ইউএনও ওয়াহিদার স্থলাভিষিক্ত হলেন যিনি
jugantor
ইউএনও ওয়াহিদার স্থলাভিষিক্ত হলেন যিনি

  দিনাজপুর প্রতিনিধি   

০২ অক্টোবর ২০২০, ১৭:৩৮:২০  |  অনলাইন সংস্করণ

দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলায় প্রায় এক মাস পর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হিসেবে যোগদান করেছেন রাফিউল আলম। তিনি দুর্বৃত্ত কর্তৃক হামলার শিকার হওয়া ইউএনও ওয়াহিদা খানমের স্থলাভিষিক্ত হন।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সোয়া ৬টায় ঘোড়াঘাট উপজেলায় নতুন ইউএনও হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন রাফিউল আলম।

রাফিউল আলম ২০১৪ সালের ৩৩তম বিসিএস (প্রশাসন) ক্যাডার হিসেবে উত্তীর্ণ হয়ে বান্দরবান জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে সহকারী কমিশনার হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন।

এরপর তিনি কক্সবাজার, কুড়িগ্রাম ও রংপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে সহকারী কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। পরে তিনি পাবনা জেলার ফরিদপুর উপজেলায় সহকারী কমিশনার (ভূমি) হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এরপর সেখান থেকে তাকে দিনাজপুর ঘোড়াঘাট ইউএনও হিসেবে বদলি করা হয়।

প্রসঙ্গত, গত ২ সেপ্টেম্বর রাতে সরকারি বাসভবনে দুর্বৃত্ত কর্তৃক নির্মম হামলার শিকার হন ঘোড়াঘাট ইউএনও ওয়াহিদা খানম ও তার পিতা মুক্তিযোদ্ধা ওমর আলী শেখ। এরপর থেকেই ঢাকার ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব নিউরোসায়েন্স হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি।

সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ২০ সেপ্টেম্বর তাকে ঘোড়াঘাট ইউএনওর পদ থেকে বদলি করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব দেয়া হয়। বৃহস্পতিবার ঢাকার ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব নিউরোসায়েন্স হাসপাতাল থেকে ছাড় পান ওয়াহিদা খানম।

ইউএনও ওয়াহিদার স্থলাভিষিক্ত হলেন যিনি

 দিনাজপুর প্রতিনিধি  
০২ অক্টোবর ২০২০, ০৫:৩৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলায় প্রায় এক মাস পর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হিসেবে যোগদান করেছেন রাফিউল আলম। তিনি দুর্বৃত্ত কর্তৃক হামলার শিকার হওয়া ইউএনও ওয়াহিদা খানমের স্থলাভিষিক্ত হন।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সোয়া ৬টায় ঘোড়াঘাট উপজেলায় নতুন ইউএনও হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন রাফিউল আলম।

রাফিউল আলম ২০১৪ সালের ৩৩তম বিসিএস (প্রশাসন) ক্যাডার হিসেবে উত্তীর্ণ হয়ে বান্দরবান জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে সহকারী কমিশনার হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন।

এরপর তিনি কক্সবাজার, কুড়িগ্রাম ও রংপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে সহকারী কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। পরে তিনি পাবনা জেলার ফরিদপুর উপজেলায় সহকারী কমিশনার (ভূমি) হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এরপর সেখান থেকে তাকে দিনাজপুর ঘোড়াঘাট ইউএনও হিসেবে বদলি করা হয়।

প্রসঙ্গত, গত ২ সেপ্টেম্বর রাতে সরকারি বাসভবনে দুর্বৃত্ত কর্তৃক নির্মম হামলার শিকার হন ঘোড়াঘাট ইউএনও ওয়াহিদা খানম ও তার পিতা মুক্তিযোদ্ধা ওমর আলী শেখ। এরপর থেকেই ঢাকার ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব নিউরোসায়েন্স হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি।

সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ২০ সেপ্টেম্বর তাকে ঘোড়াঘাট ইউএনওর পদ থেকে বদলি করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব দেয়া হয়। বৃহস্পতিবার ঢাকার ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব নিউরোসায়েন্স হাসপাতাল থেকে ছাড় পান ওয়াহিদা খানম।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ইউএনও ওয়াহিদার ওপর হামলা

১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন