৪ সন্তানের বাবাকে পেটালেন বিএনপি নেতা
jugantor
৪ সন্তানের বাবাকে পেটালেন বিএনপি নেতা

  বাকেরগঞ্জ (বরিশাল) প্রতিনিধি  

২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২১:১৮:২০  |  অনলাইন সংস্করণ

বরিশাল

ধানের বীজ চুরির আপবাদ দিয়ে ৪ কন্যাসন্তানের বাবাকে পেটান বিএনপি নেতা। বাবাকে পিটিয়েই ক্ষান্ত হননি ওই নেতা; পেটানোর ৩ দিনের মাথায় তার অবিবাহিত ২ মেয়েকে এক ঘরে আটক রেখে দিনভর নির্যাতন চালান। এ ঘটনা বরিশাল জেলার বাকেরগঞ্জ উপজেলার নিয়ামতি ইউনিয়নের রামনগর গ্রামে।

জানা গেছে, বুধবার নিয়ামতি ইউনিয়নের রামনগর গ্রামের মৃত কাদের মৃধার পুত্র হাবিব মৃধাকে ধানের বীজ চুরির অপবাদ দিয়ে মারধর করেন একই গ্রামের নিয়ামতি ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জলিল বেপারি। এ ঘটনার বিচার চাওয়ায় শনিবার হামলার শিকার হন তার ২ মেয়ে নুপুর আক্তার, ঝুমুর আক্তার ও তার স্ত্রী কাজল বেগম এবং তার ভাইয়েরর স্ত্রী সনিয়া বেগম।

হাবিব মৃধার মেয়ে ঝুমুর আক্তার জানান, তার বাবাকে কেন মিথ্যা চুরির অপবাদ দিয়ে মারা হয়েছে- জানতে চাইলে বিএনপি নেতা জলিল বেপারি তাদের ওপর হামলা চালিয়ে একটি সমিতি ঘরে আটক রেখে দিনভর নির্যাতন চালায়। পরে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান রুহুল আমিন ও থানা পুলিশের সহায়তায় তাদের উদ্ধার করে সাদা কাগজে স্বাক্ষর রেখে ছেড়ে দেন। সাদা কাগজে স্বাক্ষর নেয়ায় তারা আতঙ্কে আছেন বলেও তিনি জানান।

বিএনপি নেতা জলিল বেপারি জানান, তার ধানের বীজ চুরি করায় হাবিব মৃধাকে মারা হয়েছে। ওই ঘটনা কেন্দ্র করে বাজারে এসে তার মেয়েরা আমার ওপর হামলা চালায়। আমি কোনো প্রকার হামলা করিনি। আমার নামে মিথ্যা বলছে।

বাকেরগঞ্জ থানার এসএআই জসিম উদ্দিন হাওলাদার জানান, নিয়ামতি যাওয়ার সময় মারামারির সংবাদ শুনে ওখানে গিয়েছিলাম, স্থানীয় চেয়ারম্যানকে উভয়পক্ষ সালিশ মানায় তাদের বাড়ি পাঠিয়ে দিয়েছি। তবে তারা চাইলে আইনি সহায়তা দেয়া হবে।

নিয়ামতি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মো. রুহুল আমিন জানান, এ ঘটনায় উভয়পক্ষ আমাকে সালিশ মানায় আগামী সোমবার সালিশির তারিখ দিয়েছি।

৪ সন্তানের বাবাকে পেটালেন বিএনপি নেতা

 বাকেরগঞ্জ (বরিশাল) প্রতিনিধি 
২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৯:১৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বরিশাল
বাকেরগঞ্জ

ধানের বীজ চুরির আপবাদ দিয়ে ৪ কন্যাসন্তানের বাবাকে পেটান বিএনপি নেতা। বাবাকে পিটিয়েই ক্ষান্ত হননি ওই নেতা; পেটানোর ৩ দিনের মাথায় তার অবিবাহিত ২ মেয়েকে এক ঘরে আটক রেখে দিনভর নির্যাতন চালান। এ ঘটনা বরিশাল জেলার বাকেরগঞ্জ উপজেলার নিয়ামতি ইউনিয়নের রামনগর গ্রামে। 

জানা গেছে, বুধবার নিয়ামতি ইউনিয়নের রামনগর গ্রামের মৃত কাদের মৃধার পুত্র হাবিব মৃধাকে ধানের বীজ চুরির অপবাদ দিয়ে মারধর করেন একই গ্রামের নিয়ামতি ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জলিল বেপারি। এ ঘটনার বিচার চাওয়ায় শনিবার হামলার শিকার হন তার ২ মেয়ে নুপুর আক্তার, ঝুমুর আক্তার ও তার স্ত্রী কাজল বেগম এবং তার ভাইয়েরর স্ত্রী সনিয়া বেগম। 

হাবিব মৃধার মেয়ে ঝুমুর আক্তার জানান, তার বাবাকে কেন মিথ্যা চুরির অপবাদ দিয়ে মারা হয়েছে- জানতে চাইলে বিএনপি নেতা জলিল বেপারি তাদের ওপর হামলা চালিয়ে একটি সমিতি ঘরে আটক রেখে দিনভর নির্যাতন চালায়। পরে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান রুহুল আমিন ও থানা পুলিশের সহায়তায় তাদের উদ্ধার করে সাদা কাগজে স্বাক্ষর রেখে ছেড়ে দেন। সাদা কাগজে স্বাক্ষর নেয়ায় তারা আতঙ্কে আছেন বলেও তিনি জানান।

বিএনপি নেতা জলিল বেপারি জানান, তার ধানের বীজ চুরি করায় হাবিব মৃধাকে মারা হয়েছে। ওই ঘটনা কেন্দ্র করে বাজারে এসে তার মেয়েরা আমার ওপর হামলা চালায়। আমি কোনো প্রকার হামলা করিনি। আমার নামে মিথ্যা বলছে।

বাকেরগঞ্জ থানার এসএআই  জসিম উদ্দিন হাওলাদার জানান, নিয়ামতি যাওয়ার সময় মারামারির সংবাদ শুনে ওখানে গিয়েছিলাম, স্থানীয় চেয়ারম্যানকে উভয়পক্ষ সালিশ মানায় তাদের বাড়ি পাঠিয়ে দিয়েছি। তবে তারা চাইলে আইনি সহায়তা দেয়া হবে।

নিয়ামতি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মো. রুহুল আমিন জানান, এ ঘটনায় উভয়পক্ষ আমাকে সালিশ মানায় আগামী সোমবার সালিশির তারিখ দিয়েছি।
 

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন