দিনাজপুরে সড়কে প্রাণ হারালেন ২ জন
jugantor
দিনাজপুরে সড়কে প্রাণ হারালেন ২ জন

  দিনাজপুর প্রতিনিধি  

১৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৫:১৩:১৫  |  অনলাইন সংস্করণ

দিনাজপুরে সড়কে প্রাণ হারালেন ২ জন

দিনাজপুরের বিরল ও চিরিরবন্দর উপজেলায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় এক নারীসহ দুজন নিহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার বেলা ১১টায় দিনাজপুর-বোঁচাগঞ্জ সড়কের বিরল উপজেলার বাজনাহার নামক স্থানে এবং সকাল ১০টায় চিরিরবন্দর উপজেলার অমরপুর গ্রামে এ দুর্ঘটনা দুটি ঘটে।

নিহত ফিরোজ জামান (৩৮) বিরল উপজেলার ভারাডাঙ্গী গ্রামের মৃত মহিউদ্দীনের ছেলে। নিহত শাপলা খাতুন (৩৭) চিরিরবন্দর উপজেলার শান্তির বাজার এলাকার শামীম সরকারের স্ত্রী।

বিরল থানার ওসি শেখ নাসিম হাবিব জানান, মঙ্গলবার বেলা ১১টায় দিনাজপুর-বোঁচাগঞ্জ সড়কের বিরল উপজেলার বাজনাহার নামক স্থানে শ্যালোচালিত একটি ভটভটির সঙ্গে বিপরীতগামী একটি মোটরসাইকেলের মুখোমুখী সংঘর্ষ হয়। এতে মোটরসাইকেলচালক ফিরোজ জামান ও আরোহী হরিশ চন্দ্র রায় গুরুতর আহত হন।

আহতদের উদ্ধার করে দিনাজপুর এম আবদুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে চিকিৎসাধীন থেকে মোটরসাইকেলচালক ফিরোজ জামান মারা যান।

এদিকে চিরিরবন্দর থানার ওসি সুব্রত কুমার সরকার জানান, মঙ্গলবার সকাল ১০টায় চিরিরবন্দর উপজেলার অমরপুর গ্রাম থেকে স্বামী শামীম হোসেনের মোটরসাইকেলে একই উপজেলার কারেন্টহাট বাজারে যাওয়ার পথে উপজেলা পরিষদের সন্নিকটে একটি ট্রাক্টর মোটরসাইকেলটিকে ধাক্কা দেয়। এতে স্ত্রী শাপলা খাতুন মোটরসাইকেল থেকে পড়ে গেলে ট্রাক্টরটি তাকে পিষ্ট করে চলে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই শাপলা খাতুন নিহত হন।

দিনাজপুরে সড়কে প্রাণ হারালেন ২ জন

 দিনাজপুর প্রতিনিধি 
১৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৩:১৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
দিনাজপুরে সড়কে প্রাণ হারালেন ২ জন
ফাইল ছবি

দিনাজপুরের বিরল ও চিরিরবন্দর উপজেলায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় এক নারীসহ দুজন নিহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার বেলা ১১টায় দিনাজপুর-বোঁচাগঞ্জ সড়কের বিরল উপজেলার বাজনাহার নামক স্থানে এবং সকাল ১০টায় চিরিরবন্দর উপজেলার অমরপুর গ্রামে এ দুর্ঘটনা দুটি ঘটে।

নিহত ফিরোজ জামান (৩৮) বিরল উপজেলার ভারাডাঙ্গী গ্রামের মৃত মহিউদ্দীনের ছেলে। নিহত শাপলা খাতুন (৩৭) চিরিরবন্দর উপজেলার শান্তির বাজার এলাকার শামীম সরকারের স্ত্রী।

বিরল থানার ওসি শেখ নাসিম হাবিব জানান, মঙ্গলবার বেলা ১১টায় দিনাজপুর-বোঁচাগঞ্জ সড়কের বিরল উপজেলার বাজনাহার নামক স্থানে শ্যালোচালিত একটি ভটভটির সঙ্গে বিপরীতগামী একটি মোটরসাইকেলের মুখোমুখী সংঘর্ষ হয়। এতে মোটরসাইকেলচালক ফিরোজ জামান ও আরোহী হরিশ চন্দ্র রায় গুরুতর আহত হন।

আহতদের উদ্ধার করে দিনাজপুর এম আবদুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে চিকিৎসাধীন থেকে মোটরসাইকেলচালক ফিরোজ জামান মারা যান।

এদিকে চিরিরবন্দর থানার ওসি সুব্রত কুমার সরকার জানান, মঙ্গলবার সকাল ১০টায় চিরিরবন্দর উপজেলার অমরপুর গ্রাম থেকে স্বামী শামীম হোসেনের মোটরসাইকেলে একই উপজেলার কারেন্টহাট বাজারে যাওয়ার পথে উপজেলা পরিষদের সন্নিকটে একটি ট্রাক্টর মোটরসাইকেলটিকে ধাক্কা দেয়। এতে স্ত্রী শাপলা খাতুন মোটরসাইকেল থেকে পড়ে গেলে ট্রাক্টরটি তাকে পিষ্ট করে চলে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই শাপলা খাতুন নিহত হন।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন