ব্রিজ থেকে লাফ দিয়েও রক্ষা পেলেন না একাধিক মামলার আসামি
jugantor
ব্রিজ থেকে লাফ দিয়েও রক্ষা পেলেন না একাধিক মামলার আসামি

  কুমারখালী (কুষ্টিয়া) প্রতিনিধি  

২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২৩:১৫:৪২  |  অনলাইন সংস্করণ

পুলিশ দেখে ব্রিজ থেকে লাফিয়ে পড়ে গুরুতর আহত হয়েছেন একাধিক মামলার আসামি মাজেদ। পরে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছে। মঙ্গলবার রাতে তিনি কুষ্টিয়া হরিপুর ব্রিজ থেকে লাফ দেন।

মাজেদ কুষ্টিয়ার কুমারখালীর নন্দলালপুর ইউনিয়নের শিবরামপর বাঁখই গ্রামের মো. সামছুদ্দিনের ছেলে। মাজেদের বিরুদ্ধে ২০১১ সালে একটি, ২০১৬ সালে একটি, ২০১৭ সালে একটি ও ২০২০ সালের একটি মোট চারটি মামলা রয়েছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, মাজেদ সম্প্রতি কুমারখালী বাজারে সন্ধ্যার সময় প্রকাশ্যে মিঠু নামের একজনকে কুপিয়ে আহত করে। এ ঘটনায় কুমারখালী থানায় তার বিরুদ্ধে মামলা হওয়ার পর থেকে গা-ঢাকা দেন মাজেদ। মঙ্গলবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কুমারখালী থানার এসআই কামাল সঙ্গীয় ফোর্সসহ তাকে কুষ্টিয়া হরিপুর ব্রিজসংলগ্ন এলাকায় গ্রেফতারের জন্য যান। মাজেদ পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে দৌড়ে গিয়ে ব্রিজ থেকে নিচে লাফিয়ে পড়ে গুরুতর আহত হন।

পরবর্তীতে তাকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করা হয়। বর্তমানে তিনি পুলিশ প্রহরায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

কুমারখালী থানার ওসি জানান, চার মামলার আসামি মাজেদ কুষ্টিয়ার হরিপুরে আত্মগোপনে ছিলেন। সংবাদ পেয়ে কুমারখালী থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছালে হটাৎ ব্রিজ থেকে লাফ দেন মাজেদ। তাকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

ব্রিজ থেকে লাফ দিয়েও রক্ষা পেলেন না একাধিক মামলার আসামি

 কুমারখালী (কুষ্টিয়া) প্রতিনিধি 
২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১:১৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পুলিশ দেখে ব্রিজ থেকে লাফিয়ে পড়ে গুরুতর আহত হয়েছেন একাধিক মামলার আসামি মাজেদ। পরে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছে। মঙ্গলবার রাতে তিনি কুষ্টিয়া হরিপুর ব্রিজ থেকে লাফ দেন।

মাজেদ কুষ্টিয়ার কুমারখালীর নন্দলালপুর ইউনিয়নের শিবরামপর বাঁখই গ্রামের মো. সামছুদ্দিনের ছেলে। মাজেদের বিরুদ্ধে ২০১১ সালে একটি, ২০১৬ সালে একটি, ২০১৭ সালে একটি ও ২০২০ সালের একটি মোট চারটি মামলা রয়েছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, মাজেদ সম্প্রতি কুমারখালী বাজারে সন্ধ্যার সময় প্রকাশ্যে মিঠু নামের একজনকে কুপিয়ে আহত করে। এ ঘটনায় কুমারখালী থানায় তার বিরুদ্ধে মামলা হওয়ার পর থেকে গা-ঢাকা দেন মাজেদ। মঙ্গলবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কুমারখালী থানার এসআই  কামাল সঙ্গীয় ফোর্সসহ তাকে কুষ্টিয়া হরিপুর ব্রিজসংলগ্ন এলাকায় গ্রেফতারের জন্য যান। মাজেদ পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে দৌড়ে গিয়ে ব্রিজ থেকে নিচে লাফিয়ে পড়ে গুরুতর আহত হন।

পরবর্তীতে তাকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করা হয়। বর্তমানে তিনি পুলিশ প্রহরায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

কুমারখালী থানার ওসি জানান, চার মামলার আসামি মাজেদ কুষ্টিয়ার হরিপুরে আত্মগোপনে ছিলেন। সংবাদ পেয়ে কুমারখালী থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছালে হটাৎ ব্রিজ থেকে লাফ দেন মাজেদ। তাকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন