শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি রুটে ফের ফেরি বন্ধ
jugantor
শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি রুটে ফের ফেরি বন্ধ

  লৌহজং (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি  

২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২৩:০২:৪৭  |  অনলাইন সংস্করণ

নাব্য সংকটের কারণে রাতে ১২ ঘণ্টা ফেরি চলাচল বন্ধ থাকার পর রোববার সকালে ফেরি চলাচল স্বাভাবিক হয়। পরে আবারও নাব্য সংকটে এ নৌ-রুটে ফেরি চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

রোববার দুপুরে নৌ-রুটের লৌহজং ট্যানিং চ্যানেলে নাব্য সংকট দেখা দিলে বেলা ২টায় ফেরি চলাচল বন্ধ করে দেয় ঘাট কর্তৃপক্ষ। এদিকে ফেরি বন্ধ হওয়ায় নদী পারের অপেক্ষায় শিমুলিয়া ঘাটে ছোটবড় মিলিয়ে আটকা পড়েছে প্রায় তিন শতাধিক গাড়ি।

খুলনাগামী যাত্রী আবদুল মালেক শেখ জানান, দুর্ভোগের আরেক নাম শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌপথ। আমরা সব সময় এ পথ দিয়ে গ্রামের বাড়ি ও ঢাকার কর্মস্থলে যাতায়াত করি। ১ মাস ভালোভাবে যেতে পারলে ২ মাস ভোগান্তিতে পড়তে হয়। আমরা যাত্রীরা খুব অসহায় হয়ে পড়েছি। শনিবার রাত ৯টার সময় ঘাটে আসছি, সারা রাত ফেরি বন্ধ থাকার পর দুপুরে আমার গাড়িটি ফেরিতে উঠার প্রস্তুতি নিচ্ছিল এমন সময় ফেরি চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে। এখন আমি আমার পরিবার নিয়ে কী করব। এত দুর্ভোগ এ ঘাটে কল্পনার বাইরে।

বরিশালগামী পণ্যবাহী ট্রাক ড্রাইভার মোতালেব আলী জানান, ড্রাইভারের জীবন একটি অভিশপ্ত জীবনে পরিণত হয়েছে। দিনের পর দিন, রাতের পর রাত এখানে ফেরির জন্য অপেক্ষা করতে হয়।

বিআইডব্লিউটিসির শিমুলিয়া ঘাটের ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) সাফায়েত আহমেদ জানান, নাব্য সংকটের কারণে রাতে প্রায় ১২ ঘণ্টা ফেরি চলাচল বন্ধ থাকার পর সকাল থেকে ফেরি চলাচল স্বাভাবিক হয়। সকালে ছোট ৫টি ফেরি নৌ-রুটের লৌহজং ট্যানিং চ্যানেল হয়ে যানবাহন পারাপার করছিল। তবে চ্যানেলে পানির উচ্চতা কম হওয়ায় সকাল থেকেই বিঘ্ন ঘটতে থাকে।

তিনি বলেন, দুপুরে কাঁঠালবাড়ি থেকে ছেড়ে আসা ছোট ফেরি কুমিল্লা নাব্য সংকটে চ্যানেলের মাঝে আটকে যায়। এমন পরিস্থিতিতে কাঁঠালবাড়ি থেকে ছেড়ে আসা আরও দুইটি ফেরি কাকলী ও ক্যামেলিয়া আবারো কাঁঠালবাড়ি ঘাটে ফিরে গেছে। বর্তমানে ফেরি চলাচল অসম্ভব হয়ে পড়ায় বেলা ২টা থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ করা হয়েছে। নাব্য সংকট কেটে গেলে ফের ফেরি চালু হবে বলে জানান এই কর্মকর্তা।

মাওয়া ট্রাফিক পুলিশের ইন্সপেক্টর (টিআই) হিলাল উদ্দিন জানান, দুপুরে নাব্য সংকটের কারণে ফেরি বন্ধ হওয়ার কারণে ঘাট এলাকায় তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। ছোট গাড়ি থেকে পণ্যবাহী ট্রাকের সংখ্যাই বেশি।

উল্লেখ্য, বিগত কয়েক মাস যাবত চ্যানেলে নাব্য সংকটে দেশের দক্ষিণবঙ্গের ২১ জেলার অন্যতম প্রবেশপথ শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌ-রুটে ফেরির অচলাবস্থা তৈরি হয়েছে।

শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি রুটে ফের ফেরি বন্ধ

 লৌহজং (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি 
২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১:০২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নাব্য সংকটের কারণে রাতে ১২ ঘণ্টা ফেরি চলাচল বন্ধ থাকার পর রোববার সকালে ফেরি চলাচল স্বাভাবিক হয়। পরে আবারও নাব্য সংকটে এ নৌ-রুটে ফেরি চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

রোববার দুপুরে নৌ-রুটের লৌহজং ট্যানিং চ্যানেলে নাব্য সংকট দেখা দিলে বেলা ২টায় ফেরি চলাচল বন্ধ করে দেয় ঘাট কর্তৃপক্ষ। এদিকে ফেরি বন্ধ হওয়ায় নদী পারের অপেক্ষায় শিমুলিয়া ঘাটে ছোটবড় মিলিয়ে আটকা পড়েছে প্রায় তিন শতাধিক গাড়ি।

খুলনাগামী যাত্রী আবদুল মালেক শেখ জানান, দুর্ভোগের আরেক নাম শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌপথ। আমরা সব সময় এ পথ দিয়ে গ্রামের বাড়ি ও ঢাকার কর্মস্থলে যাতায়াত করি। ১ মাস ভালোভাবে যেতে পারলে ২ মাস ভোগান্তিতে পড়তে হয়। আমরা যাত্রীরা খুব অসহায় হয়ে পড়েছি। শনিবার রাত ৯টার সময় ঘাটে আসছি, সারা রাত ফেরি বন্ধ থাকার পর দুপুরে আমার গাড়িটি ফেরিতে উঠার প্রস্তুতি নিচ্ছিল এমন সময় ফেরি চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে। এখন আমি আমার পরিবার নিয়ে কী করব। এত দুর্ভোগ এ ঘাটে কল্পনার বাইরে।

বরিশালগামী পণ্যবাহী ট্রাক ড্রাইভার মোতালেব আলী জানান, ড্রাইভারের জীবন একটি অভিশপ্ত জীবনে পরিণত হয়েছে। দিনের পর দিন, রাতের পর রাত এখানে ফেরির জন্য অপেক্ষা করতে হয়।

বিআইডব্লিউটিসির শিমুলিয়া ঘাটের ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) সাফায়েত আহমেদ জানান, নাব্য সংকটের কারণে রাতে প্রায় ১২ ঘণ্টা ফেরি চলাচল বন্ধ থাকার পর সকাল থেকে ফেরি চলাচল স্বাভাবিক হয়। সকালে ছোট ৫টি ফেরি নৌ-রুটের লৌহজং ট্যানিং চ্যানেল হয়ে যানবাহন পারাপার করছিল। তবে চ্যানেলে পানির উচ্চতা কম হওয়ায় সকাল থেকেই বিঘ্ন ঘটতে থাকে।

তিনি বলেন, দুপুরে কাঁঠালবাড়ি থেকে ছেড়ে আসা ছোট ফেরি কুমিল্লা নাব্য সংকটে চ্যানেলের মাঝে আটকে যায়। এমন পরিস্থিতিতে কাঁঠালবাড়ি থেকে ছেড়ে আসা আরও দুইটি ফেরি কাকলী ও ক্যামেলিয়া আবারো কাঁঠালবাড়ি ঘাটে ফিরে গেছে। বর্তমানে ফেরি চলাচল অসম্ভব হয়ে পড়ায় বেলা ২টা থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ করা হয়েছে। নাব্য সংকট কেটে গেলে ফের ফেরি চালু হবে বলে জানান এই কর্মকর্তা।

মাওয়া ট্রাফিক পুলিশের ইন্সপেক্টর (টিআই) হিলাল উদ্দিন জানান, দুপুরে নাব্য সংকটের কারণে ফেরি বন্ধ হওয়ার কারণে ঘাট এলাকায় তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। ছোট গাড়ি থেকে পণ্যবাহী ট্রাকের সংখ্যাই বেশি।

উল্লেখ্য, বিগত কয়েক মাস যাবত চ্যানেলে নাব্য সংকটে দেশের দক্ষিণবঙ্গের ২১ জেলার অন্যতম প্রবেশপথ শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌ-রুটে ফেরির অচলাবস্থা তৈরি হয়েছে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন