মোটরসাইকেলে ট্রেনের ধাক্কা, মারা গেলেন গ্রাম্যচিকিৎসক
jugantor
মোটরসাইকেলে ট্রেনের ধাক্কা, মারা গেলেন গ্রাম্যচিকিৎসক

  পাবনা প্রতিনিধি  

২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২০:৩৭:৫৭  |  অনলাইন সংস্করণ

পাবনার বেড়া উপজেলায় ট্রেনের ধাক্কায় আ. লতিফ (৩১) নামের এক গ্রাম্যচিকিৎসক মারা গেছেন। বুধবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে বেড়া উপজেলার আমিনপুর থানার পুরান মাসুমদিয়া নামক স্থানে আবদুল লতিফের মোটরসাইকেলে ধাক্কা দেয় ট্রেন। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান তিনি।

আবদুল লতিফ বেড়া উপজেলার আমিনপুর থানার কোমরপুর গ্রামের মো. মিছলি মোল্লার ছেলে। সকালে মেয়েকে মোটরসাইকেলে মক্তবে পৌঁছে দিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন তিনি।

ঢালারচর স্টেশন অফিসার ইসমাইল হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, নিহত আবদুল লতিফ নামের ওই ব্যক্তি সকালে পুরান মাসুমদিয়ায় রাস্তা পার হওয়ার সময় ঢালারচর থেকে ছেড়ে আসা রাজশাহীগামী ‘ঢালারচর এক্সপ্রেস’ ট্রেন চলে আসে। ট্রেনের সঙ্গে তার মোটরসাইকেলের সংঘর্ষ হয়। এতে তিনি মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে অন্তত ৪০ ফুট দূরে গিয়ে পড়ে গুরুতর আহত হন। স্থানীয়রা তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করেন। কিছুক্ষণ পর তিনি ঘটনাস্থলেই মারা যান।

ঈশ্বরদী জিআরপি থানার এসআই জাকির হোসেন জানান, তার নেতৃত্বে রেলওয়ে পুলিশের একটি টিম বুধবার বেলা ১টার দিকে ঘটনাস্থলে পৌঁছান।

জিআরপি থানার ওসি রঞ্জন কুমার বিশ্বাস জানান, এ ব্যাপারে জিআরপি থানায় একটি অপমৃত্যু (ইউডি) মামলা মামলা দায়ের হয়েছে।

মোটরসাইকেলে ট্রেনের ধাক্কা, মারা গেলেন গ্রাম্যচিকিৎসক

 পাবনা প্রতিনিধি 
২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮:৩৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পাবনার বেড়া উপজেলায় ট্রেনের ধাক্কায় আ. লতিফ (৩১) নামের এক গ্রাম্যচিকিৎসক মারা গেছেন। বুধবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে বেড়া উপজেলার আমিনপুর থানার পুরান মাসুমদিয়া নামক স্থানে আবদুল লতিফের মোটরসাইকেলে ধাক্কা দেয় ট্রেন। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান তিনি। 

আবদুল লতিফ বেড়া উপজেলার আমিনপুর থানার কোমরপুর গ্রামের মো. মিছলি মোল্লার ছেলে। সকালে মেয়েকে মোটরসাইকেলে মক্তবে পৌঁছে দিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন তিনি।

ঢালারচর স্টেশন অফিসার ইসমাইল হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, নিহত আবদুল লতিফ নামের ওই ব্যক্তি সকালে পুরান মাসুমদিয়ায় রাস্তা পার হওয়ার সময় ঢালারচর থেকে ছেড়ে আসা রাজশাহীগামী ‘ঢালারচর এক্সপ্রেস’ ট্রেন চলে আসে। ট্রেনের সঙ্গে তার মোটরসাইকেলের সংঘর্ষ হয়। এতে তিনি মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে অন্তত ৪০ ফুট দূরে গিয়ে পড়ে গুরুতর আহত হন। স্থানীয়রা তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করেন। কিছুক্ষণ পর তিনি ঘটনাস্থলেই মারা যান।

ঈশ্বরদী জিআরপি থানার এসআই জাকির হোসেন জানান, তার নেতৃত্বে রেলওয়ে পুলিশের একটি টিম বুধবার বেলা ১টার দিকে ঘটনাস্থলে পৌঁছান।

জিআরপি থানার ওসি রঞ্জন কুমার বিশ্বাস জানান, এ ব্যাপারে জিআরপি থানায় একটি অপমৃত্যু (ইউডি) মামলা মামলা দায়ের হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন