সড়কে ফেলে যাওয়া সেই বৃদ্ধা মাকে ফিরিয়ে নিলেন ছেলে
jugantor
সড়কে ফেলে যাওয়া সেই বৃদ্ধা মাকে ফিরিয়ে নিলেন ছেলে

  দশমিনা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি  

১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৭:৪৭:২৩  |  অনলাইন সংস্করণ

দশমিনা

দশমিনায় সড়কে ফেলে যাওয়া সেই বৃদ্ধা মাকে ফিরিয়ে নিলেন তার ছেলে। গতকাল বুধবার দশমিনা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ছয়দিনের চিকিৎসা শেষে সুস্থ হওয়া মাকে দশমিনা থানা থেকে মুচলেকা দিয়ে ফিরিয়ে নিয়েছেন তার সন্তান রাকিব হোসেন।

এ সময় দশমিনা থানার ওসি মো. জসীম ও হাসপাতালের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোস্তাফিজুর রহমান বৃদ্ধা জয়নব বেগমকে ফুলের শুভেচ্ছা জানান। এ ঘটনায় হৃদয়বিদারক আবেগঘন পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়।

উল্লেখ্য,গত ১০ সেপ্টেম্বর দশমিনা উপজেলার সার্ভে ইন্সটিটিউটের সামনের সড়ক থেকে সন্তানদের ফেলে যাওয়া বৃদ্ধা জয়নব বেগমকে (৭০) দশমিনা থানা পুলিশ মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে।
এ ব্যাপারে দশমিনা থানার ওসি মো. জসীম জানান, মাকে আর কখনও অবহেলা করবে না- মর্মে মুচলেকা নিয়ে তার সন্তান রাকিব হোসেনের কাছে জয়নব বেগমকে তুলে দেয়া হয়েছে। এ সময় জয়নব বেগমের আত্মীয়স্বজনরা উপস্থিত ছিলেন।

সড়কে ফেলে যাওয়া সেই বৃদ্ধা মাকে ফিরিয়ে নিলেন ছেলে

 দশমিনা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি 
১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৫:৪৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
দশমিনা
দশমিনায় সড়কে ফেলে যাওয়া সেই বৃদ্ধা মাকে ফিরিয়ে নিলেন তার ছেলে।

দশমিনায় সড়কে ফেলে যাওয়া সেই বৃদ্ধা মাকে ফিরিয়ে নিলেন তার ছেলে। গতকাল বুধবার দশমিনা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ছয়দিনের চিকিৎসা শেষে সুস্থ হওয়া মাকে দশমিনা থানা থেকে মুচলেকা দিয়ে ফিরিয়ে নিয়েছেন তার সন্তান রাকিব হোসেন।

এ সময় দশমিনা থানার ওসি মো. জসীম ও হাসপাতালের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোস্তাফিজুর রহমান বৃদ্ধা জয়নব বেগমকে ফুলের শুভেচ্ছা জানান। এ ঘটনায় হৃদয়বিদারক আবেগঘন পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। 

উল্লেখ্য,গত ১০ সেপ্টেম্বর দশমিনা উপজেলার সার্ভে ইন্সটিটিউটের সামনের সড়ক থেকে সন্তানদের ফেলে যাওয়া বৃদ্ধা জয়নব বেগমকে (৭০) দশমিনা থানা পুলিশ মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে।
এ ব্যাপারে দশমিনা থানার ওসি মো. জসীম জানান, মাকে আর কখনও  অবহেলা করবে না- মর্মে মুচলেকা নিয়ে তার সন্তান রাকিব হোসেনের কাছে জয়নব বেগমকে তুলে দেয়া হয়েছে। এ সময় জয়নব বেগমের আত্মীয়স্বজনরা উপস্থিত ছিলেন।
 

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন