পদ্মায় নাব্য সংকটে দৌলতদিয়ায় পণ্যবাহী ট্রাকের দীর্ঘ সারি
jugantor
পদ্মায় নাব্য সংকটে দৌলতদিয়ায় পণ্যবাহী ট্রাকের দীর্ঘ সারি

  গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি  

২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২২:২১:৫৮  |  অনলাইন সংস্করণ

তীব্র স্রোত ও নাব্য সংকটের কারণে দেশের ব্যস্ততম দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। ফলে নদীপারের অপেক্ষায় দৌলতদিয়া প্রান্তে মহাসড়কে সিরিয়ালে আটকা পড়েছে প্রায় ৪ শতাধিক পণ্যবাহী ট্রাক। এছাড়া যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে ৩টি ফেরি বিকল থাকায় সমস্যা আরও বেড়েছে।

বুধবার বিকাল ৫টা নাগাদ দৌলতদিয়া ফেরিঘাটের জিরো পয়েন্ট থেকে দৌলতদিয়া-খুলনা মহাসড়কে প্রায় দুই শতাধিক এবং ফেরিঘাট থেকে ১৩ কিলোমিটার দূরে গোয়ালন্দ মোড়ের রাজবাড়ী-কুষ্টিয়া আঞ্চলিক মহাসড়কে আরও প্রায় দুই শতাধিক পণ্যবাহী ট্রাক আটকে থাকার খবর পাওয়া যায়। তবে সিরিয়ালে থাকতে হচ্ছে না যাত্রীবাহী বাস ও ব্যক্তিগত ছোট গাড়িগুলোকে।

জানা যায়, নদীর পানি আবারও বৃদ্ধি পাওয়াতে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটের পদ্মা নদীতে তীব্র স্রোত দেখা দিয়েছে। এছাড়া পাটুরিয়া ঘাট এলাকায় নাব্য সংকটের কারণে ওই এলাকায় চলছে ড্রেজিং কার্যক্রম। ফলে সেখান দিয়ে স্বাভাবিকভাবে চলতে না পেরে ফেরিগুলোকে অন্তত ২ কিলোমিটার ভাটিপথ ঘুরে ঘাটে আসতে হচ্ছে। এছাড়া এ রুটের ৩টি ফেরি মেরামতজনিত কারণে বিকল আছে। চালু আছে ১৫টি ফেরি।

সূত্রমতে, নদী পারাপারে ফেরিগুলোর সময় বেশি লাগায় আগের তুলনায় ফেরির ট্রিপের সংখ্যা কমেছে। যার কারণে দৌলতদিয়া প্রান্তে যানবাহনের দীর্ঘ সারি তৈরি হচ্ছে।

বিআইডব্লিউটিসি দৌলতদিয়া ঘাট শাখার সহকারী ব্যবস্থাপক মো. মাহাবুব হোসেন জানান, এ নৌরুটে বর্তমানে চালু থাকা ছোট-বড় ১৫টি ফেরি দিয়ে আমরা সার্ভিস চালু রেখেছি। স্রোত ও নাব্য সংকটে এ রুটে ফেরি চলাচল ব্যাহত হওয়ায় দৌলতদিয়া প্রান্তে কিছু ট্রাক সিরিয়ালে আছে। তবে যাত্রীবাহী পরিবহন ও ছোট গাড়ি অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পারাপার করা হচ্ছে।

পদ্মায় নাব্য সংকটে দৌলতদিয়ায় পণ্যবাহী ট্রাকের দীর্ঘ সারি

 গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি 
২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:২১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

তীব্র স্রোত ও নাব্য সংকটের কারণে দেশের ব্যস্ততম দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। ফলে নদীপারের অপেক্ষায় দৌলতদিয়া প্রান্তে মহাসড়কে সিরিয়ালে আটকা পড়েছে প্রায় ৪ শতাধিক পণ্যবাহী ট্রাক। এছাড়া যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে ৩টি ফেরি বিকল থাকায় সমস্যা আরও বেড়েছে।

বুধবার বিকাল ৫টা নাগাদ দৌলতদিয়া ফেরিঘাটের জিরো পয়েন্ট থেকে দৌলতদিয়া-খুলনা মহাসড়কে প্রায় দুই শতাধিক এবং ফেরিঘাট থেকে ১৩ কিলোমিটার দূরে গোয়ালন্দ মোড়ের রাজবাড়ী-কুষ্টিয়া আঞ্চলিক মহাসড়কে আরও প্রায় দুই শতাধিক পণ্যবাহী ট্রাক আটকে থাকার খবর পাওয়া যায়। তবে সিরিয়ালে থাকতে হচ্ছে না যাত্রীবাহী বাস ও ব্যক্তিগত ছোট গাড়িগুলোকে।

জানা যায়, নদীর পানি আবারও বৃদ্ধি পাওয়াতে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটের পদ্মা নদীতে তীব্র স্রোত দেখা দিয়েছে। এছাড়া পাটুরিয়া ঘাট এলাকায় নাব্য সংকটের কারণে ওই এলাকায় চলছে ড্রেজিং কার্যক্রম। ফলে সেখান দিয়ে স্বাভাবিকভাবে চলতে না পেরে ফেরিগুলোকে অন্তত ২ কিলোমিটার ভাটিপথ ঘুরে ঘাটে আসতে হচ্ছে। এছাড়া এ রুটের ৩টি ফেরি মেরামতজনিত কারণে বিকল আছে। চালু আছে ১৫টি ফেরি।

সূত্রমতে, নদী পারাপারে ফেরিগুলোর সময় বেশি লাগায় আগের তুলনায় ফেরির ট্রিপের সংখ্যা কমেছে। যার কারণে দৌলতদিয়া প্রান্তে যানবাহনের দীর্ঘ সারি তৈরি হচ্ছে।

বিআইডব্লিউটিসি দৌলতদিয়া ঘাট শাখার সহকারী ব্যবস্থাপক মো. মাহাবুব হোসেন জানান, এ নৌরুটে বর্তমানে চালু থাকা ছোট-বড় ১৫টি ফেরি দিয়ে আমরা সার্ভিস চালু রেখেছি। স্রোত ও নাব্য সংকটে এ রুটে ফেরি চলাচল ব্যাহত হওয়ায় দৌলতদিয়া প্রান্তে কিছু ট্রাক সিরিয়ালে আছে। তবে যাত্রীবাহী পরিবহন ও ছোট গাড়ি অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পারাপার করা হচ্ছে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন