শিগগিরই বিরল স্থলবন্দরকে পূর্ণাঙ্গ বন্দর হিসেবে চালু করা হবে
jugantor
শিগগিরই বিরল স্থলবন্দরকে পূর্ণাঙ্গ বন্দর হিসেবে চালু করা হবে

  দিনাজপুর ও বিরল প্রতিনিধি  

১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৯:০০:৫০  |  অনলাইন সংস্করণ

বাংলাদেশ স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান কেএম তারিকুল ইসলাম বলেছেন, বিরল স্থলবন্দর একটি গুরুত্বপূর্ণ সম্ভাবনাময় বন্দর। কারণ এখানে ভারতের সঙ্গে রেলপথ ও সড়কপথ দুটোরই সংযোগ রয়েছে। ইতোমধ্যে বন্দরের অবকাঠামোগত নির্মাণকাজ শুরু হয়েছে। শিগগিরই এটি পূর্ণাঙ্গ বন্দর হিসেবে চালু করা হবে।

বুধবার দুপুরে দিনাজপুরের বিরল স্থলবন্দর এলাকা পরিদর্শনকালে এক সুধীসমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

কেএম তারিকুল ইসলাম বলেন, এখানে অধিগ্রহণকৃত ১৭ একর জমির উপর ইতোমধ্যেই মাটি ভরাট শুরু হয়েছে। মাটি ভরাট শেষ হলে প্রথমেই এখানে প্রাচীর নির্মাণ করা হবে। এরপর শুরু হবে অবকাঠামো নির্মাণ কাজ। এছাড়াও ইতোমধ্যে বন্দরের দায়িত্বপ্রাপ্ত বেসরকারি অপারেটরেরা অবকাঠামো নির্মাণ কাজও শুরু করে দিয়েছেন।

স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান কেএম তারিকুল ইসলাম আরও বলেন, ভারতের সঙ্গে এ বন্দর দিয়ে রেলপথ ও সড়কপথ দুটোরই সংযোগ থাকায় ভারত এবং বাংলাদেশ সরকারের এ বন্দরটি পূর্ণাঙ্গভাবে চালুর আগ্রহ রয়েছে। তাই অচিরেই আনুষঙ্গিক অবকাঠামোগত কাজ সম্পন্ন করে এটিকে পূর্ণাঙ্গ বন্দর হিসেবে চালু করা হবে।

তিনি বলেন, বন্দরের অবকাঠামোগত উন্নয়নের পাশাপাশি বাংলাদেশ রেলওয়ে এখানে মূল রেললাইনের পাশাপাশি লুপলাইন নির্মাণেরও উদ্যোগ নিয়েছে। যাতে ভারত থেকে আমদানি-রফতানিকৃত পণ্য এখানেই লোড বা আনলোড করা যেতে পারে।

সুধী সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বিরল উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বিরল পৌরসভার মেয়র সবুজার সিদ্দিক সাগর। বক্তব্য রাখেন বেসরকারি অপারেটর বিরল ল্যান্ড পোর্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সহিদুর রহমান পাটেয়ারী ও বিরল উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রমাকান্ত রায়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন দিনাজপুর জেলা প্রশাসক মো. মাহমুদুল আলম, রংপুর কাস্টমস অ্যান্ড ভ্যাটের কমিশনার শওকত আলী সাদী, বাংলাদেশ রেলওয়ের পশ্চিমাঞ্চলীয় জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো. আসাদুল হক, ৪২ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল রেজাউল করিম রেজা, বিরল উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম মোস্তাফিজুর রহমান বাবু, ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাবের মো. সোয়াইব প্রমুখ।

বিরল স্থলবন্দর পরিদর্শনকালে ভারত সীমান্ত পর্যন্ত পরিদর্শন করেন বাংলাদেশ স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান কেএম তারিকুল ইসলাম।

শিগগিরই বিরল স্থলবন্দরকে পূর্ণাঙ্গ বন্দর হিসেবে চালু করা হবে

 দিনাজপুর ও বিরল প্রতিনিধি 
১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭:০০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বাংলাদেশ স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান কেএম তারিকুল ইসলাম বলেছেন, বিরল স্থলবন্দর একটি গুরুত্বপূর্ণ সম্ভাবনাময় বন্দর। কারণ এখানে ভারতের সঙ্গে রেলপথ ও সড়কপথ দুটোরই সংযোগ রয়েছে। ইতোমধ্যে বন্দরের অবকাঠামোগত নির্মাণকাজ শুরু হয়েছে। শিগগিরই এটি পূর্ণাঙ্গ বন্দর হিসেবে চালু করা হবে।

বুধবার দুপুরে দিনাজপুরের বিরল স্থলবন্দর এলাকা পরিদর্শনকালে এক সুধীসমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

কেএম তারিকুল ইসলাম বলেন, এখানে অধিগ্রহণকৃত ১৭ একর জমির উপর ইতোমধ্যেই মাটি ভরাট শুরু হয়েছে। মাটি ভরাট শেষ হলে প্রথমেই এখানে প্রাচীর নির্মাণ করা হবে। এরপর শুরু হবে অবকাঠামো নির্মাণ কাজ। এছাড়াও ইতোমধ্যে বন্দরের দায়িত্বপ্রাপ্ত বেসরকারি অপারেটরেরা অবকাঠামো নির্মাণ কাজও শুরু করে দিয়েছেন।

স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান কেএম তারিকুল ইসলাম আরও বলেন, ভারতের সঙ্গে এ বন্দর দিয়ে রেলপথ ও সড়কপথ দুটোরই সংযোগ থাকায় ভারত এবং বাংলাদেশ সরকারের এ বন্দরটি পূর্ণাঙ্গভাবে চালুর আগ্রহ রয়েছে। তাই অচিরেই আনুষঙ্গিক অবকাঠামোগত কাজ সম্পন্ন করে এটিকে পূর্ণাঙ্গ বন্দর হিসেবে চালু করা হবে।

তিনি বলেন, বন্দরের অবকাঠামোগত উন্নয়নের পাশাপাশি বাংলাদেশ রেলওয়ে এখানে মূল রেললাইনের পাশাপাশি লুপলাইন নির্মাণেরও উদ্যোগ নিয়েছে। যাতে ভারত থেকে আমদানি-রফতানিকৃত পণ্য এখানেই লোড বা আনলোড করা যেতে পারে।

সুধী সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বিরল উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বিরল পৌরসভার মেয়র সবুজার সিদ্দিক সাগর। বক্তব্য রাখেন বেসরকারি অপারেটর বিরল ল্যান্ড পোর্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সহিদুর রহমান পাটেয়ারী ও বিরল উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রমাকান্ত রায়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন দিনাজপুর জেলা প্রশাসক মো. মাহমুদুল আলম, রংপুর কাস্টমস অ্যান্ড ভ্যাটের কমিশনার শওকত আলী সাদী, বাংলাদেশ রেলওয়ের পশ্চিমাঞ্চলীয় জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো. আসাদুল হক, ৪২ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল রেজাউল করিম রেজা, বিরল উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম মোস্তাফিজুর রহমান বাবু, ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাবের মো. সোয়াইব প্রমুখ।

বিরল স্থলবন্দর পরিদর্শনকালে ভারত সীমান্ত পর্যন্ত পরিদর্শন করেন বাংলাদেশ স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান কেএম তারিকুল ইসলাম।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন