স্কুলছাত্রী ধর্ষণে সহযোগিতার অভিযোগে নারী গ্রেফতার
jugantor
স্কুলছাত্রী ধর্ষণে সহযোগিতার অভিযোগে নারী গ্রেফতার

  কালকিনি (মাদারীপুর) প্রতিনিধি  

০১ অক্টোবর ২০২০, ০০:২৮:১৯  |  অনলাইন সংস্করণ

মাদারীপুরের কালকিনির এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণে সহযোগিতার অভিযোগে ইতি দাস (৪২) নামের এক গৃহবধূকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বুধবার দুপুরে বরিশালের গৌরনদীর কটকস্থল এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

ইতি ওই উপজেলার বার্থী ইউনিয়নের গোরক্ষডোবা গ্রামের রনজিৎ দাসের স্ত্রী।

গৌরনদী মডেল থানার এসআই মো. অহিদ মিয়া যুগান্তরকে গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, কালকিনির রমজানপুর গ্রামের এক দিনমজুরের স্কুলপড়ুয়া মেয়েকে উত্ত্যক্ত করত একই গ্রামের রমেশ মন্ডলের বখাটে পুত্র সুমন মন্ডল (২৮)। গত ২১ সেপ্টেম্বর সকালে ওই স্কুলছাত্রী প্রাইভেট পড়ার জন্য বাড়ি থেকে বের হলে সুমনের নেতৃত্বে ৪/৫ জন যুবক তাকে অপহরণ করে গৌরনদীতে নিয়ে যায়। পরে সুমন তার নিকটাত্মীয় রনজিৎ দাসের স্ত্রী ইতি দাসের বাড়িতে আটকে রেখে তিনদিন ধর্ষণ করে।

এ ঘটনায় ভিকটিমের বাবা বাদী হয়ে সুমন ও ইতি দাসসহ অজ্ঞাত আরও কয়েকজনকে আসামি করে বুধবার সকালে গৌরনদী থানায় একটি মামলা করেন।

গৌরনদী মডেল থানার ওসি গোলাম ছরোয়ার যুগান্তরকে বলেন, স্কুলছাত্রীকে ডাক্তারি পরীক্ষা ও আদালতে জবানবন্দি দেয়ার জন্য বরিশাল পাঠানো হয়েছে। গ্রেফতারকৃত ইতি দাসকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। সুমনকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

স্কুলছাত্রী ধর্ষণে সহযোগিতার অভিযোগে নারী গ্রেফতার

 কালকিনি (মাদারীপুর) প্রতিনিধি 
০১ অক্টোবর ২০২০, ১২:২৮ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মাদারীপুরের কালকিনির এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণে সহযোগিতার অভিযোগে ইতি দাস (৪২) নামের এক গৃহবধূকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

বুধবার দুপুরে বরিশালের গৌরনদীর কটকস্থল এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।  

ইতি ওই উপজেলার বার্থী ইউনিয়নের গোরক্ষডোবা গ্রামের রনজিৎ দাসের স্ত্রী।

গৌরনদী মডেল থানার এসআই মো. অহিদ মিয়া যুগান্তরকে গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। 

তিনি জানান, কালকিনির রমজানপুর গ্রামের এক দিনমজুরের স্কুলপড়ুয়া মেয়েকে উত্ত্যক্ত করত একই গ্রামের রমেশ মন্ডলের বখাটে পুত্র সুমন মন্ডল (২৮)। গত ২১ সেপ্টেম্বর সকালে ওই স্কুলছাত্রী প্রাইভেট পড়ার জন্য বাড়ি থেকে বের হলে সুমনের নেতৃত্বে ৪/৫ জন যুবক তাকে অপহরণ করে গৌরনদীতে নিয়ে যায়। পরে সুমন তার নিকটাত্মীয় রনজিৎ দাসের স্ত্রী ইতি দাসের বাড়িতে আটকে রেখে তিনদিন ধর্ষণ করে।

এ ঘটনায় ভিকটিমের বাবা বাদী হয়ে সুমন ও ইতি দাসসহ অজ্ঞাত আরও কয়েকজনকে আসামি করে বুধবার সকালে গৌরনদী থানায় একটি মামলা করেন।

গৌরনদী মডেল থানার ওসি গোলাম ছরোয়ার যুগান্তরকে বলেন, স্কুলছাত্রীকে ডাক্তারি পরীক্ষা ও আদালতে জবানবন্দি দেয়ার জন্য বরিশাল পাঠানো হয়েছে। গ্রেফতারকৃত ইতি দাসকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। সুমনকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন