পুলিশ পরিচয়ে ছিনতাই-ডাকাতি, গ্রেফতার ৪
jugantor
পুলিশ পরিচয়ে ছিনতাই-ডাকাতি, গ্রেফতার ৪

  কুমিল্লা ব্যুরো  

২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২০:১৪:২১  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লায় পুলিশ পরিচয়ে ছিনতাইয়ে জড়িত থাকার অভিযোগে আন্ত:জেলা ছিনতাইকারী চক্রের ৪ সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে কুমিল্লা ডিবি পুলিশের এলআইসি টিমের ইন্সপেক্টর নাদিম ইকতিয়ার সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে বিশেষ অভিযান চালিয়ে ঢাকার সাভার এবং গাজীপুর এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

এ সময় নগদ দেড় লাখ টাকা, কাভারসহ ১টি খেলনা পিস্তল, ১টি হ্যান্ডকাফ, ১টি ওয়াকিটকি, ডিবি পুলিশের কোট, ১টি লাঠি, ১টি মেরুন কালারের প্রাইভেটকার উদ্ধার করা হয়।

বুধবার দুপুরে কুমিল্লার পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এসব ছিনতাইকারী চক্রের সদস্যদের গ্রেফতার করার বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

গ্রেফতাকৃতরা হল- শেরপুর জেলার শ্রীবরদী থানার ধাতুয়া গ্রামের মৃত সাইদুর রহমানের ছেলে সুমন মিয়া (৪৫), ভোলা জেলার তজুমদ্দিন থানার শ্যাম্ভপুর গ্রামের শাহজাহানের ছেলে মো. ইউসুফ (৫২), জয়পুরহাট জেলার আক্কেলপুর থানার মানিকপাড়া গ্রামের মৃত আনারুলের ছেলে মো. আপেল (৩৩), যশোর কোতোয়ালি এলাকার জমজমপুর গ্রামের লুৎফুর রহমানের ছেলে মো. মনির (৪৫)।

পুলিশ সুপার জানান, পেশাদার এই ছিনতাইকারী চক্রটি বেশ কিছুদিন যাবত নানা কৌশলে কুমিল্লাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় ছিনতাই এবং ডাকাতি করে আসছিল। গত ১২ আগস্ট চক্রটি পুলিশ পরিচয়ে জেলার দেবিদ্বার থেকে আবু হানিফ শামীম নামের এক ব্যক্তিকে তুলে নিয়ে তার কাছে থাকা ১২ লাখ টাকা ছিনতাই করে তাকে মারধর করে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে ফেলে যায়। ২১ সেপ্টেম্বর চক্রটি একই কায়দায় জেলার দাউদকান্দি উপজেলার গৌরীপুর এলাকায় এক বিকাশ ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ৫ লাখ ৫০ হাজার টাকা এবং ২১ জুলাই পদুয়ার বাজার এলাকার তৈয়ব হোসেনের কাছ থেকে ৫ লাখ ৮ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়।

এসব চক্রের সদস্যদের গ্রেফতার করতে পুলিশ সুপার ডিবি পুলিশের এলআইসি টিমকে নির্দেশ প্রদান করেন। এরই সূত্র ধরে এলআইসি টিম মঙ্গলবার রাতে ঢাকা, সাভার এবং গাজীপুর এলাকায় বিভিন্ন কৌশলে অভিযান চালিয়ে ওই চক্রের চার সদস্যকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। পরে জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃতরা উল্লেখিত সব ঘটনায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে বলে এসপি জানান।

পুলিশ পরিচয়ে ছিনতাই-ডাকাতি, গ্রেফতার ৪

 কুমিল্লা ব্যুরো 
২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮:১৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লায় পুলিশ পরিচয়ে ছিনতাইয়ে জড়িত থাকার অভিযোগে আন্ত:জেলা ছিনতাইকারী চক্রের ৪ সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে কুমিল্লা ডিবি পুলিশের এলআইসি টিমের ইন্সপেক্টর নাদিম ইকতিয়ার সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে বিশেষ অভিযান চালিয়ে ঢাকার সাভার এবং গাজীপুর এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

এ সময় নগদ দেড় লাখ টাকা, কাভারসহ ১টি খেলনা পিস্তল, ১টি হ্যান্ডকাফ, ১টি ওয়াকিটকি, ডিবি পুলিশের কোট, ১টি লাঠি, ১টি মেরুন কালারের প্রাইভেটকার উদ্ধার করা হয়।

বুধবার দুপুরে কুমিল্লার পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এসব ছিনতাইকারী চক্রের সদস্যদের গ্রেফতার করার বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

গ্রেফতাকৃতরা হল- শেরপুর জেলার শ্রীবরদী থানার ধাতুয়া গ্রামের মৃত সাইদুর রহমানের ছেলে সুমন মিয়া (৪৫), ভোলা জেলার তজুমদ্দিন থানার শ্যাম্ভপুর গ্রামের শাহজাহানের ছেলে মো. ইউসুফ (৫২), জয়পুরহাট জেলার আক্কেলপুর থানার মানিকপাড়া গ্রামের মৃত আনারুলের ছেলে মো. আপেল (৩৩), যশোর কোতোয়ালি এলাকার জমজমপুর গ্রামের লুৎফুর রহমানের ছেলে মো. মনির (৪৫)।

পুলিশ সুপার জানান, পেশাদার এই ছিনতাইকারী চক্রটি বেশ কিছুদিন যাবত নানা কৌশলে কুমিল্লাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় ছিনতাই এবং ডাকাতি করে আসছিল। গত ১২ আগস্ট চক্রটি পুলিশ পরিচয়ে জেলার দেবিদ্বার থেকে আবু হানিফ শামীম নামের এক ব্যক্তিকে তুলে নিয়ে তার কাছে থাকা ১২ লাখ টাকা ছিনতাই করে তাকে মারধর করে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে ফেলে যায়। ২১ সেপ্টেম্বর চক্রটি একই কায়দায় জেলার দাউদকান্দি উপজেলার গৌরীপুর এলাকায় এক বিকাশ ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ৫ লাখ ৫০ হাজার টাকা এবং ২১ জুলাই পদুয়ার বাজার এলাকার তৈয়ব হোসেনের কাছ থেকে ৫ লাখ ৮ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়।

এসব চক্রের সদস্যদের গ্রেফতার করতে পুলিশ সুপার ডিবি পুলিশের এলআইসি টিমকে নির্দেশ প্রদান করেন। এরই সূত্র ধরে এলআইসি টিম মঙ্গলবার রাতে ঢাকা, সাভার এবং গাজীপুর এলাকায় বিভিন্ন কৌশলে অভিযান চালিয়ে ওই চক্রের চার সদস্যকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। পরে জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃতরা উল্লেখিত সব ঘটনায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে বলে এসপি জানান।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন