জেল থেকে ছাড়ার পরই চোখ তুলে নিল প্রতিপক্ষ 
jugantor
জেল থেকে ছাড়ার পরই চোখ তুলে নিল প্রতিপক্ষ 

  বাউফল (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি  

১১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৮:৪০:১৯  |  অনলাইন সংস্করণ

পটুয়াখালীর বাউফলে জেল থেকে ছাড়া পাওয়ার পর পূর্ববিরোধের জের ধরে মিন্টু মৃধা (৪০) নামে এক ব্যক্তির চোখ উপড়ে ফেলেছে প্রতিপক্ষ।

এছাড়াও তার ডান চোয়াল, ডান হাত ও ডান পা কুপিয়ে প্রায় বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয়েছে। মিন্টু মৃধাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বরিশাল শেরেবাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয় (শেবাচিম) হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

শুক্রবার দুপুরে মদনপুরা ইউনিয়নের দ্বিপাশা গ্রামের উঁচুপুলের কাছে এ ঘটনা ঘটেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, বাউফল সদর ইউনিয়নের গোসিংগা গ্রামের মিন্টু মৃধার সঙ্গে প্রতিপক্ষ মিজানুর রহমান মাতুব্বরের পাল্টাপাল্টি মামলা চলছে। সম্প্রতি মিন্টু মৃধা একটি মামলায় জেল থেকে ছাড়া পেয়ে বাড়ি আসেন।

শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে মিন্টু মৃধা দ্বিপাশা উঁচুপুলের কাছে একটি দোকানে চা পান করছিলেন। এ সময় মিজানুর ও তার ভাই সোহেল মাতুব্বরের নেতৃত্বে ৫-৭ জন দুর্বৃত্ত ধারালো অস্ত্র নিয়ে তার ওপর হামলা চালায় এবং এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করে।

এক পর্যায় দুর্বৃত্তরা মিন্টু মৃধার বাম চোখ খুঁচিয়ে তুলে ফেলে। ডান চোখটিও নষ্ট করার চেষ্টা করে। দুর্বৃত্তদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে মিন্টু মৃধার ডান চোয়াল জখম হয়। এছাড়াও তার ডান পা ও ডান হাত প্রায় বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

পরে রক্তাক্ত অবস্থায় স্থানীয় লোকজন ও স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে বাউফল হাসপাতালে নিয়ে যান।

জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তানভীর আহমেদ বলেন, মিন্টু মৃধার বাম চোখটি উপড়ে ফেলা হয়েছে। এছাড়া তার অন্যান্য জখমও গুরুতর। তার অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় আমরা প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পাঠিয়েছি।

জেল থেকে ছাড়ার পরই চোখ তুলে নিল প্রতিপক্ষ 

 বাউফল (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি 
১১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬:৪০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পটুয়াখালীর বাউফলে জেল থেকে ছাড়া পাওয়ার পর পূর্ববিরোধের জের ধরে মিন্টু মৃধা (৪০) নামে এক ব্যক্তির চোখ উপড়ে ফেলেছে প্রতিপক্ষ। 

এছাড়াও তার ডান চোয়াল, ডান হাত ও ডান পা কুপিয়ে প্রায় বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয়েছে। মিন্টু মৃধাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বরিশাল শেরেবাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয় (শেবাচিম) হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

শুক্রবার দুপুরে মদনপুরা ইউনিয়নের দ্বিপাশা গ্রামের উঁচুপুলের কাছে এ ঘটনা ঘটেছে। 

প্রত্যক্ষদর্শী ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, বাউফল সদর ইউনিয়নের গোসিংগা গ্রামের মিন্টু মৃধার সঙ্গে প্রতিপক্ষ মিজানুর রহমান মাতুব্বরের পাল্টাপাল্টি মামলা চলছে। সম্প্রতি মিন্টু মৃধা একটি মামলায় জেল থেকে ছাড়া পেয়ে বাড়ি আসেন। 

শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে মিন্টু মৃধা দ্বিপাশা উঁচুপুলের কাছে একটি দোকানে চা পান করছিলেন। এ সময় মিজানুর ও তার ভাই সোহেল মাতুব্বরের নেতৃত্বে ৫-৭ জন দুর্বৃত্ত ধারালো অস্ত্র নিয়ে তার ওপর হামলা চালায় এবং এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করে। 

এক পর্যায় দুর্বৃত্তরা মিন্টু মৃধার বাম চোখ খুঁচিয়ে তুলে ফেলে। ডান চোখটিও নষ্ট করার চেষ্টা করে। দুর্বৃত্তদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে মিন্টু মৃধার ডান চোয়াল জখম হয়। এছাড়াও তার ডান পা ও ডান হাত প্রায় বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

পরে রক্তাক্ত অবস্থায় স্থানীয় লোকজন ও স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে বাউফল হাসপাতালে নিয়ে যান। 

জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তানভীর আহমেদ বলেন, মিন্টু মৃধার বাম চোখটি উপড়ে ফেলা হয়েছে। এছাড়া তার অন্যান্য জখমও গুরুতর। তার অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় আমরা প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পাঠিয়েছি। 

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন