না‘গঞ্জের মসজিদে বিস্ফোরণে নিহত শিশু মাইনুদ্দিনের বাড়ি ফরিদগঞ্জে
jugantor
না‘গঞ্জের মসজিদে বিস্ফোরণে নিহত শিশু মাইনুদ্দিনের বাড়ি ফরিদগঞ্জে

  ফরিদগঞ্জ (চাঁদপুর) প্রতিনিধি  

০৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২২:২৯:২২  |  অনলাইন সংস্করণ

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় মসজিদে ভয়াবহ বিস্ফোরণে মাইনুদ্দিন (১২) নামে ফরিদগঞ্জের একজনের মৃত্যু হয়েছে। উপজেলার বালিথুবা পশ্চিম ইউনিয়নের বিল্লাল মাস্টারের বাড়ির তরজিরান্তি গ্রামের মহসিন খানের ছেলে মাইনুদ্দিন।

জানা যায়, তরজিরান্তি গ্রামের মহসিন খানের ছেলে মাইনুদ্দিন নারায়ণগঞ্জের স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণিতে পড়াশুনা করত। তার বাবা নারায়ণগঞ্জে কাঁচামালের ব্যবসা ও মা গার্মেন্টস শ্রমিক। দুই ভাই ও এক বোনের মধ্যে মাইনুদ্দিন ছিল সবার ছোট।

গত শুক্রবার এশার নামাজ পড়তে গিয়েছিল ফতুল্লার পশ্চিম তল্লা এলাকার বায়তুস সালাত জামে মসজিদে। নামাজ পড়া অবস্থায় ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এতে মাইনুদ্দিনসহ অর্ধশতাধিক মানুষ ভয়াবহ বিস্ফোরণের কবলে পড়ে গুরুতর দগ্ধ হয়।

পরিবারের লোকজনের বরাত দিয়ে উপজেলার পশ্চিম বালিথুবা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শফিকুর রহমান পাটওয়ারী জানান, শুক্রবার এশার নামাজরত অবস্থায় বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটলে মাইনুদ্দিন গুরুতর আহত হয়। পরে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউটে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার সে মারা যায়। রাত ১১টায় জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তার লাশ দাফন করা হয়।

না‘গঞ্জের মসজিদে বিস্ফোরণে নিহত শিশু মাইনুদ্দিনের বাড়ি ফরিদগঞ্জে

 ফরিদগঞ্জ (চাঁদপুর) প্রতিনিধি 
০৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:২৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় মসজিদে ভয়াবহ বিস্ফোরণে মাইনুদ্দিন (১২) নামে ফরিদগঞ্জের একজনের মৃত্যু হয়েছে। উপজেলার বালিথুবা পশ্চিম ইউনিয়নের বিল্লাল মাস্টারের বাড়ির তরজিরান্তি গ্রামের মহসিন খানের ছেলে মাইনুদ্দিন।

জানা যায়, তরজিরান্তি গ্রামের মহসিন খানের ছেলে মাইনুদ্দিন নারায়ণগঞ্জের স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণিতে পড়াশুনা করত। তার বাবা নারায়ণগঞ্জে কাঁচামালের ব্যবসা ও মা গার্মেন্টস শ্রমিক। দুই ভাই ও এক বোনের মধ্যে মাইনুদ্দিন ছিল সবার ছোট।

গত শুক্রবার এশার নামাজ পড়তে গিয়েছিল ফতুল্লার পশ্চিম তল্লা এলাকার বায়তুস সালাত জামে মসজিদে। নামাজ পড়া অবস্থায় ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এতে মাইনুদ্দিনসহ অর্ধশতাধিক মানুষ ভয়াবহ বিস্ফোরণের কবলে পড়ে গুরুতর দগ্ধ হয়।

পরিবারের লোকজনের বরাত দিয়ে উপজেলার পশ্চিম বালিথুবা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শফিকুর রহমান পাটওয়ারী জানান, শুক্রবার এশার নামাজরত অবস্থায় বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটলে মাইনুদ্দিন গুরুতর আহত হয়। পরে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউটে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার সে মারা যায়। রাত ১১টায় জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তার লাশ দাফন করা হয়।

 

ঘটনাপ্রবাহ : নারায়ণগঞ্জে মসজিদে বিস্ফোরণ

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন