কমিটি গঠনে অনিয়মে আ’লীগের গণশুনানি!
jugantor
কমিটি গঠনে অনিয়মে আ’লীগের গণশুনানি!

  ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি  

৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২৩:২৪:৩৭  |  অনলাইন সংস্করণ

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা আওয়ামী লীগের কমিটি গঠনে অনিয়ম, দুর্নীতি ও পক্ষপাত করার অভিযোগ নিষ্পত্তি করতে ঠাকুরগাঁও সার্কিট হাউসে দলীয় নেতাকর্মীদের গণশুনানি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার বেলা ১১টায় শুনানি শুরু হয়ে দুপুর ১টায় শেষ হয়। জাতীয় সংসদের হুইপ ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ এমপি শুনানি ও অভিযোগ তদন্ত করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সদস্য জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাদেক কুরাইশী, সাধারণ সম্পাদক দীপক কুমার রায় ও ঠাকুরগাঁও-২ আসনের সংসদ সদস্য দবিরুল ইসলামের ছেলে জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাজাহারুল ইসলাম সুজন প্রমুখ।

গণশুনানিতে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা আওয়ামী লীগের ইউনিয়ন কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের প্রতিনিধি হিসেবে অভিযোগ করে বক্তব্য দেন ভানোর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি একেএম দবিরুল ইসলাম ডালিম ও বড়পলাশ বাড়ি ইউপি চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম।

একেএম দবিরুল ইসলাম ডালিম তার অভিযোগে বলেন, দলের ত্যাগী ও জ্যৈষ্ঠ নেতাকর্মীদের বাইরে রেখে অনুপ্রবেশকারী, হাইব্রিড ও সুযোগসন্ধানীদের নিয়ে কমিটি গঠন করা হয়েছে। যা দলের জন্য ক্ষতির কারণ হয়ে দাড়াতে পারে।

আমিনুল ইসলাম আমিন অভিযোগ করেন, ক্ষমতার অপব্যবহার করে একতরফা কমিটি গঠন করা হয়েছে। মাদকসেবী, বিএনপি-জামায়াত সমর্থকদের কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

গত বছর ২৭ সেপ্টেম্বর বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়। এমপি দবিরুল ইসলামের মেজো ভাই মোহাম্মদ আলী সভাপতি ও ছোট ভাই সফিকুল ইসলামকে সাধারণ সম্পাদক ঘোষণা করায় কেন্দ্রীয় কমিটি তা বাতিল করে। এক বছর পর নব নির্বাচিত জেলা কমিটি গত ১৭ সেপ্টেম্বর সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান এমপি দবিরুল ইসলামের ছোট ভাই মোহাম্মদ আলী সভাপতি ও অ্যাড. আবু হাসনাত বাবুকে সাধারণ সম্পাদক করে ২৭ সদস্য উপজেলা কমিটি ঘোষণা করে।

ঘোষিত এই কমিটি গঠনে অনিয়ম ও দুর্নীতি হয়েছে মর্মে কেন্দ্রীয় কমিটিতে অভিযোগ করেন বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা আওয়ামী লীগের ইউনিয়ন কমিটির সভাপতি একেএম দবিরুল ইসলাম ডালিম। তারই পরিপ্রেক্ষিতে গণশুনানি অনুষ্ঠিত হয়।

জাতীয় সংসদের হুইপ ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ এমপি বলেন, আগামী ৩ অক্টোবর কেন্দ্রীয় কমিটিতে ঘটনা উত্থাপন করা হবে।

কমিটি গঠনে অনিয়মে আ’লীগের গণশুনানি!

 ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি 
৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১:২৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা আওয়ামী লীগের কমিটি গঠনে অনিয়ম, দুর্নীতি ও পক্ষপাত করার অভিযোগ নিষ্পত্তি করতে ঠাকুরগাঁও সার্কিট হাউসে দলীয় নেতাকর্মীদের গণশুনানি অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

বুধবার বেলা ১১টায় শুনানি শুরু হয়ে দুপুর ১টায় শেষ হয়। জাতীয় সংসদের হুইপ ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ এমপি শুনানি ও অভিযোগ তদন্ত করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সদস্য জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাদেক কুরাইশী, সাধারণ সম্পাদক দীপক কুমার রায় ও ঠাকুরগাঁও-২ আসনের সংসদ সদস্য দবিরুল ইসলামের ছেলে জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাজাহারুল ইসলাম সুজন প্রমুখ। 

গণশুনানিতে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা আওয়ামী লীগের ইউনিয়ন কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের প্রতিনিধি হিসেবে অভিযোগ করে বক্তব্য দেন ভানোর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি একেএম দবিরুল ইসলাম ডালিম ও বড়পলাশ বাড়ি ইউপি চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম। 

একেএম দবিরুল ইসলাম ডালিম তার অভিযোগে বলেন, দলের ত্যাগী ও জ্যৈষ্ঠ নেতাকর্মীদের বাইরে রেখে অনুপ্রবেশকারী, হাইব্রিড ও সুযোগসন্ধানীদের নিয়ে কমিটি গঠন করা হয়েছে। যা দলের জন্য ক্ষতির কারণ হয়ে দাড়াতে পারে।

আমিনুল ইসলাম আমিন অভিযোগ করেন, ক্ষমতার অপব্যবহার করে একতরফা কমিটি গঠন করা হয়েছে। মাদকসেবী, বিএনপি-জামায়াত সমর্থকদের কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

গত বছর ২৭ সেপ্টেম্বর বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়। এমপি দবিরুল ইসলামের মেজো ভাই মোহাম্মদ আলী সভাপতি ও ছোট ভাই সফিকুল ইসলামকে সাধারণ সম্পাদক ঘোষণা করায় কেন্দ্রীয় কমিটি তা বাতিল করে। এক বছর পর নব নির্বাচিত জেলা কমিটি গত ১৭ সেপ্টেম্বর সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান এমপি দবিরুল ইসলামের ছোট ভাই মোহাম্মদ আলী সভাপতি ও অ্যাড. আবু হাসনাত বাবুকে সাধারণ সম্পাদক করে ২৭ সদস্য উপজেলা কমিটি ঘোষণা করে।
 
ঘোষিত এই কমিটি গঠনে অনিয়ম ও দুর্নীতি হয়েছে মর্মে কেন্দ্রীয় কমিটিতে অভিযোগ করেন বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা আওয়ামী লীগের ইউনিয়ন কমিটির সভাপতি একেএম দবিরুল ইসলাম ডালিম। তারই পরিপ্রেক্ষিতে গণশুনানি অনুষ্ঠিত হয়।  

জাতীয় সংসদের হুইপ ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ এমপি বলেন, আগামী ৩ অক্টোবর কেন্দ্রীয় কমিটিতে ঘটনা উত্থাপন করা হবে। 

 
আরও খবর
 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন