ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে এইচএসসি পরীক্ষার্থীর আত্মহত্যা
jugantor
ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে এইচএসসি পরীক্ষার্থীর আত্মহত্যা

  মহম্মদপুর (মাগুরা) প্রতিনিধি  

১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৯:৪৯:৫৮  |  অনলাইন সংস্করণ

মাগুরার মহম্মদপুরে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে মো. মাহির আহম্মেদ নামে এক এইচএসসি পরীক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে। বুধবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার আকসার চর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

মাহির আহম্মেদ ওই গ্রামের নায়েব মোল্যার ছেলে ও মাগুরা সদর উপজেলার আলোকদিয়া অমরেশ বসু ডিগ্রি কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী।

মাহির হোসেন মৃত্যুর কয়েক ঘণ্টা আগে তার নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে এক স্ট্যাটাসে লিখেছে- `পৃথিবীতে কেউ কারও জন্য না, দিন হলেই সবাই একা’।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, বুধবার সন্ধ্যার দিকে মাহিরের মা তাকে গরু গোয়াল ঘরে তোলার জন্য বলে। মাহির গরু ঘরে না উঠিয়ে বন্ধুদের সঙ্গে চলে যায়। কিছুক্ষণ পরে মাহির বাড়িতে এলে তার মা তাকে গালমন্দ করেন। মায়ের গালমন্দ সহ্য করতে না পেরে অভিমান করে স্থানীয় চুড়ারগাতি বাজার থেকে ইঁদুর মারার গ্যাস ট্যাবলেট কিনে খায়। খাওয়ার কিছুক্ষণ পরে যন্ত্রণা সহ্য করতে না পেরে নিজের ব্যবহৃত মোবাইল ফোন থেকে বাবাকে কল করে ট্যাবলেট খাওয়ার কথা বলে কান্না করতে থাকে। পরে বাবা এবং এলাকাবাসী উদ্ধার করে মাগুরা সদর হাসপাতালে নেয়ার পথে সে মারা যায়।

মহম্মদপুর থানার ওসি তারক বিশ্বাস যুগান্তরকে জানান, এ ব্যাপারে থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে এইচএসসি পরীক্ষার্থীর আত্মহত্যা

 মহম্মদপুর (মাগুরা) প্রতিনিধি 
১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭:৪৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মাগুরার মহম্মদপুরে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে মো. মাহির আহম্মেদ নামে এক এইচএসসি পরীক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে। বুধবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার আকসার চর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

মাহির আহম্মেদ ওই গ্রামের নায়েব মোল্যার ছেলে ও মাগুরা সদর উপজেলার আলোকদিয়া অমরেশ বসু ডিগ্রি কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী।

মাহির হোসেন মৃত্যুর কয়েক ঘণ্টা আগে তার নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে এক স্ট্যাটাসে লিখেছে- `পৃথিবীতে কেউ কারও জন্য না, দিন হলেই সবাই একা’।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, বুধবার সন্ধ্যার দিকে মাহিরের মা তাকে গরু গোয়াল ঘরে তোলার জন্য বলে। মাহির গরু ঘরে না উঠিয়ে বন্ধুদের সঙ্গে চলে যায়। কিছুক্ষণ পরে মাহির বাড়িতে এলে তার মা তাকে গালমন্দ করেন। মায়ের গালমন্দ সহ্য করতে না পেরে অভিমান করে স্থানীয় চুড়ারগাতি বাজার থেকে ইঁদুর মারার গ্যাস ট্যাবলেট কিনে খায়। খাওয়ার কিছুক্ষণ পরে যন্ত্রণা সহ্য করতে না পেরে নিজের ব্যবহৃত মোবাইল ফোন থেকে বাবাকে কল করে ট্যাবলেট খাওয়ার কথা বলে কান্না করতে থাকে। পরে বাবা এবং এলাকাবাসী উদ্ধার করে মাগুরা সদর হাসপাতালে নেয়ার পথে সে মারা যায়।

মহম্মদপুর থানার ওসি তারক বিশ্বাস যুগান্তরকে জানান, এ ব্যাপারে থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন