রাজশাহীতে ছুরিকাঘাতে দোকান মালিক নিহত
jugantor
রাজশাহীতে ছুরিকাঘাতে দোকান মালিক নিহত

  রাজশাহী ব্যুরো  

২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৩:০৬:২৫  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজশাহীতে ছুরিকাঘাতে দোকান মালিক নিহত

রাজশাহী মহানগরীতে ছুরিকাঘাতে আদর (৩৮) নামে এক দোকান মালিক নিহত হয়েছেন।

সোমবার রাত ১২টার দিকে নগরীর ভেড়িপাড়া মোড়ে এ ঘটনা ঘটে।

এদিকে এ ঘটনায় রাতেই বাপ্পারাজ (২২) ও দর্পণ (৪৫) নামে দুই যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বাপ্পারাজ ও দর্পণের বাড়ি নগরীর ভেড়িপাড়া এলাকায়।

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতাল পুলিশ বক্স জানিয়েছে, নিহত আদর মহানগরীর ভেড়িপাড়া এলাকার আবদুল গফুরের ছেলে। গুরুতর আহতাবস্থায় আদরকে যারা হাসপাতালে নিয়ে গিয়েছিলেন, তারা পুলিশকে এ তথ্য দিয়েছেন।

পুলিশ বক্স সূত্র জানায়, রাত ১২টা ৫ মিনিটে ছুরিকাহত আদরকে স্থানীয়রা হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে যান। তখনও আদর জীবিত ছিলেন।

জরুরি বিভাগ থেকে তাৎক্ষণিকভাবে ওয়ার্ডে পাঠানো হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এর পর বিষয়টি থানা পুলিশকে জানানো হয়।

নগরীর রাজপাড়া থানার ওসি শাহাদাত হোসেন খান বলেন, কে বা কারা আদরকে ছুরিকাঘাত করে রাস্তার পাশে ফেলে রেখেছিলেন। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান। খবর পেয়েই তারা ঘটনাস্থলে গেছেন। গ্রেফতারকৃত বাপ্পারাজ ও দর্পণকে প্রাথমিকভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।

ওসি আরও জানান, কারা এ খুনের সঙ্গে জড়িত তা গ্রেফতারকৃত দুজন পুলিশকে জানিয়েছেন। ঘটনার সঙ্গে জড়িত অন্যদেরও গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

এ ঘটনায় নিহত আদরের ভাই হান্নান বাদী হয়ে হত্যা মামলা করেছেন। এ ছাড়া আদরের ময়নাতদন্ত শেষে দুপুরে মরদেহ নিকটাত্মীয়দের কাছে হস্তান্তর করা হবে বলেও জানান ওসি।

রাজশাহীতে ছুরিকাঘাতে দোকান মালিক নিহত

 রাজশাহী ব্যুরো 
২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১:০৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
রাজশাহীতে ছুরিকাঘাতে দোকান মালিক নিহত
ফাইল ছবি

রাজশাহী মহানগরীতে ছুরিকাঘাতে আদর (৩৮) নামে এক দোকান মালিক নিহত হয়েছেন।

সোমবার রাত ১২টার দিকে নগরীর ভেড়িপাড়া মোড়ে এ ঘটনা ঘটে।

এদিকে এ ঘটনায় রাতেই বাপ্পারাজ (২২) ও দর্পণ (৪৫) নামে দুই যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বাপ্পারাজ ও দর্পণের বাড়ি নগরীর ভেড়িপাড়া এলাকায়।

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতাল পুলিশ বক্স জানিয়েছে,  নিহত আদর মহানগরীর ভেড়িপাড়া এলাকার আবদুল গফুরের ছেলে। গুরুতর আহতাবস্থায় আদরকে যারা হাসপাতালে নিয়ে গিয়েছিলেন, তারা পুলিশকে এ তথ্য দিয়েছেন।

পুলিশ বক্স সূত্র জানায়, রাত ১২টা ৫ মিনিটে ছুরিকাহত আদরকে স্থানীয়রা হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে যান। তখনও আদর জীবিত ছিলেন।

জরুরি বিভাগ থেকে তাৎক্ষণিকভাবে ওয়ার্ডে পাঠানো হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এর পর বিষয়টি থানা পুলিশকে জানানো হয়।

নগরীর রাজপাড়া থানার ওসি শাহাদাত হোসেন খান বলেন, কে বা কারা আদরকে ছুরিকাঘাত করে রাস্তার পাশে ফেলে রেখেছিলেন। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান। খবর পেয়েই তারা ঘটনাস্থলে গেছেন। গ্রেফতারকৃত বাপ্পারাজ ও দর্পণকে প্রাথমিকভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।

ওসি আরও জানান, কারা এ খুনের সঙ্গে জড়িত তা গ্রেফতারকৃত দুজন পুলিশকে জানিয়েছেন। ঘটনার সঙ্গে জড়িত অন্যদেরও গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

এ ঘটনায় নিহত আদরের ভাই হান্নান বাদী হয়ে হত্যা মামলা করেছেন। এ ছাড়া আদরের ময়নাতদন্ত শেষে দুপুরে মরদেহ নিকটাত্মীয়দের কাছে হস্তান্তর করা হবে বলেও জানান ওসি।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন