মেয়েকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় বাবাকে পেটাল বখাটেরা 
jugantor
মেয়েকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় বাবাকে পেটাল বখাটেরা 

  গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি  

১৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৮:৩৫:০৭  |  অনলাইন সংস্করণ

নাটোরের গুরুদাসপুরে ৫ম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক শিশু মেয়েকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় বাবাকে মারপিট করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সোমবার রাত সাড়ে ৮টায় উপজেলার কালাকান্দ গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় শিশু মেয়েটির বাবা ভুক্তভোগী বুদ্দু মণ্ডল বাদী হয়ে গুরুদাসপুর থানায় আশিক এবং তার ভাই বিল্টু শিকদারের বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

মেয়েটির বাবা বুদ্দু মণ্ডল জানান, বাড়িসংলগ্ন জায়গায় তার মুদি দোকান রয়েছে। তিনি অতিদরিদ্র একজন কৃষক। যার কারণে সব সময় দোকানে বসতে পারেন না। মাঝে মধ্যে তার শিশুকন্যা দোকানে বসে বেচাবিক্রি করে। এ সুযোগে প্রতিবেশী আশিক শিকদার তার শিশু মেয়েকে বিভিন্ন সময় কুপ্রস্তাব দেয়।

বিষয়টি তার মেয়ে তাকে জানালে তিনি অভিযুক্তকে নিষেধ করেন। তার কথায় কর্ণপাত না করে আরও বেশি বাজে কথা বলতে থাকে। বিষয়টি তার অভিভাবকদের জানালে অভিযুক্ত আশিক এবং তার ভাই বিল্টু শিকদার সোমবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে তার দোকানে এসে তাকে মারপিট করে। সেই সঙ্গে দোকানের মালামাল ভাংচুর করে।

এ সময় তার ডাক-চিৎকারে এলাকার লোকজন এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করেন। বর্তমানে তিনি তার শিশুকন্যাকে নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বলে জানান। এ ঘটনায় জড়িত প্রতিবেশী আশিক শিকদার ও বিল্টু শিকদারের বিরুদ্ধে অভিযোগ হলে বিল্টুকে আটক করে থানা পুলিশ।

গুরুদাসপুর থানার ওসি মো. মোজাহারুল ইসলাম বলেন, অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় একজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। তদন্ত করে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মেয়েকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় বাবাকে পেটাল বখাটেরা 

 গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি 
১৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬:৩৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নাটোরের গুরুদাসপুরে ৫ম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক শিশু মেয়েকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় বাবাকে মারপিট করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। 

সোমবার রাত সাড়ে ৮টায় উপজেলার কালাকান্দ গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় শিশু মেয়েটির বাবা ভুক্তভোগী বুদ্দু মণ্ডল বাদী হয়ে গুরুদাসপুর থানায় আশিক এবং তার ভাই বিল্টু শিকদারের বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

মেয়েটির বাবা বুদ্দু মণ্ডল জানান, বাড়িসংলগ্ন জায়গায় তার মুদি দোকান রয়েছে। তিনি অতিদরিদ্র একজন কৃষক। যার কারণে সব সময় দোকানে বসতে পারেন না। মাঝে মধ্যে তার শিশুকন্যা দোকানে বসে বেচাবিক্রি করে। এ সুযোগে প্রতিবেশী আশিক শিকদার তার শিশু মেয়েকে বিভিন্ন সময় কুপ্রস্তাব দেয়।

বিষয়টি তার মেয়ে তাকে জানালে তিনি অভিযুক্তকে নিষেধ করেন। তার কথায় কর্ণপাত না করে আরও বেশি বাজে কথা বলতে থাকে। বিষয়টি তার অভিভাবকদের জানালে অভিযুক্ত আশিক এবং তার ভাই বিল্টু শিকদার সোমবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে তার দোকানে এসে তাকে মারপিট করে। সেই সঙ্গে দোকানের মালামাল ভাংচুর করে। 

এ সময় তার ডাক-চিৎকারে এলাকার লোকজন এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করেন। বর্তমানে তিনি তার শিশুকন্যাকে নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বলে জানান। এ ঘটনায় জড়িত প্রতিবেশী আশিক শিকদার ও বিল্টু শিকদারের বিরুদ্ধে অভিযোগ হলে বিল্টুকে আটক করে থানা পুলিশ।

গুরুদাসপুর থানার ওসি মো. মোজাহারুল ইসলাম বলেন, অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় একজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। তদন্ত করে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন