মির্জাপুর পৌরসভায় করোনাকালে শিশুখাদ্য না দেয়ার অভিযোগ

  মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২৩:০৯:০১ | অনলাইন সংস্করণ

টাঙ্গাইলের মির্জাপুর পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত মেয়রের বিরুদ্ধে করোনাকালীন শিশুখাদ্য না দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। মির্জাপুর উপজেলা একটি পৌরসভা ও ১৪টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে মির্জাপুর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা কার্যালয়ে জিআর কর্মসূচির আওতায় বিভিন্ন সময় করোনাভাইরাস মোকাবেলায় শিশুখাদ্য বাবদ ৬ লাখ ২৩ হাজার টাকা বরাদ্দ পাওয়া গেছে।

প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, করোনাকালীন শিশুখাদ্যের জন্য মির্জাপুর পৌরসভায় ৩৭ হাজার, মহেড়া ৪০ হাজার, জামুর্কী ৪৪ হাজার ৫০০, ফতেপুর ৩৩ হাজার ৭৫০, বানাইল ৩৮ হাজার, আনাইতারা ৩৭ হাজার, উয়ার্শী ৪১ হাজার ৫০০, ভাতগ্রাম ৩৬ হাজার, বহুরিয়া ৩৫ হাজার ৫০০, গোড়াই ৭৯ হাজার, আজগানা ৪৬ হাজার, তরফপুর ৩৪ হাজার, বাঁশতৈল ৪২ হাজার, লতিফপুর ৪২ হাজার ৫০০ ও ভাওড়া ইউনিয়নে ৩৬ হাজার ২৫০ টাকা চেকের মাধ্যমে ভারপ্রাপ্ত মেয়র ও চেয়ারম্যানদের মাঝে বিতরণ করা হয়।

অনুসন্ধানে জানা যায়, উপজেলার ১৪টি ইউনিয়নে বিভিন্ন সময় শিশুখাদ্য বিতরণ করা হয়েছে। মির্জাপুর পৌরসভায় এখন পর্যন্ত শিশুখাদ্য বিতরণ করা হয়নি বলে অভিযোগ পাওয়া যায়।

এ ব্যাপারে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. আশরাফুজ্জামান বলেন, করোনাকালীন শিশুখাদ্যের টাকা চেকের মাধ্যমে চেয়ারম্যানদের ও ভারপ্রাপ্ত মেয়রকে বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে। এ খাদ্য বিতরণের সময় উপজেলা থেকে প্রত্যেকটি ইউনিয়নে ও পৌরসভায় ট্যাগ অফিসার নিয়োগ দেয়া হয়েছে। ট্যাগ অফিসারের উপস্থিতিতে ইউনিয়নের চেয়ারম্যানরা শিশুখাদ্য বিতরণ করেন এবং মির্জাপুর পৌরসভা এখন পর্যন্ত বিতরণ করেনি বলে জানতে পারি।

এ ব্যাপারে মির্জাপুর পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডের আমিরুল কাদের লাবন ও ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলী আজম খান বলেন, করোনাকালীন শিশুখাদ্যের জন্য বরাদ্দ পেয়েছে কিন্তু অদ্যাবধি তা বিতরণ করা হয়নি।

এ ব্যাপারে মির্জাপুর পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত মেয়র চন্দনা দে বলেন, আমার বিরুদ্ধে টাকা আত্মসাতের অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট। শিশুখাদ্যের টাকা পৌরসভায় দেয়া হয়েছে কিনা আমার জানা নেই।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত