বদরগঞ্জে কলেজছাত্রীর আত্মহত্যা
jugantor
বদরগঞ্জে কলেজছাত্রীর আত্মহত্যা

  রংপুর ব্যুরো  

০২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২২:৫৮:০৬  |  অনলাইন সংস্করণ

রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলার পল্লীতে মুক্তা খাতুন (১৮) নামে এক কলেজছাত্রী ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার গোপিনাথপুর শালবাড়ি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। বুধবার ওই কলেজছাত্রীর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য রংপুর মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

মুক্তা খাতুন উপজেলার গোপিনাথপুর শালবাড়ি গ্রামের হাবিবুর রহমানের মেয়ে।

পুলিশের ধারণা, প্রেমঘটিত বিষয়ে ওই কলেজছাত্রী আত্মহত্যা করতে পারে।

জানা গেছে, বদরগঞ্জ উপজেলার গোপীনাথপুর ইউনিয়নের শালবাড়ি এলাকার আমবাগান বাড়ি গ্রামের হাবিবুর রহমানের মেয়ে মুক্তা খাতুন মঙ্গলবার দুপুরে বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।

তার মা আয়েশা বেগমের দাবি, মুক্তা দীর্ঘদিন ধরে পেটের পীড়ায় ভুগছিল। রোগ যন্ত্রণা সইতে না পেরে সে আত্মহত্যা করেছে।

বদরগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আরিফ আলী বলেন, পেটের পীড়ায় নয়, প্রেমঘটিত বিষয়ে ওই কলেজছাত্রী আত্মহত্যা করতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় বদরগঞ্জ থানায় একটি ইউডি মামলা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ রংপুর মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে এলাকাবাসী জানান, সম্প্রতি ওই কলেজছাত্রীর বিয়ে ঠিক হয়েছিল। ওই বিয়েতে মত ছিল না কলেজছাত্রীর। কারণ তার এক যুবকের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। সেই কারণে আত্মহত্যার পথ বেছে নিতে পারে সে।

বদরগঞ্জে কলেজছাত্রীর আত্মহত্যা

 রংপুর ব্যুরো 
০২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:৫৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলার পল্লীতে মুক্তা খাতুন (১৮) নামে এক কলেজছাত্রী ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার গোপিনাথপুর শালবাড়ি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। বুধবার ওই কলেজছাত্রীর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য রংপুর মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

মুক্তা খাতুন উপজেলার গোপিনাথপুর শালবাড়ি গ্রামের হাবিবুর রহমানের মেয়ে।

পুলিশের ধারণা, প্রেমঘটিত বিষয়ে ওই কলেজছাত্রী আত্মহত্যা করতে পারে। 

জানা গেছে, বদরগঞ্জ উপজেলার গোপীনাথপুর ইউনিয়নের শালবাড়ি এলাকার আমবাগান বাড়ি গ্রামের হাবিবুর রহমানের মেয়ে মুক্তা খাতুন মঙ্গলবার দুপুরে বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।

তার মা আয়েশা বেগমের দাবি, মুক্তা দীর্ঘদিন ধরে পেটের পীড়ায় ভুগছিল। রোগ যন্ত্রণা সইতে না পেরে সে আত্মহত্যা করেছে।

বদরগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আরিফ আলী বলেন, পেটের পীড়ায় নয়, প্রেমঘটিত বিষয়ে ওই কলেজছাত্রী আত্মহত্যা করতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় বদরগঞ্জ থানায় একটি ইউডি মামলা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ রংপুর মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে এলাকাবাসী জানান, সম্প্রতি ওই কলেজছাত্রীর বিয়ে ঠিক হয়েছিল। ওই বিয়েতে মত ছিল না কলেজছাত্রীর। কারণ তার এক যুবকের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। সেই কারণে আত্মহত্যার পথ বেছে নিতে পারে সে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন