গাছ লাগানো নিয়ে ভাগ্নের লাঠির আঘাতে মামির মৃত্যু
jugantor
গাছ লাগানো নিয়ে ভাগ্নের লাঠির আঘাতে মামির মৃত্যু

  শেরপুর প্রতিনিধি  

২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৮:০৮:১৩  |  অনলাইন সংস্করণ

শেরপুরে গাছ লাগানোকে কেন্দ্র করে বিরোধের জের ধরে ভাগ্নের লাঠির আঘাতে রোজিনা বেগম (৪৮) নামে এক নারী নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার মধ্যরাতে রাজধানীর উত্তরায় আরএমটি হসপিটাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোজিনা বেগমের মৃত্যু হয়।

বুধবার সকালে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শেরপুর জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

রোজিনা বেগম সদর উপজেলার ভাতশালা ইউনিয়নের হাওড়াগড় এলাকার হাতেম আলীর স্ত্রী।

নিহতের পারিবারিক সূত্রের বরাত দিয়ে শেরপুর সদর থানার ওসি আবদুল্লাহ আল মামুন জানান, দীর্ঘদিন ধরে জমির সীমানা নিয়ে রোজিনা বেগমের সঙ্গে তার ননদ কাজলী বেগম ও ছেলে কাদের মিয়ার বিরোধ চলে আসছিল। এরই জের ধরে গত ২১ সেপ্টেম্বর সোমবার বিকাল ৩টার দিকে বাড়ির পাশে সীমানায় রোজিনা বেগম ও তার ছেলে মজনু মিয়া একটি সজনে গাছ লাগাতে যান। এ সময় কাজলী বেগমের সঙ্গে তাদের কথাকাটাকাটি হয়।

একপর্যায়ে কাদির মিয়া (৩৩) গাছের ডাল দিয়ে রোজিনার বেগমের মাথায় আঘাত করলে তিনি গুরুতর আহত হন। পরে গুরুতর অবস্থায় তাকে প্রথমে শেরপুর জেলা সদর হাসপাতাল ও পরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার অবস্থার আরও অবনতি হলে তাকে ঢাকায় স্থানান্তর করা হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান রোজিনা।

গাছ লাগানো নিয়ে ভাগ্নের লাঠির আঘাতে মামির মৃত্যু

 শেরপুর প্রতিনিধি 
২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬:০৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

শেরপুরে গাছ লাগানোকে কেন্দ্র করে বিরোধের জের ধরে ভাগ্নের লাঠির আঘাতে রোজিনা বেগম (৪৮) নামে এক নারী নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার মধ্যরাতে রাজধানীর উত্তরায় আরএমটি হসপিটাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোজিনা বেগমের মৃত্যু হয়।

বুধবার সকালে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শেরপুর জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

রোজিনা বেগম সদর উপজেলার ভাতশালা ইউনিয়নের হাওড়াগড় এলাকার হাতেম আলীর স্ত্রী।

নিহতের পারিবারিক সূত্রের বরাত দিয়ে শেরপুর সদর থানার ওসি আবদুল্লাহ আল মামুন জানান, দীর্ঘদিন ধরে জমির সীমানা নিয়ে রোজিনা বেগমের সঙ্গে তার ননদ কাজলী বেগম ও ছেলে কাদের মিয়ার বিরোধ চলে আসছিল। এরই জের ধরে গত ২১ সেপ্টেম্বর সোমবার বিকাল ৩টার দিকে বাড়ির পাশে সীমানায় রোজিনা বেগম ও তার ছেলে মজনু মিয়া একটি সজনে গাছ লাগাতে যান। এ সময় কাজলী বেগমের সঙ্গে তাদের কথাকাটাকাটি হয়।

একপর্যায়ে কাদির মিয়া (৩৩) গাছের ডাল দিয়ে রোজিনার বেগমের মাথায় আঘাত করলে তিনি গুরুতর আহত হন। পরে গুরুতর অবস্থায় তাকে প্রথমে শেরপুর জেলা সদর হাসপাতাল ও পরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার অবস্থার আরও অবনতি হলে তাকে ঢাকায় স্থানান্তর করা হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান রোজিনা।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন