কৃষক লীগ নেতার বাড়ির ছাদে পাওয়া মর্টারশেল ধ্বংস
jugantor
কৃষক লীগ নেতার বাড়ির ছাদে পাওয়া মর্টারশেল ধ্বংস

  সোনাইমুড়ি (নোয়াখালী) প্রতিনিধি  

২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২১:০৬:৪২  |  অনলাইন সংস্করণ

সোনাইমুড়ি উপজেলা কৃষক লীগ নেতার বাড়িতে পাওয়া মর্টারশেল ধ্বংস করা হয়েছে। সোমবার দুপুর ১২টার দিকে ঢাকা ডিএমপির কাউন্টার টেরোরিজম বোম-ডিসপোজাল ইউনিটের ইন্সপেক্টর আজিজুল হক মিয়া, ইন্সপেক্টর আবুল বাশার, সোনাইমুড়ি থানার ওসি গিয়াস উদ্দিনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ স্থানীয় একটি মাঠে এটি ধ্বংস করেন।

এ সময় এলাকার শত শত উৎসুক জনতা মর্টারশেল দেখতে ভিড় জমান। মর্টারশেল ধ্বংসের সময় এর বিকট শব্দে এলাকা প্রকম্পিত হয়।

১১ দিন পূর্বে উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি কবির হোসেনের বাড়ির ছাদে পাওয়া এই মর্টারশেলটি এতদিন পুলিশি পাহারায় ওই বাড়িতেই ছিল।

উল্লেখ্য, গত ১৭ সেপ্টেম্বর রাতে দেউটি ইউপির নান্দিয়াপাড়ায় উপজেলা কৃষক লীগ সভাপতি কবির হোসেনের বাড়ির পশ্চিম পাশের খালি জায়গায় একটি এলজি উদ্ধার করা হয়। পরদিন কবির হোসেনের কাজের মেয়ে পিংকি বাড়ির ছাদ ঝাড়ু দিতে গেলে বালুভর্তি বালতি দেখতে পেয়ে গৃহকর্তাকে জানান। পরে সোনাইমুড়ি থানা পুলিশ বালতির ভেতর থেকে একটি মর্টারশেল উদ্ধার করে।

এ বিষয়টি র‌্যাব-১১ এর সন্দেহ হলে তথ্য প্রদানকারী দেউটি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক হাফিজ উদ্দিন ও তার ভাতিজা বেলাল হোসেনকে আটক করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে তারা ঘটনায় সংশ্লিষ্টতার কথা স্বীকার করে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে র‌্যাব বাদী হয়ে অস্ত্র আইনে একটি এবং পুলিশ বাদী হয়ে বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে আরেকটি মামলা দায়ের করেছে।

কৃষক লীগ নেতার বাড়ির ছাদে পাওয়া মর্টারশেল ধ্বংস

 সোনাইমুড়ি (নোয়াখালী) প্রতিনিধি 
২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৯:০৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সোনাইমুড়ি উপজেলা কৃষক লীগ নেতার বাড়িতে পাওয়া মর্টারশেল ধ্বংস করা হয়েছে। সোমবার দুপুর ১২টার দিকে ঢাকা ডিএমপির কাউন্টার টেরোরিজম বোম-ডিসপোজাল ইউনিটের ইন্সপেক্টর আজিজুল হক মিয়া, ইন্সপেক্টর আবুল বাশার, সোনাইমুড়ি থানার ওসি গিয়াস উদ্দিনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ স্থানীয় একটি মাঠে এটি ধ্বংস করেন।

এ সময় এলাকার শত শত উৎসুক জনতা মর্টারশেল দেখতে ভিড় জমান। মর্টারশেল ধ্বংসের সময় এর বিকট শব্দে এলাকা প্রকম্পিত হয়।

১১ দিন পূর্বে উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি কবির হোসেনের বাড়ির ছাদে পাওয়া এই মর্টারশেলটি এতদিন পুলিশি পাহারায় ওই বাড়িতেই ছিল।

উল্লেখ্য, গত ১৭ সেপ্টেম্বর রাতে দেউটি ইউপির নান্দিয়াপাড়ায় উপজেলা কৃষক লীগ সভাপতি কবির হোসেনের বাড়ির পশ্চিম পাশের খালি জায়গায় একটি এলজি উদ্ধার করা হয়। পরদিন কবির হোসেনের কাজের মেয়ে পিংকি বাড়ির ছাদ ঝাড়ু দিতে গেলে বালুভর্তি বালতি দেখতে পেয়ে গৃহকর্তাকে জানান। পরে সোনাইমুড়ি থানা পুলিশ বালতির ভেতর থেকে একটি মর্টারশেল উদ্ধার করে।

এ বিষয়টি র‌্যাব-১১ এর সন্দেহ হলে তথ্য প্রদানকারী দেউটি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক হাফিজ উদ্দিন ও তার ভাতিজা বেলাল হোসেনকে আটক করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে তারা ঘটনায় সংশ্লিষ্টতার কথা স্বীকার করে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে র‌্যাব বাদী হয়ে অস্ত্র আইনে একটি এবং পুলিশ বাদী হয়ে বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে আরেকটি মামলা দায়ের করেছে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন