জুয়ার আসর থেকে কারাগারে যুবলীগের তিন নেতাকর্মী
jugantor
জুয়ার আসর থেকে কারাগারে যুবলীগের তিন নেতাকর্মী

  বগুড়া ব্যুরো  

০৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২২:১৫:৩৬  |  অনলাইন সংস্করণ

বগুড়ার নন্দীগ্রামে জুয়ার আসর থেকে যুবলীগের তিন নেতাকর্মীসহ সাতজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে উপজেলার সদর ইউনিয়নের ইউসুবপুর হঠাৎপাড়া গ্রামের একটি বাড়ি থেকে জুয়ার সরঞ্জামসহ তাদের গ্রেফতার করে পুলিশ। আদালতের মাধ্যমে তাদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ আশরাফ মামুন এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেছেন, গ্রেফতার তিন নেতাকর্মীকে দলীয়ভাবে শাসন করা হবে।

গ্রেফতার জুয়াড়িরা হলেন- নন্দীগ্রামের কচুগাড়ির জবান আলীর ছেলে পৌর যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক শাহিনুর রহমান (৩৫), পশ্চিমপাড়ার আমজাদ হোসেনের ছেলে যুবলীগ কর্মী রইচ উদ্দিন (৫০), দক্ষিণপাড়ার ইদ্রিস আলীর ছেলে যুবলীগ কর্মী লিটন হোসেন (৩০), বিজয়ঘট গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে ইউনুস আলী (৪০), ময়েজ উদ্দিনের ছেলে ঠান্ডু মিয়া (৩৬), গুন্দইল গ্রামের শাহ আলমের ছেলে নবাব আলী (৩৫) ও ইউসুবপুর গ্রামের আব্দুল করিমের ছেলে ইদ্রিস আলী (৬০)।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, যুবলীগ নেতা শাহিনুর রহমান সোমবার রাতে নন্দীগ্রাম উপজেলার ইউসুবপুর হঠাৎপাড়া গ্রামের একটি বাড়িতে জুয়ার আসর বসান। গোপনে খবর পেয়ে মঙ্গলবার সকালে ওই বাড়ি থেকে যুবলীগের তিন নেতাকর্মীসহ সাত জুয়াড়িকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় জুয়ার কিছু সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে।

নন্দীগ্রাম থানার ওসি শওকত কবির জানান, গ্রেফতার জুয়াড়িদের বিরুদ্ধে জুয়া আইনে মামলা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে তাদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

জুয়ার আসর থেকে কারাগারে যুবলীগের তিন নেতাকর্মী

 বগুড়া ব্যুরো 
০৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:১৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বগুড়ার নন্দীগ্রামে জুয়ার আসর থেকে যুবলীগের তিন নেতাকর্মীসহ সাতজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে উপজেলার সদর ইউনিয়নের ইউসুবপুর হঠাৎপাড়া গ্রামের একটি বাড়ি থেকে জুয়ার সরঞ্জামসহ তাদের গ্রেফতার করে পুলিশ। আদালতের মাধ্যমে তাদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ আশরাফ মামুন এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেছেন, গ্রেফতার তিন নেতাকর্মীকে দলীয়ভাবে শাসন করা হবে।

গ্রেফতার জুয়াড়িরা হলেন- নন্দীগ্রামের কচুগাড়ির জবান আলীর ছেলে পৌর যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক শাহিনুর রহমান (৩৫), পশ্চিমপাড়ার আমজাদ হোসেনের ছেলে যুবলীগ কর্মী রইচ উদ্দিন (৫০), দক্ষিণপাড়ার ইদ্রিস আলীর ছেলে যুবলীগ কর্মী লিটন হোসেন (৩০), বিজয়ঘট গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে ইউনুস আলী (৪০), ময়েজ উদ্দিনের ছেলে ঠান্ডু মিয়া (৩৬), গুন্দইল গ্রামের শাহ আলমের ছেলে নবাব আলী (৩৫) ও ইউসুবপুর গ্রামের আব্দুল করিমের ছেলে ইদ্রিস আলী (৬০)।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, যুবলীগ নেতা শাহিনুর রহমান সোমবার রাতে নন্দীগ্রাম উপজেলার ইউসুবপুর হঠাৎপাড়া গ্রামের একটি বাড়িতে জুয়ার আসর বসান। গোপনে খবর পেয়ে মঙ্গলবার সকালে ওই বাড়ি থেকে যুবলীগের তিন নেতাকর্মীসহ সাত জুয়াড়িকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় জুয়ার কিছু সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে।

নন্দীগ্রাম থানার ওসি শওকত কবির জানান, গ্রেফতার জুয়াড়িদের বিরুদ্ধে জুয়া আইনে মামলা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে তাদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

 
আরও খবর
 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন