প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের নিয়ে কেক কাটলেন এমপি শাওন
jugantor
প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের নিয়ে কেক কাটলেন এমপি শাওন

  লালমোহন (ভোলা) প্রতিনিধি  

২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২২:১৪:০২  |  অনলাইন সংস্করণ

ভোলার লালমোহনে লঞ্চ ভাড়া করে তেঁতুলিয়া নদীর বুকে বিচ্ছিন্ন চর কচুয়াখালী গিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন পালন করলেন এমপি নূরুন্নবী চৌধুরী শাওন। চরের সহস্রাধিক সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের নিয়ে কাটলেন কেক। শিশুদের দিলেন নতুন পোশাক।

এছাড়া চরের ৪ হাজার বাসিন্দার মাঝে বিতরণ করলেন শাড়ি, লুঙ্গি ও দুপুরের খাবার। চরের মানুষকে ঘর দেয়ায় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাতে এমপি নূরুন্নবী চৌধুরী শাওন চরের মানুষের সঙ্গে মিলে ব্যতিক্রমী এ আয়োজন করেন।

সোমবার সকাল ১০টায় লালমোহন নাজিরপুর ঘাট থেকে সহস্রাধিক নেতাকর্মী নিয়ে এমভি মানিক-৯ লঞ্চ বিচ্ছিন্ন চর কচুয়াখালীর উদ্দেশে ছেড়ে যায়। পরে দিনভর চরের মানুষের সঙ্গে এমপি নূরুন্নবী চৌধুরী শাওন সময় কাটান।

চরের চারদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শৈশব থেকে বর্তমান পর্যন্ত হাজারও ছবি ও ফেস্টুন ঝুলানো হয়। সব মিলিয়ে চর কচুয়াখালী যেন হয়ে ওঠে শেখ হাসিনার একটি ভুবন। প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনের এমন জমকালো অনুষ্ঠান চরে হওয়ায় খুশি চরের বাসিন্দারা।

এ সময় এমপি শাওন বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মানবতার প্রতীক। তিনি এখন বাংলাদেশেই নয়, সারা বিশ্বের জননন্দিত নেত্রী। মুজিববর্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চরবাসীর জন্য গৃহনির্মাণ করেছেন। চরবাসী এখন আর অবহেলিত নয়। চরের ঘরে ঘরে সোলার বিদ্যুৎ, শিক্ষার জন্য স্কুল সবই করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাতে লালমোহনের বিচ্ছিন্ন চর কচুয়াখালীতে তার জন্মদিনের আয়োজন করা হয়।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনা আছেন বলেই বাংলার মানুষের মুখে হাসি ফোটে। তিনি আছেন বলেই দেশে এত উন্নয়ন হচ্ছে। মানুষ শান্তিতে বসবাস করছে। শেখ হাসিনার জন্ম না হলে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বিনির্মাণের কাজ আমরা চোখে দেখতাম না।

এ সময় লালমোহন উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ গিয়াস উদ্দিন আহমেদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফখরুল আলম হাওলাদার, সহসভাপতি দিদারুল ইসলাম অরুণ, পৌরসভা আওয়ামী লীগের আহবায়ক শফিকুল ইসলাম বাদল, আবুল হাসান রিমন, প্রকৌশলী এম তানজিদ, ফরহাদ হোসেন মেহের, মুর্তজা সজিব, মো. শাহিন মাতুব্বর প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের নিয়ে কেক কাটলেন এমপি শাওন

 লালমোহন (ভোলা) প্রতিনিধি 
২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:১৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ভোলার লালমোহনে লঞ্চ ভাড়া করে তেঁতুলিয়া নদীর বুকে বিচ্ছিন্ন চর কচুয়াখালী গিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন পালন করলেন এমপি নূরুন্নবী চৌধুরী শাওন। চরের সহস্রাধিক সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের নিয়ে কাটলেন কেক। শিশুদের দিলেন নতুন পোশাক।

এছাড়া চরের ৪ হাজার বাসিন্দার মাঝে বিতরণ করলেন শাড়ি, লুঙ্গি ও দুপুরের খাবার। চরের মানুষকে ঘর দেয়ায় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাতে এমপি নূরুন্নবী চৌধুরী শাওন চরের মানুষের সঙ্গে মিলে ব্যতিক্রমী এ আয়োজন করেন।

সোমবার সকাল ১০টায় লালমোহন নাজিরপুর ঘাট থেকে সহস্রাধিক নেতাকর্মী নিয়ে এমভি মানিক-৯ লঞ্চ বিচ্ছিন্ন চর কচুয়াখালীর উদ্দেশে ছেড়ে যায়। পরে দিনভর চরের মানুষের সঙ্গে এমপি নূরুন্নবী চৌধুরী শাওন সময় কাটান। 

চরের চারদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শৈশব থেকে বর্তমান পর্যন্ত হাজারও ছবি ও ফেস্টুন ঝুলানো হয়। সব মিলিয়ে চর কচুয়াখালী যেন হয়ে ওঠে শেখ হাসিনার একটি ভুবন। প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনের এমন জমকালো অনুষ্ঠান চরে হওয়ায় খুশি চরের বাসিন্দারা।

এ সময় এমপি শাওন বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মানবতার প্রতীক। তিনি এখন বাংলাদেশেই নয়, সারা বিশ্বের জননন্দিত নেত্রী। মুজিববর্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চরবাসীর জন্য গৃহনির্মাণ করেছেন। চরবাসী এখন আর অবহেলিত নয়। চরের ঘরে ঘরে সোলার বিদ্যুৎ, শিক্ষার জন্য স্কুল সবই করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাতে লালমোহনের বিচ্ছিন্ন চর কচুয়াখালীতে তার জন্মদিনের আয়োজন করা হয়।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনা আছেন বলেই বাংলার মানুষের মুখে হাসি ফোটে। তিনি আছেন বলেই দেশে এত উন্নয়ন হচ্ছে। মানুষ শান্তিতে বসবাস করছে। শেখ হাসিনার জন্ম না হলে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বিনির্মাণের কাজ আমরা চোখে দেখতাম না।

এ সময় লালমোহন উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ গিয়াস উদ্দিন আহমেদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফখরুল আলম হাওলাদার, সহসভাপতি দিদারুল ইসলাম অরুণ, পৌরসভা আওয়ামী লীগের আহবায়ক শফিকুল ইসলাম বাদল, আবুল হাসান রিমন, প্রকৌশলী এম তানজিদ, ফরহাদ হোসেন মেহের, মুর্তজা সজিব, মো. শাহিন মাতুব্বর প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন