরুদ্ধে ওই শিশুকন্যার বাবা বাদী হয়ে অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগ এনে পূর্বধলা থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। বুধবার সকালে গ্রেফতারকৃত তরিকুলকে আদালতে সোপর্দ করা হয়। সেই সঙ্গে ভিকটিমকেও ২২ ধারায় জবানবন্দির জন্য আদালতে প্রেরণ করা হয়।

প্রেমের ফাঁদে ফেলে শিশুকে নিয়ে উধাও সেই দুলাভাই গ্রেফতার

 নেত্রকোনা প্রতিনিধি 
০২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮:৪৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নেত্রকোনার পূর্বধলায় ১২ বছরের শিশু শ্যালিকাকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে উধাও হয়ে যায় তরিকুল ইসলাম (২৫)। অজানার উদ্দেশে পাড়ি জমিয়েও শেষ রক্ষা হয়নি দুলাভাই তরিকুলের। দীর্ঘ ৮ মাস পর মঙ্গলবার বিকালে পূর্বধলা থানা পুলিশ উপজেলার ঘাগড়াপাড়া গ্রাম থেকে ওই শিশু শ্যালিকাকে উদ্ধার ও লম্পট তরিকুলকে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারকৃত তরিকুল পূর্বধলা উপজেলার বিশকাকুনী ইউনিয়নের চরবহুলী (দাদরাপাড়া) গ্রামের আবু চাঁনের ছেলে। উদ্ধারকৃত শিশুকন্যার বাড়ি ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলার হরিয়াগাই গ্রামে।

পুলিশ জানায়, গ্রেফতারকৃত তরিকুল প্রায় দুই বছর আগে ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলার হরিয়াগাই গ্রামের তানিয়া আক্তারকে বিয়ে করে। বিয়ের বছরখানেক পর তানিয়ার খালাত বোনকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে তরিকুল। অতঃপর পাড়ি জমায় অজানার উদ্দেশে।

এক পর্যায়ে কয়েক মাস আগে তরিকুল ওই শিশুকন্যাকে নিয়ে উপজেলার ধলামূলগাঁও ইউনিয়নের ঘাগড়াপাড়া গ্রামে তার এক আত্মীয়ের বাড়িতে অবস্থান করে বসবাস শুরু করে। এ খবর ওই শিশুকন্যার পরিবার জানতে পেরে পূর্বধলা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশ ওই শিশুকন্যাকে উদ্ধার ও তরিকুলকে গ্রেফতার করে।

পূর্বধলা থানার ওসি মোহাম্মদ তাওহীদুর রহমান জানান, এ ঘটনায় গ্রেফতারকৃত তরিকুলের বিরুদ্ধে ওই শিশুকন্যার বাবা বাদী হয়ে অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগ এনে পূর্বধলা থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। বুধবার সকালে গ্রেফতারকৃত তরিকুলকে আদালতে সোপর্দ করা হয়। সেই সঙ্গে ভিকটিমকেও ২২ ধারায় জবানবন্দির জন্য আদালতে প্রেরণ করা হয়।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন